চাঁদপুরের মানুষের জন্য ডা. দীপু মনি এক আশীর্বাদের নাম

অধ্যক্ষ রতন কুমার মজুমদার ::
কেউ জনগণের অর্থ লুটপাট করে খায় আর কেউ নিজের ব্যক্তিগত সঞ্চিত অর্থ জনগণের কল্যাণে বিলিয়ে দেয়। নিজের ব্যক্তিগত অর্থ জনগণের কল্যাণে ব্যয় করার মানসিকতা সবার থাকে না। অঢেল ধন-সম্পদের মালিক হয়েও অনেকের এ মানসিকতা নেই। প্রকাশ্যে অপ্রকাশ্যে মানুষের জন্য কিছু করবার বা মানুষের পাশে দাড়াবার যে অদম্য স্পৃহা তা যদি দেখতে হয় তবে চলে আসতে পারেন মেঘনাপাড়ের এ জনপদে।
বলছিলাম মেঘনা পাড়ের কন্যা ডা. দীপু মনির কথা। তাঁর নাই কোনো অঢেল ধন-সম্পদ, নাই কোনো লক্ষকোটি টাকা। কিন্তু তাঁর যা আছে তা অনেকেরই নেই। তবে তাঁর যা আছে তা লক্ষকোটি টাকার চেয়ে বহুগুন। লোভ-লালসা, স্বজনপ্রীতি তাঁকে কোনোদিন স্পর্শ করতে পারেনি, সাধারণ ঘরে জন্ম নেয়া দীপু মনি রাজনীতি করেন সাধারণের জন্য। তাঁর রাজনীতি জনগণের ভালবাসার অমৃতরসে পুষ্ট।
এ করোনাকালে যেমন তিনি নিজ মন্ত্রণালয়ের কাজে সাফল্য দেখিয়েছেন, রাষ্ট্রীয় কাজে সময় দিয়েছেন তেমনি প্রতিনিয়ত, প্রতিদিন নিজ নির্বাচনী এলাকার মানুষের খোঁজখবর নিয়েছেন, প্রয়োজনীয় যতো সহযোগিতা আছে তা করেছেন। করোনা রোগীদের বাঁচাবার জন্য আজ চাঁদপুর সদর হাসপাতালে তাঁর পিতা বঙ্গবন্ধুর সহচর ভাষাসৈনিক ‘এম এ ওয়াদুদ ম্যামোরিয়াল ট্রাস্টের’ উদ্যোগে একটি হাই-ফ্লো অক্সিজেন প্ল্যান্ট স্থাপন করেছেন।
এ মাসেই এম এ ওয়াদুদ মেমোরিয়াল ট্রাস্টের উদ্যোগে এবং তাঁর নিজস্ব আর্থিক সহযোগিতায় চালু হতে যাচ্ছে আরটিপিসিআর করোনা টেস্ট ল্যাব। চাঁদপুরের করোনা রোগীদের চিকিৎসা সহায়তা দিতে তিনি তাঁর নিজের সঞ্চিত সঞ্চয়পত্র ভেঙ্গে সে টাকা এ ল্যাব স্থাপনে ব্যয় করবেন। তিনি আজ ভার্চুয়াল মিটিং যে কথা জানালেন তা শুনে আবেগে আপ্লুত যেমন হয়েছি তেমনি শ্রদ্ধায় মাথা নত হয়েছে। তিনি ল্যাব স্থাপনে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে বলেছেন তাঁর নিজস্ব সঞ্চয়পত্র ভেঙ্গে এ ল্যাব স্থাপনে ব্যয় করতে চান। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বল্লেন নিজের টাকা দিবে?’ তিনি উত্তর দিলেন ‘আমি নিয়ত করেছি আমার সঞ্চয়পত্রের টাকা ল্যাব স্থাপনে ব্যয় করবো।’ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সাথে সাথে সম্মতি দিলেন এবং ল্যাব স্থাপনে সহায়তা করবেন বলে জানালেন। সত্যিই তাঁর এ পবিত্র নিয়তের প্রতি আমরা যেনো শ্রদ্ধাশীল হই। আমরা যেমন ভাগ্যবান প্রধানমন্ত্রী হিসেবে বঙ্গবন্ধু কন্যাকে পেয়ে, তেমনি ভাগ্যবান আমরা একজন জনবান্ধব জনপ্রতিনিধি পেয়ে। তাই চাঁদপুরের মানুষের জন্য দীপু মনি এক আশীর্বাদের নাম।

– লেখক : অধ্যক্ষ, পুরাণবাজার ডিগ্রি কলেজ, চাঁদপুর

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *