চাঁদপুরে লকডাউনে অ্যাম্বুলেন্সের ভেতর ঢেউটিন!

ইব্রাহীম রনি :
করোনা সংক্রমণরোধে সারাদেশে চলছে কঠোর লকডাউন। এ সময়ে বিভিন্ন ধরনের যান চলাচলে বিধি-নিষেধ আরোপ করেছে সরকার। তারই প্রেক্ষিতে চাঁদপুরেও কঠোর বিধি-নিষেধ বাস্তবায়নে মাঠে কাজ করছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। অন্যান্য যানবাহনের পাশাপাশি বন্ধ রিক্সা চলাচলও। এর মধ্যে জরুরী সেবা হিসেবে রোগী বহনের জন্য চালু আছে অ্যাম্বুলেন্স। কিন্তু পুলিশ, প্রশাসনকে ফাকি দিয়ে সেই অ্যাম্বুলেন্সে এখন বহন করা হচ্ছে ঢেউটিন। ২৭ জুলাই মঙ্গলবার শহরের স্ট্যান্ড রোড এলাকার একটি দোকান থেকে অ্যাম্বুলেন্সে ঢেউটিন ভর্তি করতে দেখা গেছে। পরে সেগুলো গন্তব্যে পৌছে দেয় অ্যাম্বুলেন্সটি। এ বিষয়টি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে চলছে সমালোচনা।


প্রত্যক্ষদর্শী চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক এএইচএম আহসান উল্যাহ বলেন, জরুরী প্রয়োজনীয় যান ছাড়া বন্ধ সব ধরনের যান চলাচল। করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় সর্বশেষ চাঁদপুরে বন্ধ করে দেয়া হয় রিক্সা চলাচলও। কিন্তু গত কয়েকদিন ধরেই স্ট্যান্ডরোডস্থ আজিজ ব্রাদার্সসহ কয়েকটি দোকান থেকে ঢেউটিন গন্তব্যে নেয়ার জন্য ব্যবহার করা হচ্ছে অ্যাম্বুলেন্স। মঙ্গলবার দুপুর ৩টার দিকে বিষয়টি আমার চোখে পড়ে। মেইন রোডে দোকানের সামনের সার্টার বন্ধ। কিন্তু গলির ভেতরের দোকানের পেছনের সার্টার খোলা রেখে এ কাজ করা হয়।
তিনি বলেন, এটি ধোঁকাবাজি। প্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে ধোঁকা দিতে অ্যাম্বুলেন্সে ঢেউটিন বহন করা হচ্ছে। চাঁদপুর শহরের স্ট্র্যান্ড রোডস্থ কয়েকটি দোকানের সামনের সব সাটার বন্ধ দেখা গেলেও দোকানের পাশের গলির ভেতরে সাটার খোলা রেখে মালামাল বিক্রি করছে।

আজিজ ব্রাদার্সের সত্বাধিকারী মো. আজিজ বলেন, টিন কি অ্যাম্বুলেন্সে ঢুকানো যায়? অ্যাম্বুলেন্সেতো মানুষই বসতে পারে না, টিন নিবে কিভাবে? যে আপনাকে এ তথ্য দিয়েছে সে ঠিক বলেনি। অ্যাম্বুলেন্সে টিন বহনের ছবি আছে বললে তিনি বলেন, ছবি থাকলে কী হবে?

চাঁদপুর সদর মডেল থানার ওসি তদন্ত সুজন কান্তি বড়ুয়া বলেন, এখন তারা অ্যাম্বুলেন্সে ঢেউটিন বহন করছে কেন তা বলতে পারছি না। তাছাড়া বিষয়টি আমার জানা নেই।

চাঁদপুরের জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ বলেন, জেলায় কঠোর বিধি-নিষেধ বাস্তবায়নে আমরা প্রতিনিয়ত কাজ করছি। তিনি বলেন, অ্যাম্বুলেন্স হলো রোগী পরিবহনের জন্য। তাতে যদি টিন পরিবহন করা হয় তাহলে সেটি বেআইনি। এটি সত্যি হলে আমরা সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

 

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *