মিয়ানমার থেকে গরু আমদানি বন্ধ

দেশের খামারিদের লোকসানের কথা চিন্তা করে মিয়ানমার থেকে গবাদিপশু আমদানি বন্ধ করে দিয়েছে সরকার। সোমবার (৫ জুলাই) সকাল থেকে সেখান থেকে কোনও গবাদিপশু আসেনি।

সোমবার বিকালে কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মোহাম্মদ পারভেজ চৌধুরী জানান, ‘দেশের খামারিদের কথা ভেবে সরকার মিয়ানমার থেকে পশু আমদানি বন্ধ করে দিয়েছে। এখন থেকে কোনও ভাবেই সেখান থেকে গরু-মহিষ আমদানি করা যাবে না। পরবর্তী নির্দেশনা না আসার পর্যন্ত, ওপার থেকে গবাদিপশু আসা বন্ধ থাকবে। কেউ এ নির্দেশ অমান্য করলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

টেকনাফ উপজেলার পশু আমদানিকারক সমিটির সাধারণ সম্পাদক আবু সৈয়দ বলেন, ‘সামনে ঈদুল আজহা। এমন সময় হঠাৎ মিয়ানমার থেকে গবাদিপশু আমদানি বন্ধের সিদ্ধান্তে ব্যবসায়ীদের শত কোটি টাকার লোকসান গুনতে হবে। কারণ মিয়ানমারের পশু ব্যবসায়ীদের শত শত কোটি টাকা দাদন দিয়েছেন ব্যবসায়ীরা।’

তিনি আরও বলেন, ‘কোরবানিকে সামনে রেখে সে দেশে অনেক পশু মজুত করা হয়েছে। ব্যবসায়ীদের লোকসানের কথা ভেবে পশু আমদানি সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের অনুরোধ করছি।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, সোমবার সকাল থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত মিয়ানমার থেকে গরু-মহিষ ভর্তি কোনও ট্রলার শাহপরীর দ্বীপ করিডোরে আসেনি। তবে সর্বশেষ জুলাই মাসের চার দিনে মিয়ানমার থেকে ৮৩টি গরু এসেছিল। গত মে ও জুন এ দু’মাসে মিয়ানমার থেকে ২৫ হাজার ৮৬৮টি গরু ও ৪ হাজার ২৫৮টি মহিষ আমদানি করা হয়েছে। আর আমদানি বাবদ এক কোটি ৫০ লাখ ৬৩ হাজার টাকা রাজস্ব আয় করেছে শুল্ক বিভাগ।

এ বিষয়ে টেকনাফ স্থলবন্দর শুল্ক কর্মকর্তা মো. আব্দুন নুর বলেন, ‘জেলা চোরাচালান নিরোধ টাস্কফোর্স কমিটির বৈঠকের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সোমবার থেকে মিয়ানমার থেকে গবাদিপশু আমদানি বন্ধ রয়েছে। এরপরও কেউ পশু আমদানি করলে চোরাচালান আইনে মামলা দেওয়া হবে। তবে ওই বৈঠকের আগে মিয়ানমার থেকে যেসব পশু আমদানি করা হয়েছে সেগুলো ছেড়ে দেওয়া হচ্ছে।’

ডেস্ক নিউজ

 

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *