কিশোরগ্যাং বিরোধী অভিযান : চাঁদপুরে আটকের ভয়ে চুল কাটার হিড়িক

চাঁদপুর প্রতিদিন ডেস্ক :
সংঘবদ্ধ আড্ডাবাজি বাদ দিয়ে আগামীতে সুবোধ বালকের মতো চলাফেরা করবে, এমন মুচলেকায় চাঁদপুরে আটক ৪৭ কিশোরকে ছেড়ে দিয়েছে পুলিশ। পরদিন ভিড় বেড়ে যায় ওই এলাকার সেলুনের দোকানগুলোতে।
মঙ্গলবার (০২ মার্চ) মধ্যরাতে চাঁদপুর সদর মডেল থানা থেকে এসব কিশোরকে ছাড়িয়ে নেন তাদের অভিভাবকরা।
এর আগে মঙ্গলবার সন্ধ্যা ছয়টা থেকে রাত নয়টা পর্যন্ত চাঁদপুর শহরের কিশোর গ্যাং সন্দেহে বেশকিছু এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৪৭ কিশোরকে আটক করে সদর মডেল থানা পুলিশ। মূলত কিশোর গ্যাং ধরতে পুলিশের এই অভিযান।
চাঁদপুর সদর মডেল থানার ওসি আব্দুর রশিদ জানান, সংঘবদ্ধ কিশোরের দল শহরের বিভিন্নস্থানে আড্ডা দেওয়াসহ নানা ধরনের অপরাধে জড়াচ্ছে। এমন অভিযোগের ভিত্তিতে এবং জেলা পুলিশ সুপারের নির্দেশে এসব কিশোরদের লাগাম টেনে ধরতে এই অভিযান চালানো হয়।
এদিকে, আটক কিশোরদের ছাড়িয়ে নিতে মধ্যরাতে তাদের অভিভাবকরা থানায় ভিড় করেন। পরে উপযুক্ত মুচলেকা আদায় করে কিশোরদের অভিভাবকের জিম্মায় ছেড়ে দেওয়া হয়।
অন্যদিকে, থানা থেকে ছাড়া পাওয়া এবং আরও শত শত কিশোর এখন চাঁদপুর শহরের সেলুনগুলোতে ভিড় করছে।
চুলে রং মেখে বাহারি কাটের স্টাইল বাদ দিয়ে কিশোররা এখন আর্মি কাটিং দিচ্ছে। যাতে ওদের নিয়ে কেউ টিপ্পনী কাটতে না পারে যে, ছেলেটা কিশোর গ্যাং এ জড়িত।
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, গত কয়েক মাস আগে চাঁদপুর শহরের গনি আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে কথা কাটাকাটির জের ধরে প্রতিপক্ষের হাতে এক কিশোর খুন হয়। এর আগে ও পরে আরও বেশকিছু কিশোর অপরাধ সংগঠিত হয়।
এসব ঘটনার প্রেক্ষিতে চাঁদপুর জেলা পুলিশ সুপার মাহবুবুর রহমান নিজ উদ্যোগে কিশোর গ্যাং সম্পর্কে একটি ডাটাবেইজ তৈরি করেন। এরপরই চাঁদপুর শহরে কিশোর গ্যাং ধরতে নড়েচড়ে বসে পুলিশ।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *