চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সঙ্গে আমি সব সময় ছিলাম, এখনো আছি এবং ভবিষ্যতেও থাকবো : শিক্ষামন্ত্রী

* চাঁদপুর প্রেসক্লাবের ফ্যামিলি ডে ও বার্ষিক ক্রীড়া অনুষ্ঠান
* এমন সুন্দর আয়োজন সত্যিই আনন্দ দেয় : জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ
* পরিবার কাজের প্রেরণা যুগাবার একটা উৎকৃষ্ট জায়গা : পুলিশ সুপার মিলন মাহমুদ
নিজস্ব প্রতিবেদক :
চাঁদপুর প্রেসক্লাবের ২০২১ সালের কমিটির ফ্যামিলি ডে ও বার্ষিক ক্রীড়া অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে। শুক্রবার চাঁদপুর স্টেডিয়ামে দিনব্যাপী এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।ফ্যামিলি ডে অনুষ্ঠানটিতে ছিল বাড়তি আমেজ। সকালের নাস্ত ও শিশুদের ক্রীড়া অনুষ্ঠানের মাধ্যমে শুরু হয় প্রথম কার্যক্রম।
ফ্যামিলি ডে ও বার্ষিক ক্রীড়া অনুষ্ঠানের সার্বিক তত্ত্বাবধান ও ব্যবস্থাপনায় ছিলেন প্রেসক্লাবের সভাপতি ইকবাল হোসেন পাটওয়ারী ও সাধারণ সম্পাদক রহিম বাদশা। সাথে ছিলেন প্রেসক্লাবের কার্যকরী ও অন্যান্য সকল সদস্যবৃন্দ। দিনব্যাপী এ অনুষ্ঠানে সাংবাদিক পরিবারের সকল সদস্য উপস্থিত ছিলেন। সাংবাদিক পরিবারের সদস্যরা তথা ছেলে-মেয়ে, স্ত্রী ও অন্যরা বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়। প্রতিযোগিতা শেষে পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত হয়।


ফ্যামিলি ডে ও বার্ষিক ক্রীড়া অনুষ্ঠানের পুরস্কার বিতরণীতে টেলিকনফারেন্সে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি এমপি। তিনি তার বক্তব্যে বলেন, চাঁদপুর প্রেসক্লাবের এ অনুষ্ঠানটিতে আমার আসার কথা ছিল। কিন্তু আমার পারিবারিক অসুস্থতাজনিত কারণে আমার পক্ষে আসা সম্ভব হলো না। তারপরও ফোনে হলেও যুক্ত হতে পেরে আমার কাছে ভালো লাগছে। প্রেসক্লাবের সকল নেতৃবৃন্দ, তাদের পরিবারবর্গ যারা আজকে এখানে এসেছেন এটি খুব আনন্দের একটি দিন।
তিনি আরও বলেন, আমি জানি, সাংবাদিকরা এ দিনটির জন্য প্রতি বছরই অপেক্ষা করে থাকেন। যে দিনটি সবাই মিলে উপভোগ করবেন। এর আগে আপনাদের এ অনুষ্ঠানে আমার থাকার সুযোগ হয়েছিল। আজকে হলো না। কিন্তু আবার নিশ্চই ভবিষ্যতে এ অনুষ্ঠানে থাকবো ইনশাল্লাহ। আপনাদের সবার প্রতি অনেক অনেক শুভ কামনা রইলো। আজকের অনুষ্ঠানটি নিশ্চই অনেক সুন্দর হয়েছে। আপনাদের সকলের সর্বাঙ্গীন মঙ্গল কামনা করি। চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সঙ্গে আমি সব সময় ছিলাম, এখনো আছি এবং ভবিষ্যতেও থাকবো। আপনারাও সব সময় আমার সঙ্গে ছিলেন এবং ভবিষৎতেও থাকবেন নিশ্চয়ই। আপনাদের সকলকের প্রতি আমার অনেক অনেক শুভেচ্ছা রইল।
চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি ইকবাল হোসেন পাটওয়ারী ও সাধারণ সম্পাদক রহিম বাদশার পরিচালনায় ফ্যামিলি ডে ও বার্ষিক ক্রীড়ার পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ, পুলিশ সুপার মিলন মাহমুদ।
জেলা প্রশাসক অন্জনা খান মজলিশ তার বক্তব্যে বলেন, অনেক ব্যস্ততার মাঝেও আমি চাঁদপুর প্রেসক্লাবের আয়োজনে আজকের ফ্যামিলি ডে ও বার্ষিক ক্রীড়া অনুষ্ঠানে আপনাদের আমন্ত্রনে এলাম। তিনি বলেন, নিজেদের পরিবারের সবার সাথে, কিংবা সহকর্মিদের পরিবারদের নিয়ে একসাথে হয়ে আনন্দ করার মতো দিনগুলো সাংবাদিকদের খুব কমই হয়। আমরা যারা প্রশাসনে আছি, তাদের প্রায় এরকমই। আর এরমধ্যে এমন সুন্দর আয়োজন সত্যিই আনন্দ দেয়। তিনি বলেন, আপনাদের চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সাংবাদিরা লেখালেখির পাশাপাশি সামাজিক ও রাষ্ট্রীয় অনেক ভালো কাজের সাথে নিজেদের সম্পৃক্ত করে রাখেন। নানা অনুষ্ঠানাদিও করে থাকেন। এটি আমার কাছে বেশ ভালো লাগে। আমি গত ১১ মাসে আমি আসা পর্যন্ত ৩/৪ টি অনুষ্ঠান আপনাদের হতে দেখেছি, যেগুলো সাংবাদিক পরিবারের সকলের অংশগ্রহণ ছিলো। ভবিষ্যতেও আপনারা এমনি একত্রে থেকে অনেক ভালো সম্পাদন করবেন বলে আশা রাখি।
পুলিশ সুপার মিলন মাহমুদ তার বক্তব্যে বলেন, আমি আপনাদের পরিবারের বাইরের কেউ নন। আমার বাবা একজন সাংবাদিক ছিলেন। তিনি একটা পত্রিকা চালাতেন। তখন থেকেই বুঝতে পেরেছি, সাংবাদিকতা একটা ঝুঁকিপূর্ণ ও কষ্টের পেশা। তিনি বলেন, পরিবার কাজের প্রেরণা যুগাবার একটা উৎকৃষ্ট জায়গা। আর এই বৃহৎ পরিবারের একত্রিত হওয়া, একে অপরের দেখাদেখি, কথাবার্তা, যোগাযোগ এসব জীবন চলার পথে একটা বিশাল প্রাপ্তি এবং প্রশান্তির। এছাড়াও বক্তব্য রাখেন, জেলা প্রশাসকের স্বামী ঢাকা কলেজের অর্থনীতি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক আবুল কাশেম মুহাম্মদ জহুরুল হক, পুলিশ সুপারের সহধর্মিনী ও পুনাকের সভাপতি ডা. আফসানা শর্মী। পরে বিশেষ অতিথিবৃন্দ বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়া বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন।
এদিকে সকালের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ ও্চমান গনি পাটওয়ারী, ফরিদগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাড. জাহিদুল ইসলাম রোমান, চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি ইকবাল বিন বাশার।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি কাজি শাহাদাত, অধ্যাপক জালাল চৌধুরী,শহীদ পাটোয়ারী, বিএম হান্নান, শরীফ চৌধুরী, মির্জা জাকির, সাবেক সাধারণ সম্পাদক সোহেল রুশদী, লক্ষ্মণ চন্দ্র সূত্রধর, এএইচএম আহসান উল্লাহ, সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আল-ইমরান শোভন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবদুল আউয়াল রুবেল, আলম পলাশ, রিয়াদ ফেরদৌস, সাংগঠনিক সম্পাদক মোরশেদ আলম রোকন, শাহাদাত হোসেন শান্ত, মাহবুবুর রহমান সুমন, ইব্রাহিম রনি, কোষাধ্যক্ষ ইয়াসিন ইকরাম, প্রচার ও দপ্তর সম্পাদক কাদের পলাশ, সাহিত্য, প্রকাশনা ও লাইব্রেরি সম্পাদক শওকত আলী, ক্রীড়া সম্পাদক ফারুক আহম্মদ, সমাজকল্যাণ সম্পাদক আশরাফুল আলম, আপ্যায়ন ও বিনোদন সম্পাদক হাসান মাহমুদ, তথ্য ও প্রযুক্তি সম্পাদক তালহা জুবায়ের, কার্যকরী সদস্য পার্থনাথ চক্রবর্তী, আবদুুর রহমান, ওমর পাটওয়ারী, মুনির চৌধুরী, এম এ লতিফ, মোশারফ হোসেন লিটন, শরীফ মো. আশ্রাফুল হকসহ সকল সদস্যবৃন্দ। সকাল ৮ টা থেকে শুরু হওয়া এই ফ্যামিলি ডে’র নানা কর্মসূচি শেষ হয় বিকেলে সাড়ে ৫ টায়।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.