চাঁদপুরে করোনাক্রান্তদের চিকিৎসায় আরেকটি হাসপাতালের পরিকল্পনা

ইব্রাহীম রনি :
চাঁদপুর জেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশের সভাপতিত্বে ভার্চুয়ালি এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।
অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট অসীম চন্দ্র বনিক সঞ্চালনায় সভায় চাঁদপুর জেলার করোনা পরিস্থিতিসহ আইন শৃঙ্খলা বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়। এতে চাঁদপুর জেলা পুলিশ সুপার মিলন মাহমুদসহ জেলার সকল সরকারি দফতরের দায়িত্বশীল ব্যক্তিবর্গ সভায় অনলাইনে উপস্থিত ছিলেন।
সভায় জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ বলেন, জেলায় করোনা পরিস্থিতি যেভাবে উন্নতি হওয়ার কথা ছিলো তা হয়নি। বরং চাঁদপুর জেলায় করোনা সনাক্তের হার বাড়ছে, মৃতের সংখ্যা বাড়ছে। তিনি বলেন, মানুষকে আরও সচেতন হতে হবে।
তিনি বলেন, জেলা করোনা রোগী সংখ্যা বৃদ্ধির এই পরিস্থিতিতে স্থান সংকুলান না হওয়ার বিষয়ে আরেকটি হাসপাতাল নির্ধারণ করার পরিকল্পনা চলছে।
এ বিষয়ে সিভিল সার্জন ডা: সাখাওয়াত উল্লাহ বলেন, এটি করতে হলে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অনুমতি লাগে। তাদের অনুমতি নিয়ে এ বিকল্প ব্যবস্থা করতে হবে। কারণ, মানুষ অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে আসলে তাদেরকে সেবা দিতে হবে। সদর হাসপাতালে যে ক্যাপাসিটি আছে তার বাইরে এখানে রোগী নিতে পারবে না। তাহলে রোগী বাড়লে বাকীরা কোথায় যাবে। সেজন্যই এ বিকল্প ব্যবস্থা হিসেবে আরেকটি হাসপাতাল ঠিক করতে চাই।
কোরবানির হাট সম্পর্কে জেলা প্রশাসক বলেন, মঙ্গলবারের মধ্যেই পশুর হাট সম্পর্কে হয়তো সিদ্ধান্ত পাবো।
সভায় বক্তব্য রাখেন পুলিশ সুপার মো. মিলন মাহমুদ, পৌরমেয়র মো. জিল্লুর রহমান জুয়েল, জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি নাছির উদ্দিন আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক আবু নঈম পাটওয়ারী দুলাল, ডিডি এনএসআই শেখ আরমান, মুক্তিযোদ্ধা জেলা কমান্ডার এম এ ওয়াদুদ, জেনারেল হাসপাতাল তত্ত্বাবধায়ক ডাঃ হাবিব উল, বীর মুক্তিযোদ্ধা সৈয়দা বদরুন নাহার চৌধুরী, চাঁদপুর প্রেসক্লাব সভাপতি ইকবাল হোসেন পাটোয়ারী প্রমুখ।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *