চাঁদপুরে বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস পালন

নিজস্ব প্রতিবেদক :
গতকাল ১১ জুলাই ছিলো বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস। এ উপলক্ষে চাঁদপুর জেলা পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের আয়োজনে ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে জুম অ্যাপের মাধ্যমে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক মোঃ মাজেদুর রহমান খান। বিশেষ অতিথি ছিলেন ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার মোঃ মিজানুর রহমান, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবু নঈম পাটওয়ারী দুলাল, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম নাজিম দেওয়ান ও চাঁদপুর প্রেসক্লাবের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি গিয়াস উদ্দিন মিলন। সভাপতিত্ব করেন জেলা পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের উপ-পরিচালক ডাঃ মোঃ ইলিয়াছ। পরিচালনা করেন সদর স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ মোঃ গফুর মিয়া। বক্তব্য রাখেন জেলা পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ এনজিও সূর্যের হাসি ক্লিনিকের ম্যানেজার বেবী সাহা।
এবারের বিশ^ জনসংখ্যা দিবসের প্রতিপাদ্য বিষয় হচ্ছে ‘মহামারী কোভিড-১৯ কে প্রতিরোধ করি, নারী ও কিশোরের সুস্বাস্থ্যের অধিকার নিশ্চিত করি’।
এদিকে বিশ^ জনসংখ্যা দিবস উপলক্ষে এবার নিয়ে চতুর্থবারের মতো বিভাগীয় পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ হয়েছে মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্র, চাঁদপুর। আর জেলা পর্যায়ে শ্রেষ্ঠত্ব অর্জন করেন চাঁদপুর সদর উপজেলার চান্দ্রা ইউনিয়নের পরিবার কল্যাণ সহকারী শাহিন আক্তার, মতলব উত্তর উপজেলার ফরাজীকান্দী ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রের পরিদর্শিকা মোর্শেদা বেগম, চাঁদপুর সদর উপজেলার তরপুরচন্ডী ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রের উপ-সহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার রহিমা খানম, মতলব উত্তর উপজেলার ফরাজীকন্দি ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্র, হাজীগঞ্জ উপজেলার ২নং বাকিলা ইউনিয়ন পরিষদ, চাঁদপুর সদর উপজেলায় মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্র ও চাঁদপুর সদর উপজেলায় সূর্যের হাসি ক্লিনিকের সাহেদ রিয়াজ ও বেবী সাহা।
সদর উপজেলায় শ্রেষ্ঠত্ব অর্জনকারী চান্দ্রা ইউনিয়নের পরিবার কল্যাণ সহকারী শাহিন আক্তার, মৈশাদী ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রের পরিবার কল্যাণ পরিদর্শিকা মানছুরা আক্তার, তরপরচন্ডী ইউনিয়নের পরিবার পরিকল্পনা পরিদর্শক মোঃ জয়নাল আবেদীন, কল্যাণপুর ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রের উপ-সহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অীফসার রহিমা খানম, কল্যাণপুর ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্র, বালিয়া ইউনিয়ন পরিষদ ও এনজিও সূর্যের হাসি ক্লিনিক।
জেলা এবং সদর উপজেলায় যারা শ্রেষ্ঠ হয়েছেন তাদেরকে জেলা পরিবার পরিকল্পনা কার্যালয়ে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে পুরস্কার প্রদান করা হয়। পুরস্কার হিসেবে দেয়া হয় ক্রেস্ট এবং বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী বই।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *