সুমাইয়ার মেডিকেলে পড়ার স্বপ্ন পূরণ করলেন চাঁদপুরের জেলা প্রশাসক

ইব্রাহীম রনি :
মেডিকেলে পড়ার সুযোগ পেয়েও টাকার অভাবে ভর্তি অনিশ্চিত হয়ে পড়েছিল সুমাইয়া আক্তার রুপা নামের এক ছাত্রীর। তার বাড়ি চাঁদপুর সদর উপজেলার উত্তর মৈশাদি গ্রামে। বিষয়টি জানতে পেরে চাঁদপুরের জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ ওই মেধাবী ছাত্রীর পড়ালেখার জন্য দিয়েছেন আর্থিক সহায়তা। রবিবার দুপুরে তার ছাত্রীর হাতে তুলে দেন মেডিকেলে ভর্তির টাকা। এতে করে ওই শিক্ষার্থীর মেডিকেলে পড়ার স্বপ্ন পূরণ হতে যাচ্ছে।
মেধাবী ছাত্রী সুমাইয়া আক্তার রুপা জানান, আমার বাবা একজন ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী ছিলেন। কিন্তু হঠাৎ হার্টএ্যাটাক করায় তার চিকিৎসা খরচ, পরিবারের সদস্যদের ভরণ-পোষণ এবং আমার দুই ভাই-বোনের লেখাপড়ার খরচ চালানো খুব কষ্টকর হচ্ছে। আমার ভাই চাঁদপুর সরকারি কলেজে একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থী।
আমি ২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষে মেডিকেলে ভর্তি পরীক্ষায় জাতীয় মেধাক্রম ৫৩৪তম হয়ে শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিক্যাল কলেজে ভর্তি হওয়ার সুযোগ পাই। কিন্তু মেডিকেলে ভর্তি ও বই-পুস্তক কেনা এবং পরবর্তী খরচের জন্য পর্যাপ্ত টাকার জোগাড় দেয়া সম্ভব হচ্ছে না। তাই মেডিকেলে ভর্তি, বই-পুস্তক কেনা এবং পরবর্তী খরচের প্রয়োজনীয় অর্থ অনুদান দেয়া জন্য জেলা প্রশাসকের কাছে আবেদন জানাই।
চাঁদপুরের জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ জানান, মেধাবী ছাত্রী সুমাইয়া আক্তার রুপা সম্প্রতি এমবিবিএস কোর্সে ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিক্যাল কলেজে ভর্তি হওয়ার যোগ্যতা অর্জন করে। কিন্তু মেডিক্যালে ভর্তির জন্য প্রয়োজনীয় অর্থ না থাকায় তার ডাক্তার হওয়ার স্বপ্ন অনিশ্চিত হয়ে পরে। আবেদনপত্রের মাধ্যমে সাহায্য প্রার্থনা করায় বিষয়টি আমার নজরে আসলে তার জন্য কিছু করার চেষ্টা করি। আপাতত মেডিকেল ভর্তি হওয়ার জন্য যে টাকা প্রয়োজন হয় তা দিয়েছি। পরবর্তীতে সে পড়ালেখা করতে গিয়ে কোন সহযোগিতার প্রয়োজন হলে তা আমরা দেয়ার ব্যবস্থা করবো।

 

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *