চাঁদপুরে করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাওয়ার আশংকা

নিজস্ব প্রতিবেদক :
চাঁদপুর জেলা আবারো করোনার উচ্চ ঝুঁকিতে পড়েছে। এরইমধ্যে দেশের অন্য জেলাগুলোর চেয়ে চাঁদপুরে আক্রান্ত ও মৃত্যুর হার উদ্বেগজনক। জেলা সিভিল সার্জন ডা. সাখাওয়াত উল্লাহ জানিয়েছেন, এখনই সতর্ক না হলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাবে।
এমন পরিস্থিতিতে সারাদেশের মতো চাঁদপুরেও কঠোর লকডাউন কার্যকর করতে সোমবার (২৮ জুন) ভোর থেকে পুলিশ ও প্রশাসন সড়কগুলোতে তৎপর ছিল। এই জন্য যানবাহন ও মানুষজনকে নিয়ন্ত্রণ করতে জেলা শহরের প্রবেশ পথে চেকপোস্ট বসানো হয়েছে। এই জেলায় করোনার সংক্রমণের হার ৩৩ ভাগের ওপরে ছড়িয়ে পড়ায় পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা সড়কগুলোতে বেশ তৎপর থাকতে দেখা গেছে।
এছাড়া মুখে মাস্ক নেই এবং বিনা প্রয়োজনে সড়কে বেরিয়েছে, এমন মানুষজনকে জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালতের ম্যাজিস্ট্রেটগণ।
সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার মোহাম্মদ হেলালউদ্দিন চৌধুরী জানান, ভোর থেকে একাধিক নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শহরের প্রবেশ পথে অবস্থান নিয়েছেন। তাছাড়া শহরের বিভিন্নস্থানেও টহল জোরদার করা হয়েছে। ফলে বন্ধ রয়েছে শপিং মল ও বিপণি বিতানগুলো।
জেলা পুলিশ সুপার মিলন মাহমুদ জানান, করোনার থাবা থেকে মানুষের জীবন রক্ষায় পুলিশ সদস্যরা প্রশাসন ও স্বাস্থবিভাগকে সার্বিক সহযোগিতা দিয়ে যাচ্ছে।
জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ জানান, কার্যকর লকডাউন বাস্তবায়নে সমাজের সর্বস্তরের মানুষকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে।
জেলা সিভিল সার্জন ডা. সাখাওয়াত উল্লাহ জানান, দেশের ৬৪ জেলার মধ্যে চাঁদপুরে আক্রান্ত এবং মৃত্যুর হার উদ্বেগজনক। এরইমধ্যে ৫ হাজার ১শ ৮৭জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। আর এতে মারা গেছেন ১শ ২৫ জন। সুতরাং এখনই সতর্ক না হলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাবে।
এদিকে, চাঁদপুর জেলা শহর ছাড়াও আরো ৭টি উপজেলায় লকডাউন বাস্তবায়নে কাজ করছে স্থানীয় প্রশাসন, পুলিশ ও স্বাস্থ্যবিভাগ।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *