মতলব দক্ষিণ উপজেলায় বিপুল ভোটে বিজয়ী কবির আহমেদ

মতলব প্রতিনিধি :
মতলব দক্ষিণ উপজেলা পরিষদের নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কবির আহমেদ। নৌকা প্রতীকে তিনি ১ লাখ ৪ হাজার ৪শত ২৭ ভোট পান। নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল মনোনীত এমএ শুক্কুর পাটোয়ারী ধানের শীষ প্রতীকে পেয়েছেন ২ হাজার ৮শত ১০ ভোট।
মঙ্গলবার (২০ অক্টোবর) সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে সকাল ৯ টা থেকে বিকাল ৫ টা পর্যন্ত বিরতিহীন ভাবে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। ভোট শুরু এবং শেষ পর্যন্ত কোন ভোটকেন্দ্রেই অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি। উপজেলায় ৫৭ টি কেন্দ্রে ৪০০ টি বুথে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। ১ লাখ ৭৩ হাজার ১৮১ জন ভোটারের মধ্যে জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছেন।এ নির্বাচনে দুজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।
মঙ্গলবার সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৫ টা পর্যন্ত উপজেলার মতলব সরকারি ডিগ্রী কলেজ,ঢাকিরগাঁও সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়,বরদিয়া কাজী সুলতান আহম্মেদ উচ্চ বিদ্যালয়,মুন্সীরহাট উচ্চ বিদ্যালয়,মুন্সীরহাট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়,দগরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়,বোয়ালিয়া বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়,নাগদা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বহরী উচ্চ বিদ্যালয় ও ঘোড়াধারী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে সরেজমিন পর্যবেক্ষন করে দেখা গেছে, অধিকাংশ ভোট কেন্দ্রে সকাল সাড়ে ১০ টায় পুরুষ ভোটারদের উপস্থিতি বেশী, নারী ভোটারদের উপস্থিতি কম।দুপুরের পর নারী ভোটারদের উপস্থিতি কিছুটা বাড়তে থাকে।তবে আজকের নির্বাচনে নারী ভোটারের চেয়ে পুরুষ ভোটারের উপস্থিতি বেশী ছিল।উপরোক্ত কেন্দ্র ছাড়াও অন্যান্য কেন্দ্রের খোজ নিয়ে জানা যায়,সব কেন্দ্রে আওয়ামী লীগের নৌকার এজেন্ট থাকলেও ধানের শীষের কোন এজেন্ট ছিল না। এদিকে নির্বাচন সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে সম্পন্ন করার জন্য প্রত্যেকটি কেন্দ্রে বিপুল সংখ্যক আনসার,পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছিল। এছাড়া ্র্যাব, বিজিবি ও স্ট্রাইকিং ফোর্স টহলে ছিল।একজন নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্র্যাট পুরো নির্বাচনী এলাকা মনিটরিং করেন। উপজেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা মোজাম্মেল হক বলেন,নির্বাচন সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশ থাকায় ভোটাররা স্বতঃস্ফূর্তভাবে ভোট কেন্দ্রে গিয়ে তাদের নিজ নিজ ভোট প্রয়োগ করেছেন।৫৭ টি ভোট কেন্দ্রের মধ্যে সবগুলোতেই শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভেট গ্রহন হয়েছে। কোন কেন্দ্রই অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। এছাড়া কোন প্রার্থী ও প্রার্থীর পক্ষ থেকে অভিযোগ আসেনি।নির্বাচন সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন করতে সর্বাত্বক সহযোগিতা করায় প্রশাসনিক কর্মকর্তা, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী, জনপ্রতিনিধি, সাংবাদিকসহ সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানান রিটার্নিং অফিসার মোজাম্মেল হক।
নির্বাচনে মোট ভোটারের মধ্যে ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছেন ১ লাখ ৮ হাজার ১শত ২৭ জন। এর মধ্যে বৈধ ভোট ১ লাখ ৭ হাজার ২ শত ৩৭। নির্বাচনে ৬২.৪৪ শতাংশ ভোট পড়েছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.