বিপণীবাগ হত্যাকাণ্ড : রাজুকে গ্রেফতারে মরিয়া পুলিশ, আটক দুই

নিজস্ব প্রতিবেদক
চাঁদপুর শহরের মিষ্টান্ন ব্যবসায়ী নারায়ণ ঘোষকে গলা কেটে হত্যার অভিযোগে সেলুন কর্মচারী ‘ঘাতক’ রাজুকে আটকের জন্য মরিয়া হয়ে অভিযান অব্যাহত রেখেছে চাঁদপুর মডেল থানা পুলিশ। এই ঘটনায় অভিযুক্ত সেলুন কর্মচারি রাজুকে আটকের জন্য পুলিশ চাঁদপুর সদর উপজেলার দেবপুর এলাকার শীল বাড়ি থেকে ঘাতক রাজুর
স্ত্রী ও শ্যালককে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। যদিও পুলিশ আটক বা জিজ্ঞাসাবাদ বা তথ্য কী কারণে তাদেরকে থানায় আনা হয়েছে, এ বিষয়ে কোন কথা বলতে চাননি।
স্থানীয় ও প্রত্যক্ষদর্শীদের সূত্রে জানা যায়, ঘাতক রাজু ঘটনা ঘটিয়ে কেউ কোন কিছু বুঝে উঠার পূর্বেই তাৎক্ষণিক কৌশলে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়।
এদিকে বাজারের নাইটগার্ড ও অন্যান্যদের বক্তব্যে পুলিশ নিশ্চিত হওয়ার পর থেকেই তথ্য প্রযুক্তিসহ নানাভাবে ঘাতক রাজুকে আটকের জন্য মরিয়া হয়ে অভিযান অব্যাহত রেখেছে। পুলিশ নানাভাবে সংগ্রহকৃত তথ্যের ভিত্তিতে চাঁদপুরে আত্মগােপনে থাকতে পারে ঘাতক রাজু এমন স্থানগুলোতে অভিযান এবং নজরদারি রেখেছে।
শহরের বেশ কজন সেলুন মালিকের সাথে কথা বলে জানা গেছে, ঘাতক রাজুর পৈত্রিক বাড়ি কুমিল্লা জেলায়। গত কয়েক বছর পূর্বে সেলুন কর্মচারী হিসেবে চাঁদপুরে এসে শহরের পালবাজার ব্রীজ সংলগ্ন পৌরসভার মার্কেটের ২য় তলার সেলুনে কাজ নেয়। এই সেলুনে প্রায় ২ বছরের মতো কাজ করে বিপনীবাগ টিপটপ সেলুনে বেশি বেতনে চাকুরি নেয়। সেখানে মালিক কৃষ্ণার সাথে সুসম্পর্কের কারণে এবং নিয়মিত আসা যাওয়ার সূত্র ধরে পরিচয় হয় নারায়ণ ঘোষের সাথে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *