করোনা রিপোর্ট কেলেঙ্কারি : সাহেদ গেফতার

চাঁদপুর প্রতিদিন ডেস্ক :
করোনা পরীক্ষার ভুয়া রিপোর্ট, অর্থ আত্মসাৎসহ নানা প্রতারণার অভিযোগে অভিযুক্ত রিজেন্ট গ্রুপ ও রিজেন্ট হাসপাতালের চেয়ারম্যান সাহেদ করিম ওরফে মো. সাহেদকে হেলিকপ্টারে করে ঢাকায় আনা হয়েছে।
বুধবার সকাল সোয়া ৯টার দিকে সাহেদকে রাজধানীর তেজগাঁওয়ের পুরাতন বিমানবন্দরে আনা হয়। তাকে র‌্যাব সদর দপ্তরে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে।
এর আগে সাতক্ষীরার দেবহাটা উপজেলার কোমরপুর গ্রামের লবঙ্গবতী নদীর তীর সীমান্ত এলাকা থেকে সাহেদকে গ্রেপ্তার করে র‍্যাব। কোমরপুর সীমান্ত দিয়ে নৌকায় করে ভারতে পালিয়ে যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন তিনি। এ সময় তিনি জিন্সের প্যান্ট ও নীল রঙের শার্টের ওপর কালো রঙের বোরকা পরে ছিলেন। এমন অবস্থায় বুধবার ভোর ৫টা ২০ মিনিটে বিশেষ অভিযানে তাকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব।
গ্রেপ্তারের পর সাহেদকে ঢাকায় নেওয়ার আগে বুধবার সকালে র‌্যাবের এডিজি (অপারেশন) কর্নেল তোফায়েল অহমেদ সাতক্ষীরা স্টেডিয়ামে সাংবাদিকদের জানান, সাহেদ গ্রেপ্তার এড়াতে বিভিন্ন কৌশল অবলম্বন করেছিলেন। যেমন তিনি গোফ কেটে ফেলেছিলেন, সাদা চুল কালো করেছিলেন। এছাড়া পালানোর সময় তিনি বোরকা পরে ছিলেন।
র‌্যাবের এই কর্মকর্তা বলেন, ‘ভারতে পালানোর আগেই তাকে ধরতে আমরা সক্ষম হয়েছি। ভারতে পালিয়ে তার মাথা ন্যাড়া করার পরিকল্পনা ছিল।’

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *