চাঁদপুরের ৮৯ ইউনিয়নের কর্মহীন পরিবারগুলোর জন্য ২ কোটি ২২ লাখ ৫০ হাজার টাকা বরাদ্দ

নিজস্ব প্রতিবেদক :
করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত কর্মহীন পরিবারের জন্য আর্থিক সহায়তার টাকা বরাদ্দ দিয়েছে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়। এ সহায়তার আওতায় চাঁদপুরের ৮৯টি ইউনিয়নের মধ্যে প্রত্যেকটি ইউনিয়নের জন্য ২ লাখ ৫০ হাজার টাকা আর্ধিক বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। এ হিসাবে জেলার ৮৯টি ইউনিয়নের জন্য ২ কোটি ২২ লাখ ৫০ হাজার টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। এছাড়া প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণিভেদে পৌরসভার জন্যও বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। এ বরাদ্দ থেকে প্রতিটি পরিবার পাবে ৪৫০ টাকা। যা দরিদ্র মানুষের মাঝে বন্টনের জন্য রবিবার প্রত্যেক ইউনিয়ন পরিষদ চেয়রম্যানের অনুকূলে ছাড় করা হবে। এ তথ্য জানিয়েছেন চাঁদপুরের জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ।
জেলা প্রশাসক জানান, প্রতি ইউনিয়নের জন্য আড়াই লাখ টাকা করে বরাদ্দ এসেছে। যারা ভিজিএফ কার্ডধারী তাদেরকে ৪৫০ টাকা করে দেয়া হবে। রবিবার আমরা ইউপি চেয়ারম্যানদের অনুকূলে এ টাকা ছাড় করবো। আশাকরি, দ্রুততম সময়ের মধ্যেই তারা এটি বিতরণ করবেন।
উল্লেখ্য, কর্মহীন মানুষদের সহায়তায় সরকার ৫৭২ কোটি ৯ লাখ ২৭ হাজার টাকা বরাদ্দ দিয়েছে। দেশের প্রায় এক কোটি ২৪ লাখ ৪১ হাজার ৯০০টি পরিবারকে ভিজিএফ (ভালনারেবল গ্রুপ ফিডিং) কর্মসূচির আওতায় এই আর্থিক সহায়তা দেওয়া হবে। পরিবারপ্রতি ৪৫ টাকা কেজি দরে ১০ কেজি চালের সমমূল্য, অর্থাৎ কার্ডপ্রতি ৪৫০ টাকা হারে আর্থিক সহায়তা পাবে কর্মহীন পরিবার।
গত ৮ এপ্রিল সরকারি এক তথ্যবিবরণীতে এ কথা জানানো হয়।
তথ্যবিবরণীতে বলা হয়, মহামারি করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউয়ের কারণে বিধিনিষেধ আরোপের পরিপ্রেক্ষিতে সরকার দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে এই বরাদ্দ দিয়েছে।
এতে আরও বলা হয়েছে, দেশের ৬৪টি জেলার ৪৯২টি উপজেলার জন্য ৮৭ লাখ ৭৯ হাজার ২০৩টি কার্ড এবং ৩২৮টি পৌরসভার জন্য ১২ লাখ ৩০ হাজার ৭৪৬টি কার্ডসহ মোট এক কোটি ৯ হাজার ৯৪৯টি ভিজিএফ কার্ডের বিপরীতে ৪৫০ কোটি ৪৪ লাখ ৭৭ হাজার ৫০ টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।
পরিবারপ্রতি ১০ কেজি চালের সমমূল্য, অর্থাৎ কার্ডপ্রতি ৪৫০ টাকা হারে আর্থিক সহায়তা দিতে উপজেলাগুলোর জন্য ৩৯৫ কোটি ৬ লাখ ৪১ হাজার ৩৫০ টাকা এবং পৌরসভাগুলোর জন্য ৫৫ কোটি ৩৮ লাখ ৩৫ হাজার ৭০০ টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়।
এছাড়া কোভিড পরিস্থিতিসহ বিভিন্ন প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্ত অসহায় পরিবারকে তাৎক্ষণিকভাবে খাদ্য সহায়তার জন্য ১২১ কোটি ৬৪ লাখ ৫০ হাজার টাকা দেওয়া হয়েছে। ৬৪টি জেলার ৪ হাজার ৫৬৮টি ইউনিয়নের প্রতিটিতে ২ লাখ ৫০ হাজার টাকা হারে মোট ১১৪ কোটি ২০ লাখ টাকা মানবিক সহায়তা দেওয়া হবে।
সারা দেশের ৩২৮টি পৌরসভার অনুকূলে মোট ৫ কোটি ৬৭ লাখ টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়। এরমধ্যে ‘এ’ ক্যাটাগরির প্রতিটি পৌরসভার জন্য ২ লাখ টাকা, ‘বি’ ক্যাটাগরির প্রতিটি পৌরসভার জন্য এক লাখ ৫০ হাজার টাকা এবং ‘সি’ ক্যাটাগরির প্রতিটি পৌরসভার জন্য এক লাখ টাকা হারে বরাদ্দ দেওয়া হয়। ঢাকা দক্ষিণ ও উত্তর, গাজীপুর এবং চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের জন্য ৭ লাখ টাকা হারে বরাদ্দ দেওয়া হয়।
একইসঙ্গে দেশের ৬৪টি জেলার জেলা প্রশাসনের অনুকূলে ‘এ’ ক্যাটাগরির জন্য ২ লাখ টাকা, ‘বি’ ক্যাটাগরির জন্য এক লাখ ৫০ হাজার টাকা এবং ‘সি’ ক্যাটাগরির জন্য এক লাখ টাকা হারে মোট এক কোটি ৭৭ লাখ বরাদ্দ দেওয়া হয়।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *