চাঁদপুর লঞ্চঘাটে চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের অভিযান

এইচ.এম নিজাম :
যাত্রী হয়রানী বন্ধে ২৭ ডিসেম্বর’২০ বিকেল সাড়ে ৪টায় চাঁদপুর শহরের লঞ্চ ঘাটে অভিযান করেন অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট গোলাম মোহাম্মদ হাসান ও সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ কামাল হোসাইন।
অভিযানে লঞ্চঘাটে অবস্থানরত বোগদাদিয়া-৭ লঞ্চের মালিক পক্ষকে ডেকে সতর্ক করে দিয়ে বলেন, আপনারা যখন লঞ্চটি ঘাটে বিড়াবেন তখন আপনাদের লঞ্চের মাইকে বলে দিবেন, যাতে করে যাত্রীরা সুন্দরভাবে তাদের গন্তব্যে পৌঁছাতে পারে কেহ কোন প্রকার যাত্রীদেরকে নিয়ে টানাটানি না করে এবং কোন অবস্থাতেই যাত্রী হয়রানি করা যাবেনা। আরেকটি কথা হচ্ছে আপনারা লঞ্চের কেবিন ভাড়া দেয়ার সময় সতর্কতার সাথে ভাড়া দিবেন, বিশেষ করে তরুণ তরুণীদে ক্ষেত্রে তাদের পরিচয়পত্র ব্যতিত ভাড়া দিবেন না। কোন প্রকার অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটলে কিন্তু কাউকে ছাড় দেয়া হবে না। এসময় চাঁদপুর লঞ্চঘাট ইজারাদার মোঃ মালেক বেপারি কে সতর্ক করে দিয়ে বলেন, আর যেন কোন যাত্রী হয়রানীর চিত্র মিডিয়াতে না আসে, যদি এমনটা আমরা দ্বিতীয় বার দেখি তাহলে আপনাকে আটক করা হবে, কোন কুলির জামিন হবেনা। আপনার এখানে ১৮ জন কুলি আছে, আপনি প্রত্যেকের নিদৃষ্ট পোশাক দিবেন এবং পোশাকে তাদের নাম গেথে দিবেন।
এরপর লঞ্চঘাটে অবস্থানরত পরিবহন সিএনজি অটোরিকশা ও ইজি বাইকের ড্রাইভার ও মালিক পক্ষকে বলা হয় আপনারা যারা এখানে অবস্থান করবেন, প্রত্যেকে নিজেদের অবস্থান পরিষ্কার রাখবেন, কোন প্রকার যাত্রীদের হয়রানী বা টানাটানি করে গাড়িতে তুলবেননা। যাত্রীরা তাদের ইচ্ছে অনুযায়ী গাড়িতে উঠবে। এরপর পরিবহন মালিকদের নির্দেশ প্রদান করে বলেন, আমাদের এখানে ওসি সাহেব আছে, আপনারা সকল ড্রাইভারের ভোটার আইডি কার্ড ওনার বরাবরের জমা দিবেন। আর আপানারাও ড্রাইভারদের নিদৃষ্ট পোশাক নির্ধারণ করে আগামী ১০ জানুয়ারির মধ্যে নিশ্চিত করতে হবে এবং পোশাকে প্রত্যেক ড্রাইভারের নাম থাকবে। এসময় পরিবহন মালিক পক্ষ পোশাকের খরচের বিষয়ে বললে, অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট গোলাম মোঃ হাসান পরিবহন মালিকদের অনুরোধ করেন এক দিনের পরিবহন মালিক জমা মওকুফ করে সেই টাকায় পোশাক বানানোর জন্য এবং দর্জির কাছে যেতে হবেনা প্রয়োজনে দর্জি ঘাটে এসে বানিয়ে দেয়ার ব্যবস্থা করা হবে।
এসময় উপস্থিত ছিলেন চাঁদপুর মডেল থানার (ভারপ্রাপ্ত) কর্মকর্তা মোঃ নাসিম উদ্দিন, ওসি (তদন্ত) হারুনুর রশিদসহ মডেল থানার পুলিশ সদস্যবৃন্দ।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *