সাচার বাজারে এ কেমন লকডাউন?

কচুয়া প্রতিনিধি :
সরকার ঘোষিত লকডাউন বাস্তবায়নে কাজ করছে চাঁদপুরের কচুয়া উপজেলা প্রশাসন। শনিবার দুপুরে উপজেলার সাচার বাজারে লকডাউন নয় যেন ঈদের বাজার এমন চিত্র লক্ষ করা গেছে। দোকানিরা দোকান খুলে দেদারছে বিক্রি করছেন পন্য। এতে করে কোনো ধরনের স্বাস্থ্যবিধি না মেনে অবাধে চলাফেরা করছে সাধারন মানুষ। উপজেলা প্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনী প্রতিনিয়ত বাজার টহল দিলেও পূনরায় গাদাগাদি করে চলছে পন্য ক্রয় বিক্রয়। এতে করে করোনা ভাইরাসের সংক্রমন ঝুকিঁ বৃদ্ধি পাচ্ছে। লকডাউন শুরুর প্রথম দিনে কচুয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা দীপায়ণ দাস শুভ সাচার বাজারের কোটি টাকা দখল করে রাস্তার উপর অবৈধ ফল ব্যবসায়ী ও সরকারি তোয়া ঘরে ইচ্ছামতো দোকান তৈরি করে কাচাঁমাল ব্যবসায়ীদের করোনাকালীন লকডাউন সময়ে স্কুল মাঠে গিয়ে দোকান পরিচালনার নির্দেশ দেন। কিন্তু ওইদিন উপস্থিত ইউপি চেয়ারম্যান মনির হোসেন ও বাজার পরিচালনা কমিটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সালাউদ্দিন ভূঁইয়া হীরা ইউএনও ও ওসির উপস্থিতিতে সাংবাদিকদের এক দিনের মধ্যে কাচাঁমাল ব্যবসায়ী ও ফল ব্যবসায়ীরা স্কুল মাঠে চলে যাবে বলে প্রতিশ্রুতি দিলেও ৪দিনেও তা বাস্তবায়ন হয়নি।
এ ব্যাপারে সাচার পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মো. আনোয়ার হোসেন বলেন, প্রতি ঘন্টা ঘন্টায় বাজার ব্যবসায়ীদের তাগাদা দেয়ার পরও তারা কোনো সরকারি বিধি নিষেধ মানছে না। যার ব্যবসায়ীরা যার ইচ্ছামতো দোকান পাট খুলে বেচাবিক্রি করছে। তিনি আরো জানান, সরকারি রাস্তায় যানযট নিরসনে লিখিত অভিযোগ করেও কোনো অগ্রগতি হচ্ছে না। আমরা চাপ দিলে কিছু অসাধু ব্যবসায়ী আমাদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন মহলে অভিযোগ করে।
সাচার বাজার কমিটির সভাপতি সালাউদ্দিন ভূঁইয়া হীরা জানান, ব্যবসায়ীরা আমাদের কোনো কথা শুনছেন না। বিশেষ করে কাচাঁবাজার ও ফলব্যবসায়ীরা ইচ্ছামতো দোকান খুলে ঝামেলা সৃষ্টি করছে। আমরা বিষয়টি ইতিমদ্যে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *