চাঁদপুরে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স সপ্তাহের উদ্বোধন

সুরক্ষা সেবা বিভাগের একটি সুশৃঙ্খল বাহিনী হলো ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স : জেলা প্রসাসক অঞ্জনা খান মজলিশ
: আশিক বিন রহিম :
‘মুজিব বর্ষে শপথ করি, দুর্যোগে জীবন-সম্পদ রক্ষা করি’ এ স্লোগানকে ধারণ করে চাঁদপুরে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স সপ্তাহের উদ্বোধন করা হয়েছে। এ উপলক্ষ্যে ৪ নভেম্বর বৃহস্পতিবার সকালে চাঁদপুর ফায়ার সার্ভিস কার্যালয় প্রাঙ্গনে বিশেষ মহড়ার আয়োজন করা হয়। প্রধান অতিথি হিসেবে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন, জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মসজিলশ।
চাঁদপুর ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের উপ- সহকারী পরিচালক সাহিদুল ইসলামের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, চাঁদপুর পৌরসভার মেয়র অ্যাড. জিল্লুর রহমান জুয়েল, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মঈনুল ইসলাম, চাঁদপুর প্রেসক্লাকের সভাপতি ইকবাল হোসেন পাটওয়ারী।
জেলা প্রশাসক তার বক্তব্যে বলেন, সুরক্ষা সেবা বিভাগের একটি সুশৃঙ্খল বাহিনী হচ্ছে ফায়ার সার্ভিস। যে কোন দুর্ঘটনায় ফায়ার সার্ভিস সবার আগে সাহস ও বীরত্বের সাথে ছুটে যায়। যে কোন দুর্যোগ দুর্ঘটনায়য় আমরা ফায়ারসার্ভিস কে সবার আগে স্মরণ করি। তাদের প্রতি মানুষের যে আশা, ভরসা এবং আস্থা। বিভিন্ন দুর্যোগে তারা সাহসীকতার সাথে দায়িত্ব পালন করে মানুষের সে আস্থা অর্জন করতে পেরেছেন। ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা বিভিন্ন দুর্ঘটনায় জীবন বাজি রেখে কাজ করেছে। অনেককে কাজ করতে গিয়ে জীবনও ত্যাগ করেছেন। তাই বাঙালি জাতি আপনাদের কর্মকে শ্রদ্ধা জানায়। আমরা আপনাদের কাছে কৃতজ্ঞ।
তিনি বলেন, যে কোন কাজে প্লানিং ঠিক না থাকলে কাজ সফল হয় না। তেমনি সরঞ্জাম সঙ্কট থাকলে তার জন্য কাজে ব্যাঘাত ঘটবেই। তবে বর্তমান সরকার ক্ষমতায় আসার পর অনেক উন্নত প্রযুক্তি যুক্ত করেছে। চাঁদপুরে যদি কোন সরঞ্জাম সঙ্কট থাকে তবে আমাদেরকে জানালে আমরা তা সুরক্ষা বিভাগ থেকে ব্যবস্থা করে দিবো। পাশাপাশি মানুষ যদি সচেতন হয়, তবে যেকোন দুর্ঘটনা এড়ানো সম্ভব।
তিনি আরো বলেন, মানুষের সাথে পাল্লা দিয়ে যানবাহন বেড়েছে। অবৈধ যানবাহন বন্ধ করতে হবে। যেসব রেজিস্ট্রেশনবিহীন যানবাহন রয়েছে সে গুলোকে বন্ধ করতে হবে। দেখা গেছে যে যেসব যানবাহনগুলো অভিযানে আটক হয় তার জন্য আমাদের কাছে অনেক তদবির আসে। আভিযান দিলে কেউ যাতে ততবির না করে। আপনারা সহযোগীতা করলে কাজটা সহজ হবে। একই সাথে রাস্তা প্রসস্ত করা প্রয়োজন। তবেই শহরের যানজট নিরসন সহজ হবে।
বিল্ডিং কোর্ড মানতে হবে। রাস্তা চলাচল ঠিক রেখে বিল্ডিং করতে হবে। যেকোনো ভবন নির্মাণ করতে নিয়ম-নীতি মেনে করতে হবে। যেখানে যেভাবে অগ্নিনির্বাপণ করতে সহজ হবে সেভাবেই সুপরিকল্পিত ভাবে বাড়ি ঘর নির্মাণ করতে হবে।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, চাঁদপুর ফায়ারসার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের সিনিয়র স্টেশন অফিসার রবিউল আল- আলামিনের পরিচালনায় আরো বক্তব্য রাখেন, চাঁদপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ আব্দুর রশিদ, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন অতিদপ্তরের উপ-সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ দিদারুল আলম, চাঁদপুর নৌ-থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মুজাহিদুল ইসলাম প্রমুখ।
অনুষ্ঠানে অগ্নিনির্বাপনের বিভিন্ন মহড়া প্রদান করেন ফায়ার সার্ভিস কর্মিরা।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *