শিক্ষামন্ত্রীর বিরুদ্ধে মিথ্যাচারের অভিযোগে সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের বিক্ষোভ মিছিল

অভিজিত রায় :
বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, চাঁদপুর-৩ আসনের সংসদ সদস্য ও শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনির বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রমূলক মিথ্যাচারের প্রতিবাদে সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। ২ ফেব্রুযারি বুধবার বিকেলে শহরের হাসান আলী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠ থেকে মিছিল শুরু হয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে জেলা আওয়ামী লীগের দলীর কার্যালয়ে এসে শেষ হয়। মিছিল শেষে দলীয় কার্যালয়ে সম্মুখে সংক্ষিপ্ত প্রতিবাদ সভায় সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নুরুল ইসলাম নাজিম দেওয়ানের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক আলী এরশ্বাদ মিয়াজীর পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ সভাপতি ইউসুফ গাজী, সাংগঠনিক সম্পাদক তাফাজ্জল হোসেন এসডু পাটওয়ারী ও অ্যাডভোকেট মুজিবুর রহমান।
সভায় বক্তারা বলেন, চাঁদপুরের উন্নয়নকে বাধাগ্রস্থ করেত যারা অপপ্রচার চালাচ্ছে তাদের রুখে দিতে আহবান জানাচ্ছি। দল ও দলের বাইরে একটি কুচক্রীমহল অপপ্রচার চালাচ্ছে। দীপু মনির বিরুদ্ধে এসব অপপ্রচার বন্ধ না হলে মাঠের কর্মীরা দাঁতভাঙ্গা জবাব দিবে। পদ্মা সেতু তৈরীর পূর্বে বিশ্বব্যাংক বলেছে দুর্নীতি হয়েছে। কিন্তু দেখেন আজ শেখ হাসিনার নেতৃত্বে পদ্মা সেতুতে কিছুদিনের মধ্যে যানবাহন চলবে। ঠিক তেমনি চাঁদপুর মেডিকেল কলেজ ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়সহ সকল উন্নয়নকে বাধাগ্রস্ত করছে আমাদের ঘরের লোক। দীপু মনির সমালোচনা করা হলে শেখ হাসিনার সমালোচনা করা হয়। কারন তিনি মন্ত্রী, দলের যুগ্ম সম্পাদক ও এমপি।
আমারা প্রতিবাদ করতে চাই বিরোধী দলের বিরুদ্ধে কিন্তু আজ দলের সভাপতি হয়ে নিজের দলের নেত্রীর বিরুদ্ধে বিবৃতি দিলেন। আপনারা এ বিষয়ে ক্ষমা চান তা না হলে আন্দোলন আরো তীব্র হবে।
এসময় জেলা আওয়ামী লীগের উপ দপ্তর সম্পাদক অ্যাডভোকেট রনজিৎ রায় চৌধুরী, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি মাসুদুর রহমান নান্টু, যুগ্ম সম্পাদক আব্দুল আজিজ খান বাদল, সাংগঠনিক সম্পাদক আইয়ুব আলী বেপারী, জেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক মাহফুজুর রহমান টুটুল, মোহাম্মদ আলী মাঝি, সদর উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক হুমায়ন কবির সুমন, যুগ্ম আহবায়ক শিমুল হাসান শামনু, তাজুল ইসলাম মিয়াজী, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জহির উদ্দিন মিজি, সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন, সদর উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি এবিএম রেজোয়ান, সাধারণ সম্পাদক নাছির উদ্দিন গাজী, পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি সোহেল রানা, ১নং বিষ্ণুপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নাছির উদ্দিন খান, ৫নং রামপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আল মামুন পাটওয়ারী, ৭নং তরপুরচন্ডী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ইমাম হাসান রাসেল গাজী, ৯নং বালিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান রফিক উল্লা মাস্টার, ১১নং ইব্রাহিমপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান কাশেম খান, ১২নং চান্দ্র ইউনিয়নের চেয়ারম্যান খান জাহান আলী কালু, ১৩নং হানারচর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ছাত্তার রাঢ়ী, ১৪নং ইউনিয়নের চেয়ারম্যান রাজরাজেশ্বরের হযরত আলী বেপারী উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.