চাঁদপুরের সাবেক ডিসি-ইউএনও’র ২ জন সচিব ১ জন রাজউক চেয়ারম্যান হলেন

চাঁদপুর প্রতিদিন রিপোর্ট :
চাঁদপুরের ৩ সাবেক ডিসি- ইউএনওর মধ্যে ২ জন সচিব হলেন। একজন হলেন রাজউক চেয়ারম্যান। এদের মধ্যে চাঁদপুরের সাবেক জেলা প্রশাসক ও বর্তমান খুলনা বিভাগের বিভাগীয় কমিশনার মোঃ ইসমাইল হোসেন খাদ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব, হাজীগন্জের সাবেক উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বর্তমানে জনপ্রশাসন মন্ত্রনালয়ের অতিরিক্ত সচিব ( এপিডি) মোঃ আনিছুর রহমান মিঞাকে রাজউকের চেয়ারম্যান এবং চাঁদপুর সদর উপজেলার সাবেক উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বর্তমানে জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মোঃ জাহাঙ্গীর আলম সমাজসেবা মন্ত্রণালয়ের সচিব হিসাবে পদোন্নতি পেয়েছেন। এঁরা ৩ জনই ১১ তম বিসিএস এর কর্মকর্তা।
মোঃ জাহাঙ্গীর আলম, ওয়ান ইলাভেন এর পুরো সময়কার থেকে ২০০৯ সালের ফেব্রæয়ারি মাস পর্যন্ত সদর উপজেলায় অত্যন্ত নিষ্ঠার সাথে নির্বাহী কর্মকর্তা হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন। চাঁদপুর থেকে যাওয়ার পর তিনি উপসচিব হিসবে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সহকারী একান্ত সচিব, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের যুগ্মসচিব, অতিরিক্ত সচিব জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়সহ গুরুত্বপূর্ণ আরো পদে অধিষ্ঠিত হন।
মোঃ ইসমাইল হোসেন একসময় চাঁদপুরের হাজিঞ্জের সহকারি কমিশনার ভূমি এবং ২০১২ সাল থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত চাঁদপুরের জেলা প্রশাসকের দায়িত্ব পালন করেন। জনাব ইসমাইল চাঁদপুর থেকে যাওয়ার পর ত্রাণ ও দুর্যোগ মন্ত্রণালয়, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে উপসচিব, যুগ্মসচিব এবং অতিরিক্ত সচিব হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন। ২০২০ সালের শেষের দিকে তিনি খুলনা বিভাগীয় কমিশনার হিসাবে যোগদান করেন।
আনিছুর রহমান মিঞা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগের প্রথম সরকার গঠন আমলের ( ১৯৯৬ – ২০০১) শেষ ক ‘বছর চাঁদপুরের প্রথম শ্রেনির ম্যাজিষ্ট্রেট হিসাবে এবং পরে হাজিগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন। এছাড়াও আনিছুর রহমান মিঞা মুন্সিগঞ্জের একটি উপজেলায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, টাঙ্গাইল ও নারায়ণগঞ্জের জেলা প্রশাসক হিসাবেও সুনামের সাথে দায়িত্ব পালন করেন। নারায়নগঞ্জের আলোচিত খুনের পরপরই তাঁকে টাঙ্গাইল জেলা প্রশাসকের পদ থেকে বদলি করে নারায়নগঞ্জের জেলা প্রশাসক হিসাবে বদলি করে আনা হয়। ২ জেলাতেই তিনি সুনামের সাথে দায়িত্ব পালন করেন। সবশেষ তিনি জনপ্রশাসন মন্ত্রনালয়ে অতিরিক্ত সচিব হিসাবে দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন।
জানা গেছে, খুব শীঘ্রই সরকার পূর্ণ সচিবের পদোন্নতি দেবেন। তিনি জনপ্রশাসন বিভাগে থেকে অত্যন্ত দক্ষতার সাথে দায়িত্ব পালন করে আসছেন।
সবমিলিয়ে এ ৩ শীর্ষ কর্মকর্তা তাদের একসময়ের কর্মস্থল চাঁদপুরে অত্যন্ত সুনামের সাথে কাজ করে গেছেন। যার ফলে বৃহস্পতিবার তাদের পদোন্নতির খবরে চাঁদপুরবাসী বেশ আনন্দ প্রকাশ করছে। তাঁদের উত্তর সাফল্য কামনা করেছে, শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছে। আর ৩ জনের পদোন্নতির বিষয়টি একই দিনে হওয়ায় আলোড়ন সৃষ্টি হয়েছে পুরো চাঁদপুর জুড়ে।
চাঁদপুরের জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ এ তিনজন সহ যে ক’ জন উর্ধবতন কর্মকর্তা পদোন্নতি পেয়েছেন তাঁদের সবাইকে চাঁদপুর জেলা ও উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন।
পদোন্নতিপ্রাপ্ত সচিব মো. জাহাঙ্গীর আলম চাদপুরবাসীকে শুভেচ্ছা জানান এবং তার দোয়া কামনা করেন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.