কচুয়ায় গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু, স্বামীসহ শ্বশুর-শ্বাশুিড় আটক

কচুয়া প্রতিনিধি :
কচুয়া উপজেলার প্রসন্নকাপ গ্রামে হালিমা আক্তার (২৪) নামের এক গৃহবধুর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার প্রসন্নকাপ গ্রামের হালিমা আক্তারের শ^শুর বাড়ি থেকে পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। নিহত হালিমা আক্তারের বাবা আব্দুল জালিল জানান, আমার মেয়েকে তার স্বামী রাসেল, শ্বশুর আলী আজগর ও শ্বাশুিড় রেহেনা বেগম পরিকল্পিত ভাবে হত্যা করেছে। আমি আমার মেয়ে হত্যাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই।
জানা গেছে, প্রায় ১ বছর পূর্বে কচুয়া উপজেলার লতিফপুর গ্রামের নিরীহ কৃষক আব্দুল জলিলের মেয়ে হালিমা আক্তারকে একই উপজেলার প্রসন্নকাপ গ্রামে আলী আজগরের ছেলে রাসেলের সাথে পারিবারিক ভাবে বিবাহ হয়। বিয়ের পর থেকে বিভিন্ন সময়ে হালিমা আক্তারকে কারনে অকারনে মারধর করত বলে হালিমার বাবা আব্দুল জলিল দাবী করেন। এর আগে এ নিয়ে বেশ কয়েকবার সালিশ বৈঠক হয়েছে বলে তিনি দাবি করেন।
তবে রাসেলের মা রেহেনা বেগম তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, হালিমা আক্তার বিয়ের পর থেকে বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত ছিল। কিভাবে তার মঙ্গলবার ভোরে মৃত্যু হয়েছে তারা কিছু বলতে পারেনি।
কচুয়া থানার ওসি মোহাম্মদ মহিউদ্দিন জানান, খবর পেয়ে গৃহবধুর লাশ শ^শুর বাড়ি থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। বাদীর অভিযোগের প্রেক্ষিতে স্বামী,শ^শুর ও শ^াশুড়িকে আটক করা হয়েছে। বিষয়টি উদঘাটনে অধিক তদন্ত চলছে এবং মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। তবে পোষ্টমর্ডাম রিপোর্ট অনুযায়ী পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *