সাংবাদিক মাকসুদুল আলমের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকীতে মিলাদ ও দোয়া

চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি শাহ মোহাম্মদ মাকসুদুল আলমের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকীতে মিলাদ ও দোয়া অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন প্রেসক্লাব সভাপতি ইকবাল হোসেন পাটওয়ারী।

: নিজস্ব প্রতিবেদক :
চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি সাংবাদিক শাহ মোহাম্মদ মাকসুদুল আলমের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে মিলাদ ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার (২৮ সেপ্টেম্বর) চাঁদপুর প্রেসক্লাবের আয়োজনে প্রেসক্লাব মিলনায়তনে এই মিলাদ ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়।
প্রেসক্লাব সভাপতি ইকবাল হোসেন পাটোয়ারীর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক রহিম বাদশার সঞ্চালনায় মিলাদপূর্ব আলোচনায় বক্তব্য রাখেন প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি গোলাম কিবরিয়া জীবন, শহীদ পাটওয়ারী, শরীফ চৌধুরী, সিনিয়র সহ-সভাপতি গিয়াস উদ্দিন মিলন, সহ-সভাপতি সোহেল রুশদী, এএইচএম আহসান উল্যাহ, সাবেক সাধারণ সম্পাদক মির্জা জাকির, সাংগঠনিক সম্পাদক ইব্রাহীম রনি, কোষাধ্যক্ষ চৌধুরী ইয়াসিন ইকরাম, সুদীপ্ত চাঁদপুরের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক এম আর ইসলাম বাবু প্রমুখ। মরহুমের পরিবারের পক্ষ থেকে বক্তব্য রাখেন বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ এসএমএম আলম।
প্রয়াত সাংবাদিক শাহ মোহাম্মদ মাকসুদুল আলমের স্মৃতিচারণ করে আলোচনায় বক্তারা বলেন, তিনি ছিলেন একজন সাহসী সাংবাদিক। বস্তুনিষ্ঠ সাংবাদিকতা করতে গিয়ে তাকে অনেক সময় হেনস্তার শিকারও হতে হয়েছে। তারপরও সত্য প্রকাশে তিনি ছিলেন অবিচল। আমরা তার রুহের মাগফিরাত কামনা করি। আল্লাহ যেন তাকে জান্নাতবাসী করেন সেই দোয়া করবো।
পরে তার পরিবারের পক্ষ থেকে বক্তব্য রাখেন বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ এসএমএম আলম। তিনি বলেন, শাহ মোহাম্মদ মাকসুদুল আলম আমার ছোট ভাই। তার মৃত্যুর পরও তাকে চাঁদপুর প্রেসক্লাব মনে রেখেছে। তার জন্য এমন আয়োজন করায় আমরা চাঁদপুর প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দের কাছে কৃতজ্ঞ। পরিবারিকভাবে আমরা মাকসুদের জন্য গর্বিত। আল্লাহ যেন তাকে জান্নাতবাসী করেন সে জন্য আপনারা সবাই জন্য দোয়া করবেন।
পরে মিলাদ ও দোয়া পরিচালনা করেন ক্লাবের সহ-সভাপতি এএইচএম আহসান উল্লাহ। এ সময় উপস্থিত ছিলেন প্রেসক্লাবের সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আল-ইমরান শোভন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রিয়াদ ফেরদৌস, সিনিয়র সদস্য মুনির চৌধুরী, ফণি ভূষণ চন্দ্র, প্রচার ও দপ্তর সম্পাদক কাদের পলাশ, আপ্যায়ন ও বিনোদন সম্পাদক হাসান মাহমুদ, সাংস্কৃতিক সম্পাদক এ কে আজাদ, প্রেসক্লাব সদস্য মাজহারুল ইসলাম অনিক, শরিফুল ইসলাম, সাংবাদিক এমআই দিদার, আলমগীর হোসেন, আতিক খান প্রমুখ।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *