হাজীগঞ্জ উপজেলা উন্নয়ন সমন্বয় কমিটির শোক দিবস পালন

শাখাওয়াত হোসেন শামীম :
হাজীগঞ্জ উপজেলা উন্নয়ণ সমন্বায় কমিটির উদ্যোগে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৬ তম শাহাদাত বার্ষিকীর আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক, সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মেজর অব. রফিকুল ইসলাম বীরউত্তম এমপি বলেন, ৭৫ এর ১৫ আগষ্টে স্বাধীনতা বিরোধী চক্রের ঘাতকের গুলিতে শুধু বঙ্গবন্ধুকে ক্ষতবিক্ষত করেনি সমগ্র বাঙ্গালী জাতিকে ক্ষতবিক্ষত করেছিল সেদিন। সদ্য স্বাধীন দেশের মহান স্থপতিকে হত্যার মধ্য দিয়ে স্বাধীনতা বিরোধীরা রামরাজত্য কায়েম করেছিল।
ঘাতক খুনিরা সেদিন মনে করেছিল আওয়ামী লীগকে শেষ করে দিয়েছি, কিন্তু আল্লাহর রহমতে শেখ হাসিনা মতায় আসার কারনেই বাংলাদেশ আজ উন্নয়নের রোল মডেল এবং খুনি জিয়ার পরিবার দূর্নীতির কারণে দেউলিয়া।
তিনি বলেন, আজকে বঙ্গবন্ধুকন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ মধ্যম আয়ের দেশে উন্নীত, পৃথিবীতে সবচেয়ে বেশি ঘনবসতিপূর্ণ ও খাদ্য ঘাটতির দেশ আজ খাদ্যে উদ্বৃত্তের দেশ, মাথাপিছু আয়ে ভারতকেও ছাড়িয়ে, সামাজিক, অর্থনৈতিক, মানব উন্নয়ন সব সূচকে পাকিস্তানকে অনেক আগেই অতিক্রম করেছে, করোনার মধ্যেও আমাদের মাথাপিছু আয় বৃদ্ধি পেয়েছে, আওয়ামী লীগ সরকারের নেতৃত্বেই এ অর্জন সম্ভবপর হয়েছে।
চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের কোষাধ্যক্ষ ও হাজীগঞ্জ উপজেলা উন্নয়ন সমন্বয় কমিটির সমন্বয়ক রোটা. আহসান হাবিব অরুনের সভাপতিত্বে ও বাকিলা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান লিটনের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত শোক দিবসের আলোচনাসভায় বক্তব্য রাখেন পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব সৈয়দ আহমদ খসরু, জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান এবং হাজীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক হাজী জসিম, উপজেলা যুবলীগের সাবেক আহবায়ক জহিরুল ইসলাম মামুন, বড়কুল পশ্চিম ইউনিয় আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ইয়াছিন আরাফাত, কালচোঁ দক্ষিণ ইউনিয়ন উন্নয়ন সমন্বয় কমিটির সমন্বয়ক রোটা. এস এম মানিক, মহিলা নেত্রী মুক্তা, হাজীগঞ্জ পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি সোহেল বেপারী, সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাছান রাব্বি প্রমূখ।
এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন রাজারগাঁও ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব আবদুল হাদি, কালচোঁ উত্তর ইউপি চেয়ারম্যান মানিক হোসেন প্রধানীয়া, হাটিলা পূর্ব ইউপি চেয়ারম্যান মির্জা জলিলুর রহমান দুলাল,গন্ধর্ব্যপুর উত্তর ইউপি চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম মিলিটারী, গন্ধর্ব্যপুর দণি ইউপি চেয়ারম্যান গিয়াস উদ্দিন বাচ্চু, হাটিলা পশ্চিম ইউপি চেয়ারম্যান জাকির হোসেন লিটু, বড়কুল পশ্চিম ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. আবুল হাসেম, সাবেক যুব নেতা ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আলহাজ্ব আনোয়ার হোসেন, যুবলীগ নেতা মজিবুর রহমান, আবু ইউসুফ প্রধানীয়া সুমন, লোটাস দেলোয়ার, মুনছুর আহমেদ বিপ্লব’সহ প্রত্যেক ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকবৃন্দ, আওয়ামী লীগ, যুবলী. ছাত্রলীগ ও স্বেচ্ছাসেবকলীগের নেতৃবৃন্দ।
আলোচনা সভা শেষে দলের জাতিরজনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান ও তার পরিবারের সকল শহীদ এবং আওয়ামী লীগের প্রয়াত নেতা-কর্মী ও বিশ্ব উম্মাহার জন্য দোয়া চেয়ে বিশেষ মোনাজাত করেন হাজীগঞ্জ ঐতিহাসিক বড় মসজিদের পেশ ইমাম ও খতিব মুফতি আবদুর রউফ।

 

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.