আসুন, আমরা সচেতন হই, মহামারী করোনাকে জয় করি : আলহাজ্ব মো. গোলাম হোসেন

করোনাকালে কচুয়া উপজেলাসহ বিভিন্ন স্থানে মারা যাওয়া ব্যক্তিদের রুহের মাগফিরাত কামনা করে শোকার্ত পরিবারের প্রতি গভীর শোক ও সমবেদনা জ্ঞাপন করেছেন সাবেক সচিব ও এনবিআর-এর চেয়ারম্যান চাঁদপুরের কচুয়া উপজেলার কৃতী সন্তান আলহাজ্ব মো. গোলাম হোসেন। গতকাল ২৩ জুন প্রেরিত এক শোকবার্তায় তিনি বলেন, মহামারী করোনা ধর্ম-বর্ণ-উঁচু-নীচু-দল নির্বিশেষে তার ভয়ংকর থাবা বিস্তার করেই চলেছে। এই মহামারীর কারণে কচুয়ার সকলস্তরের মানুষের জীবন ও জীবিকা বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। এর মরণ ছোবলে ইতোমধ্যেই আমরা চেয়ারম্যান হাজী আব্দুল হাই মুন্সী, ছায়েদ আলী মিয়া, মুক্তিযোদ্বা রুহুল আমিন, শাহাদাত হোসেন মানিক, হাফেজ জাকারিয়া সুমন, বাচ্চু মিয়া, আব্দুল রব, এনামুল হক ও ফজিলাতুন নেছা প্রমুখকে হারিয়েছি। অনেকেই এই মহামারীর সাথে যুদ্ধ করে চলেছেন। অসুস্থতা অথবা বার্ধ্যক্যজনিত কারণে আতাউর রহমান মিন্টু, আব্দুল রব মোল্লা, চেয়ারম্যান উসমান গণি মোল্লা, সেলিম মাষ্টার, ইমাম আলী মিয়া, কাজী নজরুল ইসলামসহ অনেকেই মারা গেছেন। এছাড়াও সারা দেশে অনেক অমূল্য জীবন মহামারী করোনা কেড়ে নিয়েছে। আসুন, আমরা দোয়া করি, আল্লাহ সকল বিদেহী আতœাকে শান্তি দিন, শোক সন্তপ্ত পরিবোরের সদস্যদের শোক বহনের ক্ষমতা দিন, অসুস্থদের আশু রোগমুক্ত করুন এবং আমাদের সকলকে, আমাদের দেশকে সকল দুর্যোগ ও মহামারী থেকে হেফাজত করুন। আমিন।
মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা, তাঁর সরকার ও জন প্রতিনিধিগন এই মহাদুর্যোগকালে মানুষের পাশে থেকে নিরলস কাজ করছেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নিজে এই মহাদুর্যোগ মোকাবিলায় মানুষকে সার্বক্ষণিক সাহস যোগাচ্ছেন, অনুপ্রেরণা দিচ্ছেন, অগ্রগতি তদারক করছেন। এখন সময় এসেছে, আমাদের বিক্ষিপ্ত ব্যক্তি উদ্যোগকে সমন্বয়ের মাধ্যমে সরকারী উদ্যোগের সমার্থক করে এগিয়ে যাবার, যাতে আমরা এই যুদ্ধে জয়ী হতে পারি। আসুন, আমরা সকল ভেদাভেদ ভুলে নিজ নিজ সামর্থ অনুযায়ী অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াই। মনে রাখতে হবে, আপনার নিরাপত্তা আপনাকেই নিশ্চিত করতে হবে। আপনার ক্ষণিকের অসাবধানতা আপনার নিজের, এমনকি আপনার পরিবারের জন্য বিপর্যয় ডেকে আনতে পারে। তাই আসুন, স্বাস্থ্য অধিদপ্তর কর্তৃক প্রদত্ত স্বাস্থ্যবিধি যেমন, ’ঘরের বাইরে অবশ্যই মাস্ক পরি, সামাজিক দূরত্ব মেনে চলি, অপ্রয়োজনে ঘরের বাইরে না যাই, চায়ের কাপের আড্ডা এড়িয়ে চলি, বারবার সাবান দিয়ে হাত ধুই’ নীতিসমূহ মেনে চলতে আমাদের পরিবার, প্রতিবেশি ও এলাকাবাসীকে উদ্বুদ্ধ করি, অনুপ্রাণিত করি। সকল অবস্থায় মনোবল শক্ত রাখুন। আক্রান্ত পরিবারের প্রতি মানবিক হোন। আমাদের সম্মিলিত প্রয়াস এই যুদ্ধে আমাদের জয়ী করবে, ইনশাআল্লাহ।
অতীতের মতো আমরা সব সময় আপনাদের পাশেই আছি।

-মোঃ গোলাম হোসেন, সাবেক সচিব ও চেয়ারম্যান, এনবিআর। হাসিমপুর, কচুয়া, চাঁদপুর।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *