সৌদির রাষ্ট্রদূত হিসেবে নিয়োগ পেলেন ড. জাবেদ পাটোয়ারী

নিজস্ব প্রতিবেদক :
চাঁদপুরের কৃতী সন্তান সাবেক পুলিশ মহাপরিদর্শক ড. মোহাম্মদ জাভেদ পাটোয়ারীকে সৌদি আরবে বাংলাদেশের পরবর্তী রাষ্ট্রদূত হিসেবে নিয়োগের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। সোমবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। তিনি বর্তমান রাষ্ট্রদূত গোলাম মসীহের স্থলাভিষিক্ত হবেন।
চাঁদপুর সদর উপজেলার শাহমাহমুদপুর ইউনিয়নে মান্দারী গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন জাবেদ পাটোয়ারী। তার বাবা আব্দুল হালিম পাটওয়ারী স্বাধীনতার আগে বিমানবাহিনীতে চাকরি করতেন। এ সুবাদে করাচিতে প্রাথমিকের পাঠ শেষ করেন জাবেদ পাটোয়ারী। এরপর তারা বাংলাদেশে ফিরলে জাবেদ পাটোয়ারী সদর উপজেলার বাবুরহাট উচ্চ বিদ্যালয়ে ভর্তি হন। এখান থেকে এসএসসি পাস করে চাঁদপুর সরকারি কলেজে ভর্তি হন তিনি। উচ্চ মাধ্যমিক পাসের পর তিনি ভর্তি হন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞানে।
১৯৮৬ সালে বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস বা বিসিএস পরীক্ষা দিয়ে পুলিশ ক্যাডার পান জাবেদ পাটওয়ারী। সহকারী পুলিশ সুপার হিসেবে তিনি পুলিশে যোগ দেন। এরপর নিজ কর্মদক্ষতায় পদোন্নতি পেয়ে পুলিশের স্পেশাল ব্রাঞ্চের অ্যাডিশনাল আইজিপি হন। চাকরি জীবনে তিনি পুলিশ সার্ভিসে সর্বোচ্চ পদে অধিষ্ঠিত হন। চলতি বছরের এপ্রিলে চাকরি থেকে অবসর গ্রহণের আগে দুই বছরেরও বেশি সময় ধরে তিনি পুলিশ মহাপরিদর্শক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।
তিনি যুক্তরাজ্যের লিসেস্টার বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অপরাধ বিচার ও পুলিশ ব্যবস্থাপনা বিষয়ে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি লাভ করেন। তিনি পিএইচডি ডিগ্রিও অর্জন করেন।
জাবেদ পাটোয়ারী জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের লোকপ্রশাসন বিভাগ থেকে পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেন। তার গবেষণার বিষয় ছিল, ‘বাংলাদেশের সন্ত্রাসবাদ মোকাবেলায় চ্যালেঞ্জ ও সম্ভাবনা’।
এছাড়া যুক্তরাষ্ট্রের ভার্জিনিয়া বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ‘অপরাধ বিচার শিক্ষা’ বিষয়ে সার্টিফিকেট অব অ্যাচিভমেন্ট অর্জন করেন। তিনি যুক্তরাজ্যের ব্রামশিলের পুলিশ স্টাফ কলেজ থেকে এবং যুক্তরাষ্ট্রের ভার্জিনিয়ার এফবিআই ন্যাশনাল একাডেমি থেকে উচ্চতর পেশাগত প্রশিক্ষণ গ্রহণ করেন। তিনি যুক্তরাষ্ট্রের হাবার্ট বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইউএস সাউথ এশিয়া লিডার এনগেজমেন্ট প্রোগ্রাম সম্পন্ন করেছেন।
তিনি ক্রোয়েশিয়া, সিয়েরা লিওন, কসোভো এবং সুদানের জাতিসংঘ মিশনে শান্তিরক্ষী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। নিবেদিত সেবার স্বীকৃতি হিসেবে তিনি যে সব মিশন পরিবেশন করেছেন সে বিষয়ে তাকে জাতিসংঘ পদক প্রদান করা হয়ে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *