দুর্নীতি থাকলে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়া সম্ভব নয় : অধ্যক্ষ অসিত বরণ দাস

প্রেস বিজ্ঞপ্তি :
জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের প্রয়াণ দিবস ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে “বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন ও দুর্নীতিমুক্ত বাংলাদেশ” শ্লেগান নিয়ে গতকাল ১৫ আগস্ট ২০২১ সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক), চাঁদপুরের আয়োজনে অনুষ্ঠিত হলো ভার্চুয়াল আলোচনা সভা ও উপস্থিত বক্তব্য প্রতিযোগিতা। সনাক-চাঁদপুরের সভাপতি শাহানারা বেগমের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চাঁদপুর সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ অসিত বরণ দাস।
প্রধান অতিথি বলেন, আজকের আয়োজিত ওয়েবিনারে যে বিষয়টি নির্ধারণ করা হয়েছে “বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন ও দুর্নীতিমুক্ত বাংলাদেশ” যা অত্যন্ত সময়পযোগি এবং প্রাসঙ্গিক। তিনি আরও বলেন, বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন ছিলো একটি স্বাধীন, সার্বভৌম ও দুর্নীতিমুক্ত বাংলাদেশ। বঙ্গবন্ধু যেমনি ছিলেন একজন প্রাজ্ঞ তেমনি ছিলেন মেধাবী ও দুরদর্শি একজন নেতা। সোনার বাংলা বিনির্মানে একটি দুর্নীতিমুক্ত বাংলাদেশ চেয়েছিলেন বঙ্গবন্ধু। তিনি বলেন, যেখানে দুর্নীতি থাকবে সেখানে কখনই সোনার বাংলা গড়া সম্ভব নয়। বঙ্গবন্ধু একটি শোষনমুক্ত, দারিদ্রমুক্ত ও দুর্নীতিমুক্ত বাংলাদেশ গড়ার জন্য ২য় বিপ্লবের ডাক দিয়েছিলেন। বঙ্গবন্ধু সোনার বাংলা করতে চেয়েছিলেন কিন্তু তাকে তা করতে দেওয়া হয় নাই। তাই বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নকে বাস্তবায়ন করতে হলে আমাদেরকে শপথ নিতে হবে দুর্নীতিবাজদের বয়কট করতে হবে এবং তাদেরকে ঘৃণা করতে হবে। তিনি আরও বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও জননেত্রী শেখ হাসিনা যে ভিশন ও মিশন নিয়ে কাজ করছেন আমরা আশা করছি বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নকে বাস্তবায়নের জন্য দুর্নীতিমুক্ত একটি বাংলাদেশ বিনির্মান করতে পারবো। তিনি এমন একটি ভার্চুয়াল আলোচনা সভার আয়োজন করার জন্য সনাক-টিআইবিকে ধন্যবাদ জানান।
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে চাঁদপুর সরকারি মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ মাসুদুর রহমান বলেন, বঙ্গবন্ধুর জীবনের ৫৫ বছরের বেশিরভাগ সময়ে সাধারণ মানুষের অধিকার আদায়ে কাজ করে গেছেন। অধিকার আদায় করতে গিয়ে তাকে জেল জুলুমের মধ্যে দিন কাটাতে হয়েছিল। তিনি শুধু একজন জাতীয় নেতা ছিলেন না তিনি ছিলেন একজন আন্তর্জাতিক নেতা। তিনি চেয়েছিলেন ক্ষুধামুক্ত, দারিদ্রমুক্ত, দুর্নীতিমুক্ত একটি সোনার বাংলাদেশ। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীও দুর্নীতির বিরুদ্ধে সোচ্চার ভূমিকা পালন করছেন। তাই বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নকে বাস্তবায়ন করতে হলে দুর্নীতিমুক্ত একটি বাংলাদেশ গড়তে হবে।
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে পুরাণ বাজার ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ রতন কুমার মজুমদার বলেন, আগস্ট মাস বাঙালী জাতির জন্য একটি শোকাবহ মাস। বাঙালী জাতির সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ট পুরুষ ছিলেন জাতির জনক। শ্রদ্ধা ও ভালোবাসায় স্মরণ করি জাতির পিতা ও তার পরিবারকে। যার আবির্ভাব হয়েছিলো শুধু বাঙালী জাতির মুক্তির জন্য। স্বাধীনতার ম্বপ্নকে বাস্তবে রুপ দিয়েছেন এই মহান নেতা। তিনি বলেন, বাঙালী জাতির যেমন রয়েছে গৌরবের ইতিহাস তেমনি রয়েছে বেদনা বিভোর শোকের ইতিহাস। ঘাতকরা শুধু বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করেনি তারা হত্যা করেছে একটা দেশকে। বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে বাস্তবায়ন করতে হলে এবং একটি সোনার বাংলা গড়তে হলে প্রথমেই দুর্নীতিমুক্ত বাংলাদেশ গড়তে হবে। তাই দুর্নীতিমুক্ত বাংলাদেশ গড়তে হলে বঙ্গবন্ধুর নীতি আদর্শ ধরে রাখতে হবে।
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ সাজেদা পলিন বলেন, আমরা যখন স্কুলে পড়ি তখনও আমাদেরকে জাতির জনক সম্পর্কে সঠিক ইতিহাস জানানো হয়নি। কিন্তু আস্তে আস্তে যখন বুঝতে শিখেছি তখন বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে সঠিক ইতিহাস জানতে পেরেছি। সেই ইতিহাস জানার পর থেকে বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে মনের মধ্যে বঙ্গবন্ধুর একটি ছবি আঁকা হয়ে গেছে। তিনি আরও বলেন, বঙ্গবন্ধুর কথা শুনা মাত্রই মনের মধ্যে একটা অনুভূতি কাজ করে। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে বাস্তবায়ন করতে হলে আমাদেরকে দুর্নীতিমুক্ত একটি বাংলাদেশ গড়তে হবে।
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি ইকবাল হোসেন পাটওয়ারী বলেন, আজকে দিনটা বাঙালী জাতির জন্য একটা শোকাবহ দিন। তিনি ছিলেন একজন বিশ^বন্ধু। বঙ্গবন্ধু সোনার বাংলা তৈরিতে অনবদ্য একটা ভূমিকা রেখেছে। যা বাঙালী জাতি কখনই ভূলবে না। তিনি আরও বলেন, বঙ্গবন্ধুর যে আদর্শ ও নৈতিকতা ছিলো তা ধরে রাখতে হলে আমাদেরকে দুর্নীতির বিরুদ্ধে দাঁড়াতে হবে। তিনি এমন একটি ভার্চুয়াল আলোচনা সভা আয়োজন করার জন্য সনাক-টিআইবিকে ধন্যবাদ জানান।
স্বাগত বক্তব্যে সনাক-চাঁদপুরের সাবেক সভাপতি কাজী শাহাদাত বলেন, হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে আমরা স্বপরিবারে হারিয়েছি। পৃথিবীর ইতিহাসে এক নির্মম ঘটনা আর কোথাও ঘটেনি। বঙ্গবন্ধু সাধারণ মানুষকে দুনীতির বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর আহ্বান জানিয়েছিলেন। দুর্নীতিমুক্ত স্বদেশের স্বপ্ন পূরণে বঙ্গবন্ধু সামাজিক আন্দোলনের ডাক দিয়েছিলেন। আমরা আশা করছি আজকের এই আলোচনার মধ্য দিয়ে আমরা যারা দুর্নীতির বিরুদ্ধে কাজ করছি তারা একটি দিকনির্দেশনা খুঁজে পাবো। তিনি আলোচনা সভায় অংশগ্রহণ করার জন্য সবাইকে ধন্যবাদ জানান।
সনাকের সহ-সভাপতি ডাঃ পীযূষ কান্তি বড়ুয়ার সঞ্চালনায় মুক্ত আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন, সনাকের সাবেক সভাপতি অধ্যক্ষ মোঃ মোশারেফ হোসেন, সময় টেলিভিশন ও কালের কণ্ঠের স্টাফ রিপোর্টার ফারুক আহমেদ, দৈনিক চাঁদপুর খবরের সম্পাদক ও প্রকাশক সোহেল রুশদী, স্বজন সমন্বয়ক মনিরুজ্জামান বাবলু ও ইয়েস দলনেতা অনয় দেবনাথ।
সভাপতির বক্তব্যে সনাক সভাপতি শাহানারা বেগম বলেন, বঙ্গবন্ধুকে চেনার জন্য বঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চের ভাষনই যথেষ্ট। বঙ্গবন্ধুর মতো মানুষ যুগে যুগে জন্মগ্রহণে করেন না। বঙ্গবন্ধু বৈষম্যমুক্ত, দারিদ্রমুক্ত ও দুর্নীতিমুক্ত একটি বাংলাদেশ চেয়েছিলেন। সনাক-টিআইবি’র মুল লক্ষ্যই হলো দুর্নীতিমুক্ত বাংলাদেশ গড়ে তোলা। তিনি বলেন, দুর্নীতির বিরুদ্ধে বঙ্গবন্ধ বলেছেন “আজকে আমি বলবো বাংলার জনগণকে-এক নম্বর কাজ হবে, দুর্নীতিবাজদের বাংলার মাটি থেকে উৎখাত করতে হবে।” তাই আমরা যখনই দুর্নীতিমুক্ত বাংলাদেশ গড়তে পারবো তখনই বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নকে বাস্তবায়ন করতে পারবো। তিনি আলোচনা সভায় অংশগ্রহণ করার জন্য সবাইকে ধন্যবাদ জানান।
এছাড়াও দিবসটি উপলক্ষে সনাক-চাঁদপুরের ইয়েস ও ইয়েস ফ্রেন্ডস সদস্যদের মাঝে ‘‘বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বাস্তবায়নে দুর্নীতিমুক্ত বাংলাদেশ’’ শীর্ষক উপস্থিত বক্তব্য প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। প্রতিযোগিতায় ইয়েস ও ইয়েস ফ্রেন্ডস সদস্যগণ অংশগ্রহণ করে। প্রতিযোগিতায় বিচারক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সনাক সদস্য মোঃ আব্দুল মালেক, অ্যাড. পলাশ মজুমদার ও স্বজনের সহ-সমন্বয়ক মুহম্মদ ফরিদ হাসান। অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন, সনাক-চাঁদপুরের সদস্যবৃন্দ, সাংবাদিকবৃন্দ, সুশীল সমাজের নের্তৃবৃন্দ, শিক্ষক প্রতিনিধিবৃন্দ, সনাক-চাঁদপুরের স্বজন, ইয়েস ও ইয়েস ফ্রেন্ডস গ্রুপের সদস্যবৃন্দ। – প্রেস বিজ্ঞপ্তি

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.