উজ্জ্বল সম্ভাবনাময় উদ্যোক্তা ফৌজিয়া আবেদীন

ফৌজিয়া আবেদীন। যিনি ইকো লাইফস্টাইল-এর সত্ত্বাধিকারী। চাঁদপুর জেলার হাজীগঞ্জ উপজেলার ৩নং কালচোঁ ইউনিয়নে এক সম্ভ্রান্ত মজুমদার পরিবারে তার জন্ম। বাবা জয়নাল আবেদীন মজুমদার দেশের চামড়া ও চামড়াজাত শিল্পের একজন উজ্জ্বল নক্ষত্র। তার বাবা চামড়া ও চামড়াজাত রপ্তানীতে বিশেষ অবদান রাখায় রপ্তানীতে দেশের সর্বোচ্চ স্বীকৃতি তৃতীয়বারের মতো রপ্তানী ট্রফি অর্জন করেন এবং চতুর্থবারের মতো সিআইপি (Commercial Important Person) নির্বাচিত হন। তিনি এবিসি ফুটওয়্যার ইন্ড্রাষ্টিজ লিমিটেডের চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবং জাপান ও বাংলাদেশের যৌথ বিনিয়োগকৃত রপ্তানীমুখী প্রতিষ্ঠান বিবিজে লেদার গুডস লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক। পাশাপাশি এবিসি লেদারের সত্ত্বাধিকারী। মা দিলারুবা আবেদীন মজুমদারও একজন প্রতিষ্ঠিত চামড়াজাত পণ্য উৎপাদনকারী ব্যবসায়ী। তিনি জাপান ও বাংলাদেশের যৌথ বিনিয়োগকৃত রপ্তানীমুখী প্রতিষ্ঠান বিবিজে লেদার গুডস সম্মানিত চেয়ারম্যান।
ফৌজিয়া আবেদীন মোহাম্মদপুর প্রিপারেটরী স্কুল থেকে মাধ্যমিক এবং ঢাকা কমার্স কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক সম্পন্ন করেন। এছাড়াও তিনি বিজিএমইএ ইউনিভার্সিটি অব ফ্যাশন ও টেকনোলজি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ছিলেন। পরবর্তীতে চামড়াজাত পণ্যে সংশ্লিষ্ট ফ্যাশন ডিজাইনের উপর উচ্চতর প্রশিক্ষণ নেওয়ার জন্য ইতালি বিখ্যাত Arsutioria school SRL- থেকে প্রথম বাংলাদেশী হিসেবে প্রশিক্ষণ সম্পন্ন করেন। পরিবারের কাছ থেকে পাওয়া গর্বিত বাংলাদেশী হিসেবে দেশপ্রেমের চেতনায় উদ্বুদ্ধ হয়ে দেশ ও দেশের মানুষ নিয়ে কাজ করতে ফৌজিয়া আগ্রহী। সেই চেতনা ও স্বপ্নকে বাস্তব রূপ দিতে তিনি ইতালিতে প্রশিক্ষণ শেষে ফিরে আসেন দেশে। এরপর ফৌজিয়া ২০১৭ সালে ইকো লাইফস্টাইল নামে একটি চেইনশপ দিয়ে যাত্রা শুরু করেন। কঠোর পরিশ্রম ও একাগ্রতার সাথে নারী উদ্যোক্তা হিসেবে তিনি সহযোগিতা পেয়েছেন পরিবার ও এর সংশ্লিষ্টদের কাছে এবং সেই সুবাদে সকল সামাজিক প্রতিকূলতা অতিক্রম করে আজ তিনি ৯টি শো-রুম পরিচালনা করছেন। যেখানে ১২০ জন কর্মকর্তা-কর্মচারী কাজ করছেন। দেশের মানুষের আশা আকাঙ্খা প্রতিফলন এই অভ্যন্তরীণ ব্যবসা প্রসার ও বৃদ্ধির লক্ষ্যে ফৌজিয়া আবেদীন জাপান, সিঙ্গাপুর, চীন, থাইল্যান্ড, জার্মানি, সুইজারল্যান্ডসহ অনেকে দেশে ভ্রমণের মাধ্যমে অভিজ্ঞতা অর্জন করে নিজেকে আরো সমৃদ্ধ করার চেষ্টা করছেন।
ফৌজিয়া আবেদীনকে দৈনিক চাঁদপুর প্রতিদিনের এক দশক পূর্তি উপলক্ষে পত্রিকার লেখক সুহৃদ হিসেবে সম্মাননা জানাচ্ছে পত্রিকা পরিবার।

 

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *