সরকার সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির এক উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে : ধর্ম প্রতিমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক :
“সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি’র উন্নত বাংলাদেশ বিনির্মাণে মন্দিরভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রম” শীর্ষক জাতীয় সম্মেলন ২০২১ অনুষ্ঠিত হয়েছে। ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের আওতায় হিন্দুধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের এ অনুষ্ঠান জুম প্লাটফর্ম ব্যবহার করে সারা বাংলাদেশ থেকে বিভিন্ন পর্যায়ের এক হাজার একশত জন মানুষ অংশ নেয়। ১৭ জুন অনলাইন জুম প্লাটফম ‘মন্দিরভিত্তিক ভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রম- ৫ম পর্যায়’ শীর্ষক প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) শ্রী রঞ্জিত কুমার দাসের সভাপতিত্বে সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে যুক্ত হন ধর্ম প্রতিমন্ত্রী মো. ফরিদুল হক খান এমপি। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন হিন্দুধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান ও সংসদ সদস্য শ্রী নারায়ণ চন্দ্র চন্দ, সংসদ সদস্য শ্রী মনোরঞ্জন শীল গোপাল। আরও উপস্থিত ছিলেন ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব নুরুল ইসলাম পিএইচডি, হিন্দুধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের ভাইস চেয়ারম্যান শ্রী সুব্রত পাল, হিন্দুধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের সচিব ডা. শ্রী দিলীপ কুমার ঘোষ। এছাড়াও চাঁদপুর জেলা প্রশাসকের কার্যালয় থেকে অনলাইনে সম্মেলনে যুক্ত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) ইমতিয়াজ হোসেন, পুলিশ সুপার মো. মিলন মাহমুদ, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার সানজিদা শাহনাজ, ইউপি চেয়ারম্যান মো. আবুল খায়ের, সমাজসেবা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক রজত শুভ রায়। মন্দিরভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রম চাঁদপুর জেলা কার্যালয় হতে যুক্ত ছিলেন সহকারী প্রকল্প পরিচালক শ্রী মিন্টু কুমার ভদ্র, বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদের চাঁদপুর জেলা শাখার সাধারন সম্পাদক জেলা মনিটরিং কমিটির সদস্য রোটা. শ্রী তমাল কুমার ঘোষ, সহ-সভাপতি ও সমাজসেবক নরেন্দ্র নারায়ন চক্রবর্তী, সাংগঠনিক সম্পাদক রোটা. শ্রী গোপাল চন্দ্র সাহা, দৈনিক চাঁদপুর দর্পণ এর বার্তা সম্পাদক ও বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ মতলব উত্তর উপজেলা শাখার সাধারন সম্পাদক রোটা. শ্যামল চন্দ্র দাস। অনুষ্ঠানে আরও যুক্ত ছিলেন মশিগশির এফএস উত্তম চন্দ্র মহন্ত, সিও মো. নুরুদ্দিন, গোপাল জিউর আখড়া মন্দির কমিটির শ্রী চিররঞ্জন রায়, শিক্ষক সাথী রানী। এছাড়া অনুষ্ঠানে ফেসবুক লাইভে সারা বাংলাদেশের সকল শিক্ষকগণ যুক্ত ছিলেন। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি বলেন, প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকার সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির এক উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন। এই ধারা সমুন্নত রাখতে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় প্রতিটি মানুষকে এক সাথে উন্নত বাংলাদেশ বিনির্মাণে কাজ করে যেতে হবে। তিনি আরও বলেন, হিন্দুধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের মন্দিরভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রম প্রকল্পের ৫ম পর্যায় চলতি জুন মাসের ৩০ তারিখে শেষ হয়ে যাচ্ছে। হিন্দু সম্প্রদায়ের নিকট অত্যন্ত গ্রহনযোগ্য, গুরুত্বপূর্ণ এবং জনপ্রিয় এ প্রকল্পটির নতুন পর্যায় দ্রুত চালু করতে হবে। সনাতন ধর্মালম্বী কোমলমতি শিক্ষার্থীদেরকে ধর্মীয় ও নৈতিক শিক্ষায় উদ্বুদ্ধ করতে হবে। এছাড়াও সম্মেলনে উপস্থিত অতিথিবৃন্দ গুরুত্বপূর্ণ বক্তব্য রাখেন। এ সময় সারাদেশের প্রত্যেকটি জেলা প্রশাসনসহ মন্দিরভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রমের প্রতিনিধিবৃন্দ ভার্চুয়ালে অংশগ্রহন করেন।

 

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *