সব উপজেলায় চাইল্ড সাইকোলজিস্ট নিয়োগ দেবে সরকার : শিক্ষামন্ত্রী

চাঁদপুর প্রতিদিন ডেস্ক :
শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, ‘শিক্ষা মন্ত্রণালয় দেশের প্রত্যেক উপজেলায় একজন করে চাইল্ড সাইকোলজিস্ট নিয়োগ দেওয়ার বিষয়ে চিন্তা করছে। যারা প্রত্যেক স্কুলে একজন শিক্ষক ও একজন শিক্ষিকাকে মানসিক সমস্যা বিষয়ে প্রশিক্ষণ দেবেন, যাতে শিক্ষকরা শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন মানসিক সমস্যা কাউন্সিলিংয়ের মাধ্যমে সমাধান করতে পারেন।’
গতকাল শনিবার সকালে সিআরআই এবং ইয়ং বাংলার আয়োজনে ‘লেটস টক অন ইয়ুথ এডুকেশন অ্যান্ড স্কিলস’ শীর্ষক এক অনলাইন আলোচনায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন তিনি।
আলোচনায় আরও যুক্ত ছিলেন- প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী ইমরান আহমদ, শিক্ষা মন্ত্রণালেয়র মাদ্রাসা ও কারিগরি শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. আমিনুল ইসলাম খানসহ অনেক তরুণ উদ্যোক্তা ও শিক্ষার্থী।
শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের শিশু-কিশোররা খুবই সংবেদনশীল। তাদের মনে প্রতিনিয়ত বিভিন্ন রকমের প্রশ্নের জন্ম নেয়। পরিবার, সমাজ ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে তারা বিভিন্নভাবে হয়রানিরও শিকার হয়। এজন্য তারা বিষণ্ণতা, হতাশাসহ বিভিন্ন রকমের মানসিক সমস্যায় ভোগে। ফলশ্রুতিতে অনেক সময় তারা আত্মহত্যার মতো পথও বেছে নেয়। বিশেষ করে কোভিড নাইনটিনের কারণে শিক্ষার্থীরা মানসিকভাবে বিপর্যস্ত। এসব বিবেচনায় নিয়ে চাইল্ড সাইকোলজিস্ট নিয়োগ দেওয়ার বিষয়ে চিন্তা করা হচ্ছে। প্রাথমিক পর্যায়ে প্রত্যেক জেলায় একজন এবং পরবর্তীতে প্রত্যেক উপজেলায় একজন করে চাইল্ড সাইকোলজিস্ট নিয়োগ করা হবে।’
তিনি আরও বলেন, ‘প্রতিবছর ২০ থেকে ২৬ লাখ তরুণ শ্রমবাজারে যুক্ত হচ্ছে। এ বিপুল সংখ্যক তরুণ চাহিদা অনুযায়ী দক্ষ হয়ে শ্রমবাজারে প্রবেশ করছে কি-না তা দেখার সময় এসেছে। আমাদের জাতীয় স্বপ্ন ২০৪১ সালের উন্নত ও সমৃদ্ধ বাংলাদেশ এবং আন্তর্জাতিক কমিটমেন্ট এসডিজি বাস্তবায়নে শিক্ষা মন্ত্রণালয় মানসম্মত ও দক্ষতা নির্ভর কারিগরি শিক্ষার ওপর সর্বাধিক গুরুত্ব দিচ্ছে। এজন্য কারিগরি শিক্ষার ওপর গুরুত্ব দেওয়ার লক্ষ্যে নবম ও দশম শ্রেণিতে প্রত্যেক শিক্ষার্থীর জন্য একটি করে ট্রেড কোর্স বাধ্যতামূলক করার পরিকল্পনা নেওয়া হচ্ছে।’
মন্ত্রী ইমরান আহমদ বলেন, ‘জাতীয় দক্ষতা উন্নয়ন কর্তৃপক্ষসহ দেশের প্রায় ১৮টি মন্ত্রণালয় ও সংস্থা দক্ষতা উন্নয়নে কাজ করে। এসব সংস্থার মধ্যে সমন্বয় খুব জরুরি। করোনাভাইরাস পরিস্থিতির কারণে গত বৃহস্পতিবার পর্যন্ত বিভিন্ন দেশ থেকে ১ লাখ ২ হাজার মানুষ ফেরত এসেছেন।’
তার মন্ত্রণালয় বিপুল সংখ্যক শ্রমিককে আবার প্রশিক্ষিত করে বিদেশে পাঠানোর দিকে নজর দিচ্ছে মন্তব্য করে মন্ত্রী বলেন, ‘আমরা ওনাদের প্রশিক্ষিত করে আবার বিদেশে পাঠাতে চাই। কারণ দেশে শর্টটার্মে অতো কর্মসংস্থান করতে পারছি না। যারা যারা রেডি হবে, তাদের প্রশিক্ষণ দিয়ে দ্রুত দেশের বাইরে পাঠাতে চাই।’

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *