ট্রলারডুবিতে নিখোঁজের ৫ দিন পর নারীর মরদেহ উদ্ধার

নিজস্ব প্রতিবেদক :
চাঁদপুরের মেঘনা-ডাকাতিয়া নদীর মোহনায় লঞ্চের ধাক্কায় নৌকাডুবির ঘটনার ৫দিন পর নিখোঁজ নাছিমা বেগম (৩৫) এর মরদেহ মেঘনা নদীর হাইমচর উপজেলার চরভৈরবী এলাকা থেকে উদ্ধার করেছে নৌ পুলিশ।
মঙ্গলবার (৯ নভেম্বর) সন্ধ্যায় বিষয়টি নিশ্চিত করেন চাঁদপুর নৌ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুজাহিদুল ইসলাম।
নাছিমা বেগম শরীয়তপুর জেলার সখিপুর থানার তারাবুনিয়া এলাকার সালেহ আহম্মেদ মাঝির স্ত্রী।
ওসি বলেন, দুপুর ১২টার দিকে চরভৈরবী এলাকায় মেঘনা নদীতে মরদেহ ভাসতে দেখে স্থানীয় লোকজন পুলিশকে জানায়। পুলিশ গিয়ে নদী থেকে ওই নারীর মরদেহ উদ্ধার করে নীলকমল পুলিশ ফাঁড়িতে নিয়ে আসে। পরবর্তীতে ওই নারীর স্বজনদের সংবাদ দিলে তারা এসে মরদেহ শনাক্ত করে।
তিনি জানান, এ ঘটনায় আটককৃত ৪ জনকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।
নীলকমল নৌ পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মো. হোসেন সরকার বলেন, মরদেহ সুরতহাল ও আইনি প্রক্রিয়া শেষে পরিবারের লোকদের কাছে বিকেলে হস্তান্তর করা হয়েছে। মরদেহ গলিত হওয়ার কারণে ময়না তদন্ত করা সম্ভব হয়নি।
এর আগে গত শুক্রবার (৫ নভেম্বর) দুপুরে মেঘনা মোহনায় শরীয়তপুরের ডামুড্যা থেকে ছেড়ে আসা এমভি লামিয়া নামক লঞ্চের সাথে ধাক্কা লেগে নৌকাডুবির ঘটনায় ৯জন পানিতে নিমজ্জিত হয়। এর মধ্যে দুই জন গুরুতর আহত হন। আহতদের মধ্যে রেজিয়া বেগম (৫৫) নামে নারীকে চাঁদপুর থেকে ঢাকায় চিকিৎসার জন্য নেয়ার পথে মৃত্যু হয়। নিখোঁজ হয়ে পড়েন নাছিমা বেগম।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *