হাজীগঞ্জের মানসিক ভারসাম্যহীন সাবেক ছাত্রলীগ নেতার চিকিৎসায় প্রধানমন্ত্রীর সহযোগিতা কামনা

শাখাওয়াত হোসেন শামীম :
মানসিক ভারসাম্যহীন হয়ে নিখোঁজ হওয়ার ১৩ বছর পর চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ পৌর ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মো. মোতালেব হোসেনকে (৫২) খুঁজে ে পলো তার পরিবার। মোতালেব হোসেনের সুস্থতার জন্য উন্নত চিকিৎসার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সহযোগিতা কামনা করেছেন তার পরিবার ও সাবেক ছাত্রলীগ নেতারা।
গত শনিবার ৬ নভেম্বর বিকালে লক্ষ্মীপুর জেলার রামগঞ্জ বাজার থেকে তাকে উদ্ধার করা হয়। সে পৌরসভাধীন ৬নং ওয়ার্ড মকিমাবাদ এলাকার মাইজের বাড়ির মরহুম সেকান্তর আলীর ছোট ছেলে। ২০০৮ সালে মানসিক ভারসাম্যহীন অবস্থায় নিখোঁজ হয় সে।
হাজীগঞ্জ পৌর ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোতালেব হোসেনের সুস্থতার লক্ষ্যে চিকিৎসার জন্য ফান্ড গঠন করা হয়েছে। মোতালেব হোসেনের পরিবার ও সাবেক ছাত্রলীগ নেতাদের পক্ষ থেকে সহায়তার অনুরোধ জানানো হয়েছে।
সাহায্য পাঠানো যাবে যে মাধ্যমে: একাউন্ট নাম: মোঃ আহসান উল্ল্যাহ মৃধা, হায়দার পারভেস সুজন, ফরিদুল ইসলাম,ব্যাংক এশিয়া লিমিটেড, একাউন্ট নম্বর ০৬০৩৪০০৯০৭৮, হাজীগঞ্জ শাখা, চাঁদপুর। বিকাশ একাউন্ট:০১৭২৪৭৪৭৪৭৪।
বর্তমানে মোতালেব হোসেন পরিবারের সদস্যদের কাছে রয়েছেন। তবে পৌর মেয়র আ.স.ম মাহবুব-উল আলম লিপনের নির্দেশে তাকে ৬নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মো. শাহআলমের সার্বিক তত্ত্বাবধানে রাখা হয়েছে।
মোতালেব হোসেন ১৯৮৯-১৯৯৮ সাল পর্যন্ত পৌর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক পদে দায়িত্ব পালন করেছেন।
এ বিষয়ে কাউন্সিলর মো. শাহআলম জানান, ২০০৭ সালে হঠাৎ করে শারীরিকভাবে অসুস্থ হয়ে মানসিক ভারসাম্যহীন হয়ে পড়ে মোতালেব হোসেন। ওই সময়ে পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বর্তমানে হাজীগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আ.স.ম আ.স. মাহবুব-উল আলম লিপন ব্যক্তিগতভাবে তার চিকিৎসার ব্যবস্থা করেন এবং তার চিকিৎসায় প্রায় ১ লাখ ৩০ হাজার টাকা ব্যয় করেন। কিন্তু চিকিৎসাধীন অবস্থায় নিখোঁজ হয় সে।
এরপর মজিবুর রহমান রাব্বি নামের আমাদের এলাকার একজন ভাই (ঔষুধ কোম্পানীর প্রতিনিধি) মোতালেব হোসেনকে রামগঞ্জ বাজারে দেখতে পেয়ে আমাদের জানান। খবর পেয়ে তার পরিবারের লোকজনকে সাথে নিয়ে আমরা তাকে উদ্ধার করে হাজীগঞ্জে নিয়ে আসি। তার সুস্থতার জন্য চিকিৎসার বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থাগ্রহণ করা হবে। এ বিষয়ে তিনি শুভাকাঙ্ক্ষীদের সহযোগিতা কামনা করেন।
এদিকে মোতালেব হোসেনের সুস্থতার লক্ষ্যে চিকিৎসার জন্য ফান্ড গঠন করেন সাবেক ছাত্রলীগ নেতারা।

 

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *