জনগণের সেবক হিসাবে মন দিয়ে তাদের সেবা করতে হবে : জেলা প্রশাসক

চাঁদপুরে ভূমি সেবা সপ্তাহের উদ্বোধন
নিজস্ব প্রতিবেদক :
চাঁদপুরের সুযোগ্য জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ বলেছেন, আপনি এদেশের মানুষের মঙ্গলের জন্য চাকরি করেন। আপনি তাদের একজন সেবক। তাদের চাহিদা আইনগতভাবে আপনাকে মেটাতে হবে এবং কোন রকম হয়রানি এবং অসৎ উদ্দেশ্য ছাড়াই। তাই জনগনের একজন প্রকৃত সেবক হিসাবে তাদের মন নিয়ে সেবা করতে হবে।
রবিবার (২২ মে) সকালে জেলা প্রশাসক কার্যালয় চত্তরে ভূমি সপ্তাহ- ২০২২ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথাগুলো বলেন।
জেলা প্রশাসক আরো বলেন, অনেক সময় অভিযোগ আসে বা শুনা যায় যে, জনগণ ভূমিসেবা নিতে এসে হয়রানির শিকার হন। কিন্তু দয়া করে আপনারা এধরনের কাজ করবেন না। সব সময় খেয়াল রাখবেন একজন মানুষও যেন ভূমিসেবা নিতে এসে হয়রানির শিকার না হন। তিনি ভুমি করকর্তা কর্মচারির উদ্দেশ্যে বলেন, জনগণের প্রাপ্য সুবিধা তাকে দিতে হবে। সেবার মানসিকতা নিয়ে কাজ করতে হবে৷ জেলা প্রশাসক বলেন, বর্তমান সরকার, বিগত বছরগুলোতে ভূমিসেবাসহ জনগনের বেশির ভাগ সকল সেবাকেই ডিজিটালের আওতায় নিয়ে এসেছে। এই সেবা গ্রামিন ভূমি অফিস থেকে উপর পর্যায় অফিস পর্যন্ত বিস্তৃত এবং সহজতর। এই কথাগুলো বা ম্যাসেজগুলো খুব সাধারণের কাছে পৌঁছাতে হবে এবং তাদের সর্বাত্মক সহযোগিতা করতে হবে।
অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) ও স্থানীয় সরকারের উপ-পরিচালক দাউদ হোসেন চৌধুরী এবং সঞ্চালনার দায়িত্ব পালন করেন সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আখতার জাহান সাথী। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ নাসির উদ্দিন সারোয়ার, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক ( আইসিটি) মোসাম্মৎ রাশেদা আক্তার, চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি ইকবাল হোসেন পাটোয়ারী।
পরে একইদিনে দুপুরে জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে ভূমি সেবা সপ্তাহ উপলক্ষে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়।
পুরস্কার বিতরণী পূর্বে সংক্ষিপ্ত আলোচনা পর্বে জেলা প্রশাসক (ডিসি) অঞ্জনা খান মজলিশ বলেন, যে আজকে শ্রেষ্ঠ হয়েছে সে অনেকগুলো ভালো ভালো কাজ করেছে। যা তোমরা তার অনুকরণ করা দরকার। তার সাহসী কর্মদক্ষতা দেখে এই পুরস্কার দেয়া হয়েছে। সবাই দায়িত্বশীলতার সাথে নিজ দায়িত্ব সঠিকভাবে পালন করতে হবে।
জেলা প্রশাসক উপস্থিত উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাসহ অন্যান্য কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্যে বলেন, জেলা প্রশাসন আমরা একটি টিম। এখানে সবাই আমরা একসাথে কাজ করে থাকি। আমার দরজা সবার জন্য উম্মুক্ত ছিলো। কাজ ও আচরণ ভালো থাকতে হবে। কোন ধরণের অভিযোগ যেন না আসে সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।
এসময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. ইমতিয়াজ হোসেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মোছাম্মৎ রাশেদা আক্তার, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট নাছির উদ্দিন সরোয়ার, সিনিয়র সহকারি কমিশনার সুচিত্র রঞ্জন দাস, সহকারি কমিশনার শারমিন আক্তার, সহকারি কমিশনার (ভূমি) মুহাম্মদ হেলাল চৌধুরী, প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি ইকবাল হোসেন পাটওয়ারী প্রমূখ।
আলোচনা সভা শেষে ভূমি মন্ত্রনালয়ের আওতাধীন মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মাঝে সম্মাননা স্মারক ও সনদ প্রদান করেন জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ।
শ্রেষ্ঠ হিসেবে যারা পুরস্কার পেয়েছেন তারা হলেন, শ্রেষ্ঠ চাঁদপুর সদরের সহকারি কমিশনার (ভূমি) মুহাম্মদ হেলাল চৌধুরী, শ্রেষ্ঠ কানুনগো হাজীগঞ্জ উপজেলা ভূসি অফিসের মো. লোকমান হোসেন, শ্রেষ্ঠ সার্ভেয়ার সদর উপজেলা ভূমি অফিসের আর্য্যনন্দ তঞ্চঙ্গ্যা, শ্রেষ্ঠ ইউনিয়ন ভূমি সহকারি কর্মকর্তা মতলব দক্ষিণ নায়েরগাও ইউনিয়ন ভূমি অফিসের মো. মোয়াজ্জেম হোসেন, শ্রেষ্ঠ ইউনিয়ন ভূমি উপ-সহকারি কর্মকর্তা ফরিদগঞ্জ পৌর ইউনিয়ন ভূমি অফিসের মো. ফরিদুল ইসলাম পাটওয়ারী।
এরআগে সকালে ভূমি সেবা সপ্তাহ উদ্বোধন অনুষ্ঠানে চাঁদপুর সদর উপজেলার আমেনা বেগম,আবুল কালামকে খারিজ খতিয়ান এবং গিয়াসউদ্দিনকে সহিমোহর নকল বিতরণ করা হয়। শাহআলম ও আলাউদ্দিন মৃধাকে নিস্পত্তিকৃত এলএ কেইসের ক্ষতিপূরণের চেক প্রদান করা হয়। এছাড়াও ইসমাইল, মনির হোসেন, হামজা, শাহ মীরন ও মো. কাউসারকে খতিয়ানের সার্টিফাইড কপি প্রদান করা হয়।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.