হাইমচরে যুবককে হত্যাকাণ্ডের মূল হোতা রাজন-মহন পলাতক, গ্রেফতার ১

হাইমচর প্রতিনিধি :
হাইমচর উপজেলার বাংলাবাবাজার সংলগ্ম ভিঙ্গুলিয়ায় বখাটেদের হাতে নিহত মোবারক গাজি হত্যা মামলায় সলেমান জামাদার নামে একজনকে গ্রেফতার করেছে হাইমচর থানা পুলিশ। হত্যার মূল হোতা রাজন খাঁন ও মহন খাঁন পলাতক রয়েছেন। শনিবার বিকেল ৫টায় নিহত মোবারক এর লাশ ময়নাতদন্ত শেষে জানাজা নামাজের পর পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে।
সন্ত্রাসী হামলায় ছুরিকাঘাতে হত্যার প্রায় ২৪ ঘন্টা পাড় হয়ে গেলেও হত্যাকারিরা গ্রেফতার না হওয়ায় নিহতের পরিবার ও এলাকাবাসীর মাঝে ক্ষোভ দেখা দেয়। হত্যাকারিদের গ্রেফতারের দাবীতে স্থানীয় এলকাবাসীর উদ্যোগে নেয়া মানববন্ধন কর্মসূচি পুলিশের নির্দেশনায় (আইনসৃংখলা অবনতি হওয়ার আশংকায়) স্থগিত করেছে আয়োজকরা। অনাকাক্সিক্ষত পরিস্থিতি এড়াতে এলাকায় পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।
নিহত মোবারক গাজির পিতা গনি গাজি বাদী হয়ে গতকাল শনিবার হাইমচর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। যার মামলা নং ১০।
গত শুক্রবার সন্ধ্যায় স্থানীয় মিজান খান (বাবুর্চি)’র বখাটে পুত্র মহন খান ভিংগুলিয়া গ্রামের গনি গাজীর পুত্র মোবারক গাজী(২০) কে গলায় ছুরিকাঘাতে হত্যা করা হয়। হত্যার সময় মহন তার ভাই রাজন খান, সঙ্গী আলউদ্দিন জমাদার ও ছলেমান জমদ্দার এর সঙ্ঘবদ্ধ হামলায় নিহত মোবারকের বন্ধু মহিন ভুইয়া ও মহিন খান রক্তাত্ব জখম হয়েছে। আহতদের মধ্যে মহিন ভুইয়ার অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় তাকে ঢাকা মেডিকেলে নেয়া হয়েছে, মহিন খান চাঁদপুর সদর হাসপাতালে চিকৎসাধীন আছে।
গুরতর জখম মহিন ভুইয়ার পিতা উপজলা আওয়ামীলীগ অর্থবিষয়ক সম্পাদক শাহজান ভুইয়া জানান তার পুত্র মহিন ভুইয়া, তার বন্ধু, মহিন খান ও মোবারক গাজী সন্ধ্যায় বাংলাবাজারে আসার পথে হাফেজিয়া মাদরাসা এলাকায় পূর্বথেকে ওৎ পেতে থাকা মিজান খানের পুত্র রাজন খান(২৩) মহন খান(২১), কালু জমাদার এর পুত্র আলাউদ্দিন জমাদার(২৪) ও ছলেমান জমাদার(১৯) মহিন ভুইয়ার উপর হামলা চালায়। এসময় মোবারক গাজী এগিয়ে আসলে মহন খান ছুরি দিয়ে মোবারক গাজীর গলা কেটে দেয়। তাকে উদ্ধার এগিয়ে আসলে মহিন ভুইয়া ও মহিন খানকেও ছুরিকাঘাত করে হামলাকারীরা।
স্থানীয় ইউপি মেম্বার মিন্টু মিয়া কবিরাজ জানান, গত বৃহস্পতিবার বিকেলে ভিঙ্গুলিয়া দুলাল কবিরাজ এর দোকানে মিজান খান বাবুর্চি এর বখাটে পুত্র রাজন খান প্রকাশ্য সিগারেট পান করছিল, এসময় শাহজান ভুইয়ার পুত্র মহিন ভুইয়া মুরব্বীদের সামনে রাজন খানকে সিগারেট পান না করার জন্য বললে উভয়ে তর্ক-বিতর্কে জড়ালে স্থানীয়রা উভয়কে সরিয়ে দেয়, এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে শুক্রবার সন্ধ্যায় রাজন খান ও মহন সহ তার সাঙ্গ- পাঙ্গরা মহিন ভুইয়া এর উপর হামলা চালায়, হামলায় মোবারক নিহত হন, মহিন ভুইয়া, মহন খান সদর হাসপাতালে ও ঢাকা মেডিকেলে চিকিৎসাধীন আছেন।
স্থানীয় অহিদ গাজী জানান নিহত মোবারক একটা নিরীহ পরিবারের একমাত্র উপার্জন কারী। তার মৃত্যুত পরিবার অসহায় হয়ে পরলো, নিহত মোবারক এর পিতা গনী গাজী গুরুতর অসুস্থ্য হওয়ায় উপার্জনের আর কেউ রইল না। এলাকাবাসী হামলা কারী মহন, রাজন, আলাউদ্দিন, ছলেমানদের দ্রুত গ্রেফতার দাবী জানিয়েছে।
হাইমচর থানা অফিসার ইনচার্জ মাহবুবর রহমান মোল্লা জানান নিহতের বাবা গনি গাজি বাদী হয়ে হাইমচর থানায় একটি এজহার দায়ের করেন। এজহারটি মামলা রুজু করা হয়েছে। মামলায় হত্যার সাথে জড়িত সলেমান জমাদার নামে একজনকে আটক করা হয়েছে। অন্যান্যদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *