চাঁদপুরের ১০ ইউপি নির্বাচন : আ.লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশীদের নাম যাচ্ছে কেন্দ্রে

ইব্রাহীম রনি :
আগামী ১১ নভেম্বর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে চাঁদপুর সদর উপজেলার ১০টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের একক প্রার্থী নির্ধারণের প্রক্রিয়া চলছে। ইতোমধ্যে তৃণমূল থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের নামের তালিকা চেয়েছে কেন্দ্র। এরই প্রেক্ষিতে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের নামের তালিকা প্রস্তুত করছে জেলা আওয়ামী লীগ। সোমবার চাঁদপুর সদরের তিনটি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভার মধ্য দিয়ে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের তালিকা করা হয়েছে। বাকী ৭টি ইউনিয়নে ৫ অক্টোবর মঙ্গলবার সভা হবে। এর মধ্য দিয়ে ৬ অক্টোবরের মধ্যে তালিকা তৈরির কাজ সম্পন্ন করবে সদর উপজেলা আওয়ামী লীগ। মনোনয়ন প্রত্যাশীদের এ তালিকা আগামী ৭ অক্টোবরের মধ্যেই কেন্দ্রে পাঠানো হবে বলে জানিয়েছেন জেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক আবু নঈম পাটওয়ারী দুলাল।
ইউনিয়নগুলো হলো : বিষ্ণুপুর, আশিকাটি, শাহ মাহমুদপুর, রামপুর, মৈশাদী, তরপুরচন্ডী, বাগাদী, হানারচর, চান্দ্রা, বালিয়া।
চাঁদপুর সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আইয়ুব আলী বেপারী বলেন, চট্টগ্রাম বিভাগীয় সাংগঠনিক দায়িত্ব প্রাপ্ত বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ ভাই আমাদেরকে এ বিষয়ে দিক নির্দেশনা দিয়ে গেছেন। সেই নির্দেশনা অনুযায়ী আমাদের এখানে দলীয় প্রার্থী নির্ধারণে কোন ভোট নেই। তবে আমাদের প্রতিটি ইউনিয়নে বর্ধিত সভা হবে। ওই সভায় জেলা আওয়ামী লীগ, উপজেলা আওয়ামী লীগ, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ নেতৃবৃন্দের উপস্থিত থাকবেন। তাদের উপস্থিতিতে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের নাম প্রস্তাবকারী, সমর্থনকারী দু’জনের নাম-পদবী এবং যার নাম প্রস্তাব করা হবে তার নাম-পদবীসহ আমরা নিয়ে আসবো। সেখানে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের মন্তব্য থাকবে। ওই মন্তব্যে মনোনয়ন প্রত্যাশীরা কে কোন পদে আছেন, কত দিন ধরে দল করছেন এ বিষয়টি থাকবে। এভাবে আমরা সোমবার ৩টি ইউনিয়নে বর্ধিত সভা করে তালিকা তৈরির কাজ করেছি। মঙ্গলবার ৭টি ইউনিয়ন করা হবে। পরে উপজেলা ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক মন্তব্য করবেন। এরপর জেলা আওয়ামী লীগ তা কেন্দ্রে পাঠাবে। আমরা তালিকা ৬ তারিখের মধ্যেই জেলা আওয়ামী লীগের কাছে জমা দিবো।
তিনি বলেন, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ থেকে যদি দল বা সহযোগী সংগঠনের পদপদবী ছাড়া কারো নাম প্রস্তাব করা হয় সেক্ষেত্রে আমরা আমলে নিবো। কিন্তু মন্তব্যের কলামে আমরা উল্লেখ করে দিবো, ওই ব্যক্তি আমাদের দলের সাথে জড়িত না। হাউজ থেকে তার পক্ষে নাম প্রস্তাব করা হয়েছে।
এ বিষয়ে জেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক আবু নঈম পাটওয়ারী দুলাল বলেন, কেন্দ্রের নির্দেশনা অনুযায়ী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দলীয় মনোয়ন প্রত্যাশীদের নামের তালিকা আমরা প্রস্তুত করছি। আগামী ৬ অক্টোবরের মধ্যে পাঠানোর কথা রয়েছে। তবে আমাদের তৃণমূল প্রতিনিধি সভা ও বর্ধিত সভা নিয়ে নেতাকর্মীদের ব্যস্ততা থাকায় এ তালিকা আমরা ৭ অক্টোবর পাঠাবো।
তিনি বলেন, মনোয়ন প্রত্যাশীরা ইতোমধ্যেই ঢাকা থেকে দলীয় মনোনয়ন ফরম ক্রয় করা শুরু করেছেন।
জানা গেছে, প্রতিটি ইউনিয়নে বহু সংখ্যক ক্ষমতাসীন দলের মনোনয়ন পেতে জোর তদ্বির-লবিং শুরু করেছেন। সম্ভাব্য প্রার্থীরা নিজ নিজ এলাকায় গণসংযোগ করে ভোটারদের কাছে দোয়া চেয়ে দলীয় মনোনয়ন কিনতে এখন ঢাকায় অবস্থান করছেন।
দলীয় নেতাকর্মীরা জানান, ইউপি চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন চাইছেন আওয়ামী লীগ থেকে শুরু করে ছাত্রলীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগসহ দলের সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা। কেউ কেউ বিগত দিনে অন্য দলের হয়ে কাজ করলেও গত কয়েক বছর ধরে আওয়ামী লীগে ভিড়ে এখন মনোনয়ন চাইছেন। যদিও আওয়ামী লীগ থেকে বলা হয়েছে, দলীয় মনোনয়ন দেয়ার ক্ষেত্রে ত্যাগী নেতাদেরই প্রধান্য দেয়া হবে। হঠাৎ করে দলে ভেড়া এমন কোন লোক এ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোয়ন পাবে না বলে জানিয়েছেন দলের নেতারা।
এদিকে আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে জনগণের কাছে গ্রহণযোগ্য ব্যাক্তির নাম পাঠানোর আহবান জানিয়েছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। সোমবার তিনি বলেন, টাকা খেয়ে খারাপ লোকের নাম কেন্দ্রে পাঠাবেন না। জনগণের কাছে গ্রহণযোগ্য ব্যাক্তির নাম পাঠাবেন।
তিনি বলেন, খারাপ মানুষ দিয়ে রাজনীতি করলে দল নষ্ট হয়ে যাবে। দুঃসময়ে বসন্তের কোকিলরা দলে থাকবে না, ত্যাগীরাই সুখে-দুঃখে দলের পাশে থাকবে।
উল্লেখ্য, চাঁদপুর সদর উপজেলার ১৪টি ইউনিয়ন পরিষদের মধ্যে ১০টি ইউপির নির্বাচন হবে আগামী ১১ নভেম্বর। এর আগে নির্বাচন কমিশনের কমিশন বৈঠক শেষে সচিব মো. হুমায়ুন কবীর খোন্দকার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেন। এ ধাপে সদরের রাজরাজেশ্বর, ইব্রাহীমপুর, কল্যাণপুর ইউনিয়নে নির্বাচন হচ্ছে না। ইতোমধ্যে নির্বাচন হয়েছে লক্ষ্মীপুর ইউনিয়নের।
ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, দ্বিতীয় ধাপের ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনের মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ তারিখ ১৭ অক্টোবর, মনোনয়নপত্র বাছাই ২০ অক্টোবর, বাছাইয়ের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আপিল ২১ থেকে ২৩ অক্টোবর, আপিল নিষ্পত্তি ২৪ ও ২৫ অক্টোবর, প্রার্থিতা প্রত্যাহার ২৬ অক্টোবর, প্রতীক বরাদ্দ ২৭ অক্টোবর এবং ভোট গ্রহণ ১১ নভেম্বর।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *