চাঁদপুরের পুলিশ সুপার মিলন মাহমুদের সাফল্যের ১ বছর

চাঁদপুর প্রতিদিন রিপোর্ট :
চাঁদপুরের পুলিশ সুপার মোঃ মিলন মাহমুদ, বিপিএম-(বার), চাঁদপুর গত বছরের ১৮ মার্চ চাঁদপুর জেলায় যোগদান করেন। গত এক বছর চাঁদপুর জেলা পুলিশের আভ্যন্তরীণ উন্নয়ন ও জেলার সার্বিক আইন-শৃংখলা উন্নয়ন, অপরাধ দমন, অপরাধীদের আইনের আওতায় আনা, অবৈধ অস্ত্র ও মাদক দ্রব্য উদ্ধার, সাজা প্রাপ্ত আসামী ও ডাকাত গ্রেফতার, ক্লুলেস মামলা রহস্য উদঘাটন সহ সর্বসাধারণের সেবা প্রাপ্তিতে বিশেষ অবদান রাখেন। তার বলিষ্ঠ নেতৃত্বের ফলে চাঁদপুরের সার্বিক আইন-শৃংখলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে। বিগত বছরের তুলনায় অপরাধ প্রবণতা হ্রাস পেয়েছে ।
অবৈধ অস্ত্র ও মাদক উদ্ধারঃ বর্তমান আইজিপির মাদকের ক্ষেত্রে জিরো টলারেন্স নীতি অনুসারে চাঁদপুর জেলাকে শতভাগ মাদকমুক্ত করাকে তিনি চ্যালেঞ্জ হিসেবে গ্রহণ করেন। এ পর্যন্ত প্রায় ৬০ হাজার পিস ইয়াবা ট্যাবলেট, ২০০ কেজি গাঁজা, ২৫০০ বোতল ফেন্সিডিল, বিদেশীসহ বিভিন্ন প্রকারের প্রচুর মাদক দ্রব্য উদ্ধার করে। ৭৯৭ টি মামলায় মাদক দ্রব্য ক্রয় বিক্রয় ও সেবনের সাথে জড়িত এ পর্যন্ত ৮৮৭ জন ব্যক্তিকে গ্রেফতার পূর্বক বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করা হয়। এছাড়া, ফরিদগঞ্জ থানায় অবৈধ অস্ত্র মামলায় ০২ জনকে গ্রেফতার পূর্বক তাদের নিকট হতে ০২টি আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার করা হয়।
গ্রেফতারী পরোয়ানা ও সাজা পরোয়ানা তামিলঃ চাঁদপুর জেলায় বিগত ১ বছরে ৪,৬৪০টি গ্রেফতারি পরোয়ানা ও ৪৬২ বিভিন্ন মেয়াদে সাজা পরোয়ানা তামিল করে আসামীদের বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করা হয়।
ক্লুলেস মামলার রহস্য উদঘাটনঃ চাঁদপুর জেলার বিভিন্ন থানায় রুজুকৃত ক্লুলেস ৭টি খুন ও ৩টি ডাকাতি মামলা রুজু হয়। উক্ত মামলা গুলো পুলিশ সুপার, চাঁদপুর এর সঠিক দিক নির্দেশনায় এবং বলিষ্ঠ নেতৃত্বের কারণে অতি দ্রুত সময়ে মামলার রহস্য উম্মোচিত হয়।
সুষ্ঠ ও নিরপেক্ষ নির্বাচন সম্পন্নঃ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠ ও নিরপেক্ষ অংশগ্রহণমূলক ভাবে সমাপ্ত হয়। সাধারণ জনগণকে নিরপেক্ষ উৎসবমুখর নির্বাচন উপহার দেওয়া। পুলিশ সুপার, চাঁদপুর মহোদয়ের দূরদর্শী ও বলিষ্ঠ নেতৃত্বের কারণে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন কোন ধরণের অপ্রীতিকর ঘটনা ছাড়াই সম্পূর্ণ হয়। যা ইতিমধ্যে সংবাদপত্র ও অনলাইন নিউজে ব্যাপক সাড়া ফেলে। চাঁদপুরবাসীর কাছ থেকে ভূয়সী প্রশংসিত হয়েছেন পুলিশ সুপার, চাঁদপুর।
পুলিশ নিয়োগে শতভাগ স্বচ্ছতা নিশ্চিতঃ পুলিশ সুপার চাঁদপুর জেলায় যোগদানের পর থেকে এ পর্যন্ত ২ টি ট্রেইনি রিক্রুট কনস্টেবল (টিআরসি) নিয়োগ পেয়েছেন। এর মধ্যে শতভাগ স্বচ্ছতা ও মেধার ভিত্তিতে ট্রেইনি রিক্রুট কনস্টেবল (টিআরসি) ২০২১ নিয়োগ কার্যক্রম সম্পূর্ণ করেন পুলিশ সুপার, চাঁদপুর এবং টিআরসি নিয়োগ-২০২২ কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন। স্বচ্ছতার নিদর্শন স্বরূপ নিয়োগ প্রাপ্ত রিক্রুট প্রার্থীদের তালিকায় এতিম, রিক্সাচালক, অসহায় পরিবারের মেধাবি তরুণ ছেলে মেয়ে সহ যোগ্যতার ভিত্তিতে সকল প্রার্থী চাকরি পায়। যা ইতিমধ্যে চাঁদপুর জেলায় ব্যাপক সাড়া ফেলে, পুলিশ বাহিনীর এমন স্বচ্ছ নিয়োগে বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীর প্রতি প্রগাঢ় বিশ্বাস-আস্তা তৈরি হয়েছে সাধারণ জনগণের মনে। দালাল ও দূর্ণীতিমুক্ত নিয়োগ কার্যক্রম সম্পূর্ণ করায় চাঁদপুরবাসীর কাছ থেকে ভূয়সী প্রশংসিত হচ্ছেন পুলিশ সুপার, চাঁদপুর।
করোনাকালীন মানবিক সহায়তাঃ করোনাকালীন গণমানুষের জীবন যাত্রা যখন স্থবির হয়ে পড়েছে, হাজার হাজার মানুষ কর্মহীন হয়ে পড়েছে তখন পুলিশ সুপার, চাঁদপুর জেলায় প্রায় ৬,০০০ হাজার পরিবারের মধ্যে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেন। এছাড়াও প্রতিটি উপজেলায় অসংখ্য মাস্ক, স্যানিটাইজারসহ স্বাস্থ্য সামগ্রী বিনামূল্যে বিতরণ করেন।
সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় বিশেষ ভূমিকাঃ কুমিল্লা জেলার ১টি মন্দিরে পবিত্র কোরআন শরীফ পাওয়াকে কেন্দ্র করে সারাদেশে যখন সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা সৃষ্টি হওয়ার মত পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে তখন মাননীয় পুলিশ সুপার, চাঁদপুর এর বলিষ্ঠ নেতৃত্বে চাঁদপুর জেলার সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা নিয়ন্ত্রণ হয়েছে। নাগরিক সেবা প্রত্যাশীদের জন্য যে সকল পদক্ষেপ গ্রহন করেছেন।
(ক) প্রবাসী কল্যাণ হেল্প ডেক্স স্থাপনঃ পুলিশ সুপার নির্দেশক্রমে দেশের অর্থনৈতিক অন্তর্ভুক্তিতে বিশেষ অবদান রাখা চাঁদপুর জেলার প্রবাসীদের জন্য বিশেষ সেবা চালু করেছে জেলা পুলিশ, চাঁদপুর। পুলিশ সুপার কার্যালয়ে স্থাপন করা হয়েছে প্রবাসী কল্যাণ হেল্প ডেস্ক। প্রবাসীদের যে কোন ধরণের আইনি সহায়তা প্রদানের জন্য চাঁদপুর জেলায় প্রবাসী কল্যাণ হেল্প ডেস্ক চালু করা হলো। সেবা প্রদানের জন্য অফিসার পদায়ন করা হয়েছে। ২৪ ঘন্টা বিরতিহীন সেবা প্রদানের জন্য প্রবাসী কল্যাণ হেল্প ডেস্কের জন্য ০১ টি হটলাইন (০১৩২০-১১৫৯৭০) নাম্বার চালু করেন। চাঁদপুরের যে কোন প্রবাসী যে কোন সময় নিজের অথবা নিজের পরিবারের যে কোন সেবার জন্য এই নাম্বারে কল দিয়ে পুলিশিং সেবা নিতে পারবেন। এই হটলাইন নাম্বারে হোয়াটসঅ্যাপ ও ভাইবার অ্যাপ সমূহ রয়েছে।
(খ) ওয়ানস্টপ পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সেবাঃ অনলাইন পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সেবার মাধ্যমে বিদেশগামী যাত্রীদের দোরগোড়ে পুলিশ ক্লিয়ারেন্স পৌঁছে দিতে চাঁদপুর পুলিশ সুপার কার্যালয়ের নীচ তলায় একটি ডেক্স চালু করেন। বিদেশগামীগণ পুলিশ ক্লিয়ারেন্স পেতে দালাল সহ বিভিন্ন মাধ্যমে হয়রানিও বিলম্বতার স্বীকার হচ্ছেন। এ হয়রানি লাঘবের জন্য বিনামূল্যে অনলাইনে পুলিশ ক্লিয়ারেন্স আবেদন ফরম পূরণ, তদন্ত কার্যক্রম শেষে ০৩ দিনের মধ্যে পুলিশ ক্লিয়ারেন্স ডেলিভারীর বিষয়টি নিশ্চিত করছেন।
(গ) নারী ও শিশু হেল্প ডেক্স গতিশীল করাঃ নির্যাতিত নারী ও শিশুদেরকে আইনগত সহায়তা প্রদানের জন্য পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে আলাদা একটি নারী ও শিশু হেল্প ডেক্স স্থাপন করা হয়েছে। উক্ত নারী ও শিশু হেল্প ডেক্সে নারী অফিসার পদায়ন করে নির্যাতিত নারী ও শিশুদের আইনগত সহায়তা প্রদান করা হচ্ছে। (ঘ) বডি ওর্ন ক্যামরা ব্যবহারঃ গত ২৪ ফেব্রুয়ারি-২০২২ তারিখ মাননীয় পুলিশ সুপার, চাঁদপুর ট্রাফিক বিভাগ সহ অন্যান্য ইউনিটে কর্মরত ৩৬ পুলিশ সদস্যেদের বডিওর্ন ক্যামেরা ব্যবহার চালু করেন। যার মাধ্যমে মাঠ পর্যায়ে পুলিশ সদস্যদের কার্যক্রম নজরদারি করা হবে। পুলিশের কাজে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহি আনতে এ উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।
পুলিশের পেশাগত দক্ষতা উন্নয়নে বিভিন্ন পদক্ষেপঃ
(ক) দক্ষতা উন্নয়নে বিভিন্ন প্রশিক্ষণ প্রদানঃ পুলিশ সদস্যদের দক্ষতা উন্নয়নে চাঁদপুর প্রত্যেক পুলিশ সদস্যদের বাধ্যতামূলক দক্ষতা উন্নয়ন কোর্স চালু করা হয়েছে। বার্ষিক মাস্কেট্রি, কম্পিউটার প্রশিক্ষণ সহ বিভিন্ন কোর্স চালু করা হয়।
(খ) পুলিশের ডিজিটাল হাজিরা নিশ্চিতকরণঃ চাঁদপুর জেলা পুলিশের সকল সদস্যদের কর্মস্থলে উপস্থিত নিশ্চিত করতে একটি এ্যাপ্স চালু করেন। প্রত্যেক পুলিশ সদস্য প্রতিদিন ০৩ বেলা উক্ত এ্যাপস এর মাধ্যমে হাজিরা প্রদান করেন। উক্ত এ্যাপসের মাধ্যমে পুলিশ সদস্যের বর্তমান অবস্থান সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া যায়।
(গ) কোর্ট পুলিশ আধুনিকায়নঃ জেলা পুলিশের দক্ষতা উন্নয়নে ও পুলিশকে আধুনিকায়ন করতে সদর কোর্টে প্রতিটি ডেক্সে কম্পিউটার প্রদান করা হয়েছে। কোর্টের সকল তথ্য কম্পিউটারে সংরক্ষণ করা হয়। সাক্ষীদের ডিজিটাল হাজিরা নিশ্চিত করা হয়।
(ঘ) ক্রীড়া প্রতিযোগিতার আয়োজন এবং পুলিশ লাইন্স মেসের খাবার মাানসম্মত ও পরিকাঠামো উন্নয়নঃ চাঁদপুর জেলা পুলিশের মনোবল চাঙ্গা ও শারীরিক ফিটনেস ধরে রাখার লক্ষ্যে পুলিশ সুপার, চাঁদপুর মহোদয় পুলিশ লাইন্স, চাঁদপুর মাঠে আন্তঃ জেলা পুলিশ সুপার কাপ ক্রিকেট টুর্নামেন্ট-২০২২ অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন।স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে দাবা টুর্নামেন্ট ও আইজিপি কাপ কাবাডি খেলা সহ বিভিন্ন প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। পুলিশ সদস্যদের সুসাস্থ্যের কথা চিন্তা করে পুলিশ লাইন্স, চাঁদপুরের মেস উন্নত মানের খাবার নিশ্চিত করার উদ্যোগ গ্রহণ করেন। তিনি নিজেই স্ব-শরীরে পুলিশ মেসে উপস্থিত হয়ে খাবার মানসম্মত হয়েছে কিনা যাচাই বাচাই করে দেখেন এবং পুলিশ মেস এর পরিবেশ সৌন্দর্য্য বৃদ্ধি করে পুলিশ মেসের সাথে সংশ্লিষ্ট সকলকে পরিস্কার পরিচ্ছন্ন ও উন্নতমানের খাবার পরিবেশনের বিষয়ে নিয়মিত দিক নির্দেশনা প্রদান করেন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.