কচুয়ায় যুবতীকে ধর্ষণের অভিযোগে থানায় মামলা

কচুয়া প্রতিনিধি :
কচুয়ার মনপুরা গ্রামে এক যুবতীকে জোরপূর্বক ধর্ষণের অভিযোগে থানায় নারী ও নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের হয়েছে। শনিবার রাতে ধর্ষণের শিকার ওই যুবতী বাদী হয়ে একই গ্রামের যুবক মো. সজিব (২৩) কে আসামী করে এ মামলাটি দায়ের করেন। যার নং ০৪, তারিখ: ০৪.০৭.২০২০ খ্রি.।
মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার মনপুরা গ্রামের প্রবাসী দেলোয়ার হোসেনের ছেলে মো. সজিব একই বাড়ির নজরুল ইসলামের যুবতী কন্যাকে বিভিন্ন সময়ে কু-প্রস্তাব দিয়ে উত্ত্যক্ত করে আসছে। ২৫ শে জুন রাতে ওই যুবতী প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে ঘর থেকে বের হলে পূর্বে ওৎপেতে থাকা অভিযুক্ত যুবক সজিব তাকে মুখে চাপ দিয়ে তার ঘরে নিয়ে যায়। একপর্যায়ে বিভিন্ন ভাবে ভয়ভীতি দেখিয়ে তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। পরে তার ডাক চিৎকারে স্থানীয় লোকজন ছুটে আসলে ওই লম্পট যুবক সজিব পালিয়ে যায়।
ঘটনার পর বিষয়টি সমাধানের আশ্বাস দিয়ে টালবাহানা করেন একই গ্রামের হারুনুর রশিদ ও ইলিয়াস মিয়া। তারা সজিবের আত্মীয়স্বজনের প্ররোচণায় মা হারা ওই মেয়েটির নির্যাতনের বিষয়টি সমাধান না করে উল্টো টালবাহানা করেন। এ ঘটনায় দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন এলাকাবাসী। এদিকে থানায় মামলা দায়েরের পর তদন্তকারী কর্মকর্তা কচুয়া থানা উপ-পরিদর্শক (এস আই) মো. মাইনউদ্দিন ওই যুবতীকে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০ সংশোধনী (২০০৩) এর ২২ ধারা মোতাবেক ভিকটিমের জবানবন্ধির জন্য বিজ্ঞ আদালতে উপস্থাপন করেন।
স্থানীয় ইউপি সদস্য মো. ওবায়েদ মিয়া বলেন, যুবতীকে ধর্ষণের বিষয়টি শুনেছি। তবে বিষয়টি শান্তিপূর্ণ সমাধান না হওয়ায় তিনি দুঃখ প্রকাশ করেন।
কচুয়া থানার ওসি মো. অলি উল্যাহ অলি জানান, বাদী থানায় মামলা করেছেন। তার ফরেনসিক পরীক্ষা ও বয়স নির্ধারনের জন্য তাকে চাঁদপুর সরকারি হাসপাতালে নেয়া হয়েছে এবং আসামীকে গ্রেফতারের প্রচেষ্টা চলছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *