বুয়েটের নতুন উপাচার্য চাঁদপুর কলেজের প্রাক্তণ কৃতী ছাত্র সত্য প্রসাদ মজুমদার

নিজস্ব প্রতিবেদক :
চাঁদপুর কলেজের প্রাক্তণ ছাত্র বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বুয়েট) নতুন উপাচার্য হিসেবে অধ্যাপক সত্য প্রসাদ মজুমদারকে নিয়োগ দেয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের উপসচিব সৈয়দ আলী রেজা স্বাক্ষরিত এ সংক্রান্ত একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ বিভাগ তাকে নিয়োগ দিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে।
বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, বুয়েটের নতুন উপাচার্য হিসেবে অধ্যাপক সত্য প্রসাদ মজুমদারকে নিয়োগ দেয়া হয়েছে। তিনি বুয়েটের ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষক। শর্ত সাপেক্ষে তাকে চার বছরের জন্য নিয়োগ দেয়া হয়েছে।
এতে আরও বলা হয়েছে, উপাচার্য পদে তাকে বর্তমান বেতন-ভাতা সুবিধা প্রদান করা হবে। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে সার্বক্ষণিক ক্যাম্পাস সীমানায় অবস্থান করবেন। রাষ্ট্রপতি ও চ্যান্সেলর চাইলে যেকোনো সময় তার এ নিয়োগ বাতিল করতে পারেন। অবিলম্বে এ নির্দেশনা কার্যকর করতে বলা হয়েছে।
একজন সৎ, নীতিবান, অমায়িক মানুষকে ভিসি হিসেবে নিয়োগ দেয়ায় মাননীয় শিক্ষামন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন অনেকে।

বুয়েটের ভিসি হিসেবে নিয়োগ পাওয়ায় তাকে অভিনন্দন জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি এমপি, চাঁদপুর জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব ওচমান গনি পাটওয়ারী ও পুরাণবাজার ডিগ্রি কলেজ অধ্যক্ষ রতন কুমার মজুমদার।
সত্য প্রসাদ মজুমদারের জন্ম স্থান ফেনী দাগনভূঞার রামনগর গ্রামে ১৯৫৮ সালে। তিনি ১৯৬৫ সালে চাঁদপুর ডিএন উচ্চ বিদ্যালয়ে ভর্তি হন। সত্য প্রসাদ মজুমদার-এর বাবা মনোরঞ্জন মজুমদার, মা গায়ত্রী মজুমদার। বাবা ছিলেন চাঁদপুর ডিএন (দারকা নাথ) উচ্চ বিদ্যালয়ের গণিতের শিক্ষক। একজন আদর্শবান শিক্ষক বলতে যা বোঝায়। চাঁদপুর ডি এন হাই স্কুল থেকে তিনি ১৯৭৩সালে এস এস সি পাস করেন স্টার মার্কস নিয়ে। ক্লাশ ফাইভে এবং ক্লাশ এইটেও তিনি বৃত্তি পান। উচ্চ মাধ্যমিক পাস করেন চাঁদপুর সরকারি কলেজ থেকে প্রথম বিভাগে।
এরপর ভর্তি হন বুয়েটে। বুয়েট থেকে তিনি ১৯৮১ সালে পাশ করে বুয়েটেই শিক্ষক হিসেবে যোগদান করেন তড়িৎ ও ইলেকট্রিক প্রকৌশল বিভাগে। তিনি পিএইচ ডি করেন ভারতের খরপপুর থেকে।
মনোরঞ্জন মজুদারের ছোট ছেলে সত্য প্রসাদ মজুমদার। বড় ছেলে রাম প্রসাদ মজুমদার তিনিও ইঞ্জিনিয়ার। মেঝ ছেলে রমা প্রসাদ তিনিও ইঞ্জিনিয়ার। সেজো ছেলে শ্যামা প্রসাদ মজুমদার বুয়েট থেকে ইঞ্জিনিয়ারং পাস করেন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *