হাজীগঞ্জ পৌর নির্বাচন : মনোনয়ন দৌড়ে আ’লীগের ১৩ বিএনপির ৩ প্রার্থী

শাখাওয়াত হোসেন শামীম :
চাঁদপুরের হাজীগঞ্জে পৌরসভার নির্বাচনে আওয়ামী লীগ-বিএনপির মনোনয়ন দৌড়ে ১৭ প্রার্থী। আওয়ামী লীগের ১৪ জন প্রার্থী নৌকা প্রতীকে মনোনয়ন প্রত্যাশী ও বিএনপি ধানের শীষের প্রতীকে মনোনয়ন প্রত্যাশী ৩ জন।
চলতি সপ্তাহে জানা যাবে কে হচ্ছে হাজীগঞ্জ পৌরসভায় নৌকার মাঝি। নতুন মুখ নাকি পুরোনোই থাকছে তা নিয়ে আওয়ামী লীগের নেতা কর্মীদের মাঝে চলছে চুলচেড়া বিশ্লেষণ। স্ব-স্ব প্রার্থীর পক্ষে তার শুভাকাঙ্খীরা ফেইসবুকে নানানভাবে ছবি পোষ্ট করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম মাতিয়ে রাখছে। পাশাপাশি পৌষের প্রচন্দ শীতের রাতে ও চায়ে দোকানে চলছে জমজমাট আড্ডা। প্রার্থিদের কর্মী-সমর্থকদের মাঝে চলছে বাক যুদ্ধ। প্রতীক প্রাপ্তির পূর্ব পর্যন্ত এমন বাক বিতন্ডা চলতেই থাকবে বলে জানান কর্মী সমর্থকরা। তবে কর্মী সমর্থকদের একটাই কথা দলীয় প্রতীক যে পাবে তার পক্ষে কাজ করবে সবাই। হাজীগঞ্জ পৌরসভাটি মূলত আওয়ামী লীগ অধ্যুষিত এলাকা। এখানে বরাবরের মতো আওয়ামী লীগের ভোটই বেশি। পৌরসভায় এবারের নির্বাচনে মোট ভোটার ৪৫ হাজার ৩শ ৪৮ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ২২ হাজার ৯শ ৫৫ জন এবং নারী ভোটার ২২ হাজার ৩শ ৯৩ জন।
গত ৫ ডিসেম্বর হাজীগঞ্জ পৌর আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বর্ধিত সভায় মেয়র পদে নৌকা প্রতীকের জন্য ১২ প্রার্থী পাওয়া যায়। এর মধ্যে ৭জনের নাম প্রস্তাবের মাধ্যমে বাকী ৫জন স্ব-স্ব উদ্যোগে নৌকা প্রতীকের জন্য প্রার্থীতা ঘোষণা করে। মেয়র পদে যাদের নামে প্রস্তাব-সমর্থন করা হয় তারা হলেন, বর্তমান মেয়র ও পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি আ.স.ম মাহবুব-উল আলম লিপন, পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব সৈয়দ আহম্মদ খসরু, সাবেক উপজেলা ও পৌর চেয়ারম্যান আলহাজ্ব অধ্যাপক আবদুর রশিদ মজুমদার, জেলা আওয়ামী লীগের কোষাধ্যক্ষ ও পৌর আওয়ামী লীগের সদস্য রোটা. আহসান হাবিব অরুন, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক গোলাম ফারুক মুরাদ, জেলা আওয়ামী লীগ ও পৌর আওয়ামী লীগের সদস্য খালেদুর রব মিঠু এবং পৌর আওয়ামী লীগের সদস্য ও পৌর যুবলীগের আহবায়ক হায়দার পারভেজ সুজন।
এছাড়াও আওয়ামী লীগ থেকে নৌকা প্রতীকের মনোনয়ন প্রত্যাশী যারা নাম প্রস্তাবক ছাড়াই স্ব-স্ব উদ্যোগে ধারাবাহিকভাবে নিজ নিজ নামে প্রার্থীতা ঘোষণা দিয়েছেন তারা হলেন, পৌর মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ফেরদৌস আক্তার, সজিব ওয়াজেদ জয় পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি আলহাজ্ব আলী আশ্রাফ, জেলা মহিলা যুবলীগের সদস্য শিউলী আক্তার, পৌর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি জাকির হোসেন মোহন, অধ্যাপক মো. সেলিম। এ ছাড়াও পরবর্তীতে সাবেক ছাত্রলীগ নেতা আলহাজ্ব আবদুল মান্নান ও জাকির হোসেন নামে দু’জন মেয়র পদে নৌকা বিলবোর্ড ছাটিয়ে ভোটারদের মাঝে আলোড়ন সৃষ্টি করেছেন।
আওয়ামী লীগের ১৪জন প্রার্থী নৌকা প্রতীকে চাইলেও এ ক্ষেত্রে বিএনপিকে নিরবতা পালন করতে দেখা যায়। গত পৌর নির্বাচন আওয়ামী লীগ থেকে একক প্রার্থী বর্তমান মেয়র আ স ম মাহবুব-উল আলম থাকলেও বিএনপি ধানের শীষের প্রতীক পায় তৎকালিন মেয়র আবদুল মান্নান খান বাচ্চু। সেই নির্বাচনে বিএনপি সমর্থিত প্রার্থীর বাহিরে উপজেলা বিএনপি নেতা হেলাল উদ্দিন মজুমদার স্বতন্ত্র নির্বাচন করে। নির্বাচনে মেয়র পদে আ স ম মাহবুব-উল আলম লিপন নির্বাচিত হয়।
এবার বিএনপি থেকে এখনো একক প্রার্থী হিসেবে আবদুল মান্নান খান বাচ্চুর নাম শোনা গেলেও জেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক, প্রবীণ রাজনীতিবিদ হাজী ইমাম হোসেন, হেলাল উদ্দিন মজুমদারও বিএনপি থেকে ধানের শীষের প্রতীকে জোরালো ভাবে মনোনয়ন চাইবে বলে জানাযায়।
আগামী ৩০ জানুয়ারী-২০২১ হাজীগঞ্জ পৌরসভার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ১৪ ডিসেম্বর (সোমবার) বিকেলে নির্বাচন কমিশন এ তফসিল ঘোষণা করা হয়েছে।
তফসিল অনুযায়ী, তৃতীয় ধাপের নির্বাচনের মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ সময় ৩১ ডিসেম্বর। যাচাই-বাছাই ৩ জানুয়ারি। মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ১০ জানুয়ারি। ভোট গ্রহণের তারিখ ৩০ জানুয়ারি।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *