চাঁদপুরে মা ও শিশুর মৃত্যুর হার কমিয়ে আনতে জেলা-উপজেলায় বিশেষ পদক্ষেপ

নিজস্ব প্রতিবেদক :
‘নিরাপদ মাতৃত্বের প্রচার : নিরাপদ মাতৃত্ব এবং নবজাতকের বেঁচে থাকার বিষয়ে গবেষণা’ প্রকল্পের আওতায় চাঁদপুরে অ্যাডভোকেসি ও প্ল্যানিং সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে চাঁদপুর সার্কিট হাউসে অনুষ্ঠিত এই সভায় সভাপতিত্ব করেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) অসিম কুমার বণিক। প্রকল্প বাস্তবায়নকারী সংস্থা আরটিএম ইন্টারন্যাশনালের নির্বাহী পরিচালক সৈয়দ জগলুল পাশা এতে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন।

আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন চাঁদপুরের সিভিল সার্জন ডা. মো. সাখাওয়াত উল্লাহ, জেলা পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের উপ-পরিচালক ডা. মোঃ ইলিয়াছ, চাঁদপুর প্রেসক্লাব সভাপতি ইকবাল হোসেন পাটওয়ারী, সাধারণ সম্পাদক রহিম বাদশা, সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. সাজেদা বেগম পলিন। সভা সঞ্চালনা করেন প্রকল্প সমন্বয়কারী ডা. ইফতেখার আলম।

সভায় জানানো হয়, মা ও শিশুর মৃত্যুর হার কমিয়ে আনতে সরকার জেলা-উপজেলায় বিশেষ পদক্ষেপ নিয়েছে। গর্ভবতী মা ও নবজাতক শিশুর জরুরী ও জটিল পরিস্থিতি মোকাবেলায় এই প্রকল্পের আওতায় বিশেষ সেবা কার্যক্রম চালু হচ্ছে। এছাড়া জেলা সদর হাসপাতাল থেকে শুরু করে গ্রামের কমিউনিটি ক্লিনিক পর্যন্ত সব ধরনের সরকারি চিকিৎসা কেন্দ্রের চিকিৎসকের প্রশিক্ষণ ও উপকরণ প্রদান করা হয়েছে। অনেক চিকিৎসা কেন্দ্রে ব্রেস্ট ফিডিং ও শিশু কর্ণার স্থাপন করা হচ্ছে।

সভায় জানানো হয়, চাঁদপুর জেলার সদর উপজেলা, ফরিদগঞ্জ ও কচুয়া উপজেলায় এই প্রকল্প বাস্তবায়িত হচ্ছে। এসব উপজেলার ১৫টি ইউনিয়নের ৪৫টি কমিউনিটি ক্লিনিকে প্রকল্পর কার্যক্রম চলছে

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *