হাজীগঞ্জ পৌর এলাকায় ঝুঁকিপূর্ণ বিদ্যুৎ খুঁটি, আতংকিত বাসিন্দারা

শাখাওয়াত হোসেন শামীম :
হাজীগঞ্জ পৌর এলাকায় ঝুঁকিপূর্ণ গাছের খুঁটিতে সঞ্চালিত লাইন হেলে পড়েছে। আর এতে করে স্থানীয় বাসিন্দাদের মাঝে দেখা দিয়েছে উদ্বিগ্নতা। পৌর এলাকায় বছরের পর বছর ধরে হেভি ওয়েট বিদ্যুতের ঝুঁকিপূর্ণ লাইন এভাবে পড়ে থাকলেও যেন কোন নজর নেই চাঁদপুর পল্লীবিদ্যুৎ সমিতি-১ কর্তৃপক্ষের।
সরেজমিনে দেখা যায়, পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ড ধেররা তালুকদার সুপার মার্কেটের ভিতরে চাঁদপুর পল্লীবিদ্যুৎ সমিতি-১ এর পুরানো কাঠের খুঁটি তারের ওজনে হেলে পড়েছে। মার্কেটের দোকানদার ও স্থানীয় বাসিন্দারা যে কোন সময় বড় ধরনের দূর্ঘটনার আশংখ্যা দাবি করছেন।
গত প্রায় দুই বছর পূর্বে বলাখাল নতুন বিদ্যুৎ সাব স্টেশন চালু হলে পুরানো এ খুঁটিতে নতুন করে আরো কয়েকটি লাইন যোগ হয়ে ৩৩ হাজার হাই ভোল্টে পরিনত হয়েছে । অথচ কর্তৃপক্ষের উদাসীনতায় সেই সময় পুরানো এ কাঠের খুঁটি পরিবর্তন করে পাথরের পিলার স্থাপন করলে আজ এতো বড় ঝুঁকিপূর্ণ দৃশ্য দেখতে হতো না স্থানীয়দের।
বর্তমানে ঝুঁকিপূর্ণ এ কাঠের পিলারের নিচে অবস্থানন করছেন, আ. করিম তালুকদার, সাবেক সেনা কর্মকর্তা ইসমাইল মোল্লা, বতু মিয়া, তালুকদার মার্কেটের দোকানদার রিপন বেপারী, জসিম উদ্দিন ও সেলিম সর্দার। তারা বলেন, আমরা বলাখাল সাব স্টেশন চালু করার সময় বার বার পল্লীবিদ্যুৎ এর কর্মরত লোকদের কাছে খুঁটি সংস্কারের জোর দাবি জানিয়েছি। তার পর চাঁদপুর পল্লীবিদ্যুৎ অফিসে কয়েক বার অবহিত করেও কোন সুরাহা পাইনি। এ খুঁটি যে কোন সময় হেলে পড়ে আমাদের জানমাল নিয়ে টান দিবে। আমরা চাঁদপুর পল্লীবিদ্যুৎ সমিতি-১ এর জেনারেল ম্যানেজারের সৃ-দৃষ্টি কামনা করছি।
এ বিষয়ে চাঁদপুর পল্লীবিদ্যুৎ সমিতির (জিএম) মো. কেফায়েত উল্লা বলেন, আমরা আসছে ডিসেম্বর মাস পর্যন্ত পুরাতন ঝুঁকিপূর্ণ বিদ্যুৎ খুঁটি সংস্কারের তালিকা করছি। তার পরেও স্থানীয়দের মাধ্যমে লিখিত অভিযোগ পেলে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহন করবো।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *