ইলিশ শুধু চাঁদপুরের সম্পদ নয়, সারাদেশের সম্পদ : সিনিয়র সচিব এনএম জিয়াউল আলম

ইলিশ সস্পদ যেন প্রধান অর্থকরী সস্পদ হয় সে ব্যাপারে কাজ করতে হবে : জেলা প্রশাসক
:নিজস্ব প্রতিবেদক :
চাঁদপুর জেলা ব্র্যান্ডিং পণ্য ইলিশ ই-কমার্সের মাধ্যমে বাজারজাতকরণের উদ্দেশ্যে অংশীজন কর্মশালা এবং ‘লাইভ ফ্রম ইলিশের বাড়ি’ শীর্ষক ক্যাম্পেইনের সূচনা সভা সম্পন্ন হয়েছে।


শনিবার (২৮ আগস্ট) ১১টায় চাঁদপুর জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে এ সভার আয়োজন করা হয়।
ভার্চ্যুয়ালি এ সভার প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, আইসিটি ডিভিশন এর সিনিয়র সচিব এনএম জিয়াউল আলম পিএএ। তিনি বলেন, ইলিশ শুধু চাঁদপুরের সম্পদ নয়, সারাদেশের সম্পদ। আজকের এই উদ্যোগের জন্যে সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ জানাই। তিনি বলেন, এই করোনা মহামারীতে এ ধরনের অনুষ্ঠান করা খুবই ভালো উদ্যোগ। সম্ভবত এসময়ে অন্য কোন জেলায় এধরণের আয়োজন হয়েছে কিনা আমার জানা নেই। শুনে ভালো লাগলো ইলিশের আচারও নাকি হয় এবং সেটি ইলিশের বাড়ি চাঁদপুরে। আসলে এটা একটা ব্যতিক্রমধর্মী। চাঁদপুরে দেখেছি ইলিশ নিয়ে উৎসব হয়, হয় মেলা। এ উৎসবে দেখেছি নানারকমের রান্না হয়। চাঁদপুরের এই ইলিশ নিয়ে আমি গর্বিত, কারণ চাঁদপুরের পাশেই আমার জন্ম। ইলিশ নিয়ে এসময়ের এ আয়োজন অনেক গুরুত্বপূর্ণ। চাঁদপুর শুধু ইলিশ নিয়েই নয় অনেক কার্যক্রম নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছি।
তিনি আরো বলেন, আমি ইলিশ ঠিকমত চিনতাম না মানে পদ্মার নাকি সমুদ্রের। তবে এধরণের প্লাটফর্ম থেকে আমি খুব সহজেই পদ্মা ও সাগরের ইলিশ চিহ্নিত করতে পারবো। তাই এখন ঠকে যাওয়ার কোন কারণ থাকবে না। তিনি বলেন, এখানের জেলা প্রশাসক অন্জনা খান মজলিশ ইলিশ ব্রান্ডিং তথা জেলা ব্র্যান্ডিং নিয়ে কাজ করছেন। তার আগে সাবেক জেলা প্রশাসক সবুর মন্ডলও বেশ কাজ করেছেন। আমি আশা করবো, জেলা ব্রান্ডিং বিষয়ে চমৎকার আরো কাজ হবে চাঁদপুরে।
সভাপতির বক্তব্য রাখেন চাঁদপুরের জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ। তিনি বলেন, এ প্লাটফর্মে সবসময়ই খেয়াল রাখতে হবে কেউ যেন প্রতারিত না হয়। আমরা চাই সারা বাংলাদেশ থেকে যারা চাঁদপুরের ইলিশ চায় তারা যেন তা পায়। চাঁদপুরে ইলিশ আছে তবে এর চাহিদা অনেক বেশি বেড়ে গেছে। চাঁদপুর বলতেই এখন মানুষ বুঝে ইলিশ। আমরা যদি সবাই মিলে চাই ইলিশ সস্পদকে রক্ষা করবো তাহলে এসম্পদকে রক্ষা করা সম্ভব। সবাইতো একরকম নয়, কেউ কেউ এ ইলিশ রক্ষায় অসহযোগিতা করে। এ সস্পদ যেন প্রধান অর্থকরী সস্পদ হয় সে ব্যাপারে কাজ করতে হবে। এসস্পদের মাধ্যমে বেকারত্বও দূর করা সম্ভব।
জেলা প্রশাসক আরো বলেন, ড্রেজারের বিষয় আমরা জিরো ট্রলারেন্সে আছি। পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী মহোদয় এসে শহররক্ষা বাঁধ পর্যবেক্ষণ করে বলেছেন ডুবোচরগুলো কেটে ফেলতে হবে। ব্যবসা সবাই করবে কিন্তু লাইসেন্সবিহীনভাবে কেন ব্যবসা করবে।
আগত উদ্যোক্তাদের উদ্দেশ্য করে জেলা প্রশাসক বলেন, ইলিশ ও পর্যটন মাথায় রেখে কাজ করে যান। এ ব্যাপারে যত সহযোগিতা দরকার আমরা করবো। আর আপনাদের কাজের ব্যাপারের বেশি বেশি প্রচার করতে হবে।
ভার্চ্যুয়ালী বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন এসপায়ার টু ইনোভেট (এটুআই) প্রোগ্রামের প্রকল্প পরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) ড. আব্দুল মান্নান পিএএ, যুগ্ম সচিব ও যুগ্ম পরিচালক ড. দেওয়ান মুহাম্মদ হুমায়ন কবির প্রমুখ।
চাঁদপুরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) ইমতিয়াজ হোসেন এর সঞ্চালনায় অতিথিদের মধ্যে ভার্চ্যুয়ালী বক্তব্য রাখেন, এসপায়ার টু ইনোভেট (এটুআই) প্রোগ্রামের ন্যাশনাল পোর্টাল ইমপ্লিমেন্টেশন স্পেশালিস্ট মো. দৌলতুজ্জামান খাঁন, ই কুরিয়ার এর প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা বিপ্লব ঘোষাল রাহুল, ই-কমার্স সহসভাপতি সাহাব উদ্দীন শিপন, ওমেন ইন ই-কমার্স ফোরামের এর সভাপতি নাছিমা আক্তার নিশা প্রমূখ।
উপস্থিত আমন্ত্রিত অতিথিদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, প্রেক্লাবের সভাপতি ইকবাল হোসেন পাটোয়ারী, চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি ও জেলা ব্রান্ডিং কমিটির সদস্য কাজী শাহাদাত, পুরানবাজার ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ রতন মজুমদার, , চাঁদপুর জেলা মৎস সমিতির সভাপতি মানিক জমাদার, সাধারণ সম্পাদক মো. সবেবরাত প্রমুখ।
জেলা প্রশাসনের জেলা ব্র্যান্ডিং কার্যক্রম নিয়ে ডকুমেন্টারি উপস্থাপন করেন চাঁদপুর জেলা প্রশাসনের এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট এনামুল হাসান ও জেলা ব্র্যান্ডিং পণ্যের ই-কমার্সের কার্যক্রম নিয়ে ডকুমেন্টারি উপস্থাপন করেন এটুআই এর ন্যাশনাল কনসালটেন্ট শাহারিয়ার হাসান।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *