মতলব দক্ষিণে এক সন্তানের জননীর আত্মহত্যা

নিজস্ব প্রতিবেদক :
মতলব দক্ষিণে এক সন্তানের জননী রিংকু রানী (২২) স্বামীর অত্যাচারে বিষপানে আত্মহত্যা করেছেন। ঘটনাটি ঘটেছে গত ২১ আগস্ট সন্ধ্যা আনুমানিক সাড়ে ৬টায় মতলব পৌরসভার ১নং ওয়ার্ডের বাইশপুর গ্রামের ঝালো পাড়ায়। পরে তাকে স্থানীয় লোকজন মতলব সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করলে কর্তব্যরত চিকিৎসক রিংকু রানীর গুরুতর অবস্থা দেখে চাঁদপুর সদর হাসপাতালে প্রেরন করে। সেখানেই সে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে রাতে মৃত্যুবরন করে। রিংকু রানীর স্বামীর নাম গোপাল দাস। পেশায় একজন দর্জি। রিংকু রানীর পিতার নাম নিরঞ্জন ভক্ত। বাড়ি দাউদকান্দি। রিংকু রানীর একটি পুত্র সন্তান রয়েছে। যার নাম প্রহর। নিরঞ্জন ভক্ত জানান, আমার মেয়েকে গোপাল দাস নির্যাতন করতে করতে মেরে ফেলেছে। আমি এর বিচার চাই। স্বামী গোপাল দাস জানান, এ বিষয়ে আমি কিছু বলতে চাচ্ছি না। কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে সে মনের ক্ষোভে বিষ পান করে।
বিষয়টি মতলব দক্ষিণ থানার পুলিশকে অবহিত করলে লাশ উদ্ধার করে চাঁদপুর মর্গে প্রেরন করে। থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো: মহিউদ্দিন মিয়া জানান, লাশ পোস্টমর্টেমের জন্য মর্গে প্রেরন করা হয়েছে। রিংকু রানীর পিতা বাদী হয়ে কয়েকজনকে আসামী করে রাতেই একটি মামলা দায়ের করেছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *