চাঁদপুরে ১ মুজিব কেল্লাসহ ১৪টি স্থাপনার উদ্বোধন

নিজস্ব প্রতিবেদক :
মুজিব কেল্লা, গুদামঘর, ঘূর্ণিঝড় আশ্রয়কেন্দ্র, বন্যা আশ্রয়কেন্দ্রসহ ২১৫টি স্থাপনার উদ্বোধন ও ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এসময় চাঁদপুর জেলায় ১টি মুজিব কেল্লাসহ মোট ১৫ টি স্থাপনার উদ্বোধন করা হয়।
গতকাল রোববার (২৩ মে) গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে এসব উন্নয়ন কাজের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মুজিববর্ষ উপলক্ষে ১০০টি বহুমুখী ঘূর্ণিঝড় আশ্রয়কেন্দ্র, ৩০টি বন্যা আশ্রয়কেন্দ্র, ৩০টি জেলা ত্রাণ গুদাম-কাম-দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা তথ্যকেন্দ্র, ৫টি মুজিব কেল্লার উদ্বোধন ও ৫০টি মুজিব কেল্লার ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন।
শুধু সরকারে নয়, বিরোধীদলে থাকার সময়ও আওয়ামী লীগ জনগণের কল্যাণে কাজ করে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগ সরকারে থাকুক আর বিরোধীদলে থাকুক সব সময় মানুষের পাশে থেকেছে।
সারা বিশ্বের মানুষ এখন বাংলাদেশকে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনায় দৃষ্টান্ত হিসেবে দেখে বলেও মন্তব্য করেন টানা তিনবারের প্রধানমন্ত্রী।
করোনা থেকে বাঁচতে সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে চাঁদপুর জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে সভাপতিত্ব করেন চাঁদপুরের জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ।
এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সরকারের উপ-পরিচালক (উপ-সচিব) ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ আবদুল্লাহ আল মাহমুদ জামান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) দাউদ হোসেন চৌধুরী, সিনিয়র সহকারি কমিশনার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট অমিত চক্রবর্তী, এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মো. ছামিউল ইসলাম, মোঃ মেহেদী হাসান মানিক, অলিদুজ্জামান, আজিজুন্নাহার, মো. উজ্জ্বল হোসেন, মো. ইবনে আল জায়েদ হোসেন, ইমরান মাহমুদ ডালিম, মঞ্জুরুল মোর্শেদ, কাজী মোঃ মেশকাকুল ইসলাম, এআরএম জাহিদ হাসান, রেশমা খাতুন, রিক্তা খাতুন, দেবযানী করসহ জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তাবৃন্দ।
উপকূলীয় ও ঘূর্ণিঝড় প্রবন এলাকায় বহুমূখী আশ্রয়কেন্দ্র নির্মান প্রকল্প গুলো হলো, ফরিদগঞ্জ উপজেলার ৩ নং সুবিদপুর পূর্ব ইউনিয়নের গফুর চৌধুরী উচ্চ বিদ্যালয় বহুমুখী ঘূর্ণিঝড় আশ্রয়কেন্দ্র, হাইমচর উপজেলার ৬নং চরভৈরবী ইউনিয়নের চরভৈরবী আজিজিয়া আজহারুল উলুম দাখিল মাদ্রাসা বহুমুখী ঘূর্ণিঝড় আশ্রয়কেন্দ্র, হাজীগঞ্জ উপজেলার ৫নং হাজীগঞ্জ সদর ইউনিয়নের সুহিলপুর উচ্চ বিদ্যালয় বহুমুখী ঘূর্ণিঝড় আশ্রয়কেন্দ্র, কচুয়া উপজেলার কাদলা ইউনিয়নের আশেক আলী খান স্কুল এন্ড কলেজ বহুমুখী ঘূর্ণিঝড় আশ্রয়কেন্দ্র, মতলব দক্ষিণ উপজেলার ৩নং খাদেও গাঁও লামচরী উচ্চ বিদ্যালয় বহুমুখী ঘূর্ণিঝড় আশ্রয়কেন্দ্র, ৪ নং নারায়নপুর কালিকাপুর আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় বহুমুখী ঘূর্ণিঝড় আশ্রয়কেন্দ্র, রসুলপুর আননেসা দাখিল মাদ্রসা বহুমুখী ঘূর্ণিঝড় আশ্রয়কেন্দ্র।
বন্যা প্রবন ও নতী ভাঙ্গন এলাকায় বন্যা আশ্রয়কেন্দ্র নির্মান প্রকল্পগুলো হলো, চাঁদপুর সদর উপজেলার হানারচর ইউনিয়নের হরিনা চালিতাতলী এডওয়ার্ড ইনষ্টি: বন্যা আশ্রয়কেন্দ্র, হাজীগঞ্জ উপজেলার ১ নং রাজারগাঁও ইউনিয়নের রাজারগাঁও উচ্চ বিদ্যালয় বন্যা আশ্রয়কেন্দ্র, ১২ নং দ্বাদশগ্রাম ইউনিয়নের কাপাইকাপ ইসলামিয়া সিনিয়র মাদ্রাসা বন্যা আশ্রয়কেন্দ্র, ৩ নং কালচৌ ইউনিয়নের প্যারাপুর উচ্চ বিদ্যালয় বন্যা আশ্রয়কেন্দ্র, একই ইউনিয়নের রামপুর উচ্চ বিদ্যালয় বন্যা আশ্রয়কেন্দ্র, শতলব উত্তর উপজেলার এখলাছপুর ইউনিয়নের এখলাছপুর উচ্চ বিদ্যালয় বন্যা আশ্রয়কেন্দ্র।
মুজিব কিল্লা নির্মান প্রকল্প হাইমচর উপজেলার ১ নং গাজীপুর ইউনিয়নের মনিপুর কুতুবপুর মুজিব কিল্লা।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *