হাইমচরে গৃহবধূর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

হাসান আল মামুন :
হাইমচর উপজেলার ২নং আলগী উত্তর ইউনিয়নের ছোটলক্ষীপুর গ্রামে গলায় ফাঁস লাগিয়ে গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। কেউ বলছেন বলছেন হত্যা, কেউ বলছেন আত্মহত্যা। তবে সঠিক তদন্তের মাধ্যমে রহস্য জানার অধির আগ্রহ এলাকাবাসীর। স্থানীয়দের মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়া বিরাজ করছে।
গতকাল ৩রা মার্চ মঙ্গলবার অনুমান বেলা ১১ টায় হাইমচর উপজেলাধীন ২নং আলগী উত্তর ইউনিয়নের ছোটলক্ষ্মীপুর গ্রামে আবদুর রহমান গাজী বাড়ীতে প্রবাসী আবদুল মান্নান গাজীর স্ত্রী নিশু বেগম (২১) গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছে। খবর পেয়ে হাইমচর থানা পুলিশ পরিদর্শক সুব্রত কুমার সরকার তাৎক্ষণিক ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন। ঘরের দরজা ভেঙে সিলিং ফ্যানে ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠায় হাইমচর থানা পুলিশ।
জানা যায়, দীর্ঘদিন পারিবারিক কলহ থাকায় ভিকটিম নিশুর শাশুড়ীর সাথে এক মূহুর্তের জন্যও মিল হতোনা তাদের। ঘটনার দিন সকালেও শাশুড়ির সাথে চুল ছেড়া জগড়া হয় নিশুর।
নিহত নিশু গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করার পর থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ধারনা করেছেন- শাশুড়ির সাথে ঝগড়া শেষে নিজের আত্মীয় স্বজন ও স্বামীর সাথে ফোনে কথা হয় তার। কারো কাছেই আশার বাণী না পেয়ে আত্মহত্যার পথ বেছে নেয় নিশু।
স্থানীয়রা জানান নিশু ও তার শাশুড়ীর মধ্যে প্রতিদিনই পারিবারিক কলহ লেগে থাকতো। নিশুর স্বামী মান্নান গাজীর প্রথম স্ত্রীও শাশুড়ীর অত্যাচারে তালাক নিয়ে বাবার বাড়ি চলে যেতে বাধ্য হয়। ২য় স্ত্রী নিশুও শাশুড়ীর অত্যাচার ও স্বামীর মানসিক টর্চারে এ আত্মহত্যার পথ বেছে নেয়।
হাইমচর থানা পুলিশ পরিদর্শক সুব্রত কুমার সরকার জানান- আত্মহত্যার সংবাদ শুনে আমরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে লাশ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করেছি। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট অনুযায়ী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *