নৌযান শ্রমকিদের কর্মবিরতি শুরু, ঢাকা-চাঁদপুর যাত্রীবাহী লঞ্চ চলাচল স্বাভাবিক থাকবে

ইব্রাহীম রনি :
বিভিন্ন দাবি আদায়ে সারাদেশে অনির্দিষ্টকালের জন্য শ্রমকিদের কর্মবিরতি শুরু হয়েছে। সোমবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে এ কর্মবিরতি শুরু হয়েছে। তবে নৌযান নৌযান শ্রমিকদের কর্মবিরতির মধ্যেও ঢাকা-চাঁদপুরসহ বিভিন্ন নৌরুটে যাত্রীবাহী লঞ্চ চলাচল করবে বলে জানিয়েছে নৌ-শ্রমিক অধিকার সংরক্ষণ ঐক্য পরিষদ। সোমবার রাতে এ তথ্য জানিয়েছেন বাংলাদেশ নৌযান শ্রমিক লীগের চাঁদপুর নৌ অঞ্চল শাখার সভাপতি বিপ্লব সরকার জানান।
তিনি বলেন, বাংলাদেশ লাইজারেজ শ্রমিক ইউনিয়ন, বাংলাদেশ নৌযান শ্রমিকলীগ, বাংলাদেশ নৌযান শ্রমিক ও কর্মচারী ইউনিয়ন, বাংলাদেশ কার্গো ট্রলার শ্রমিক ইউনিয়ন, বাংলাদেশ জাহাজী শ্রমিক ফেডারেশনসহ জাতীয় শ্রমিক লীগের অন্তর্ভূক্ত সংগঠনসহ অন্যান্য সংগঠন ঐক্যবদ্ধ হয়ে ১৫ দফা দাবিতে ধর্মঘট আহ্বান করা হয়েছে। আর ১১ দফা দাবি জানিয়েছে আরেকটি সংগঠন।
তিনি বলেন, সন্ধ্যা ৬টা থেকেই আমরা নৌযান শ্রমিকরা ধর্মঘট পালন করছি। যে জাহাজ যেখানে আছে তা সেখানেই নোঙন করে ফেলেছে। এ ধর্মঘটে মালবাহী কোন নৌযান চলাচল করবে না। তবে যাত্রীদের ভোগান্তির কথা চিন্তা করে যাত্রীবাহী লঞ্চ চলাচল বন্ধ করা হয়নি। তিনি জানান, লঞ্চ চলাচল করলেও লঞ্চের শ্রমিকরাও এই আন্দোলনের আওতাভূক্ত। এ আন্দোলনে অর্জিত সুবিধা তারাও পাবে।
তিনি জানান, চাঁদপুর থেকে দেশের বিভিন্ন রুটে চলাচল করে প্রায় ৩০টি লঞ্চ। ঢাকা-চাঁদপুর, নারায়ণগঞ্জ, বরিশাল, ভোলা, পটুয়াখালিসহ সারাদেশেই লঞ্চ চলাচল করবে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.