হাজীগঞ্জে কিশোরীকে ধর্ষনের অভিযোগে চাচা গ্রেফতার

শাখাওয়াত হোসেন শামীম :
চাঁদপুরের হাজীগঞ্জে ১৫ বছর বয়সি এক বুদ্ধি প্রতিবন্ধী কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে রুহুল আমিন মজুমদার (৫৫) নামের একজনকে আটক করেছে হাজীগঞ্জ থানা পুলিশ।
সোমবার (১১ জুলাই) বিকালে তাকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। গত শনিবার (৯ জুলাই) বিকালে উপজেলার কালচোঁ দক্ষিণ ইউনিয়নের সাকছিপাড়া গ্রামের মজুমদার বাড়ির একটি কাছারি ঘরে এ ধর্ষণের ঘটনা ঘটে।
এরপর ঈদের দিন রোববার (১০ জুলাই) কিশোরী মা বাদী হয়ে হাজীগঞ্জ থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে একটি মামলা দায়ের করেন। আটক রুহুল আমিন মজুমদার ওই বাড়ির বাসিন্দা এবং বুদ্ধি প্রতিবন্ধী কিশোরী তার বাড়ির সর্ম্পকের ভাতিজি হন।
জানা গেছে, শনিবার বিকেলে চকলেটের লোভ দেখিয়ে রুহুল আমিন মজুমদার বুদ্ধি প্রতিবন্ধী কিশোরীকে ওই বাড়ির কাছারি ঘরে নিয়ে ধর্ষণ করে। এসময় কিশোরীর কান্নাকাটি শুনে একই বারেকের স্ত্রী এবং আমেনা আক্তার নামে দুই মহিলা ঘটনাটি দেখতে পেয়ে ডাক চিৎকার দেয়।
এরপর তাদের ডাক-চিৎকার শুনে দ্রুত ঘটনাস্থল থেকে রুহুল আমিন পালিয়ে যায়। পরে ওই কিশোরীর মা বিষয়টি স্থানীয় ইউপি সদস্য আব্দুল খালেকসহ স্থানীয় গণ্যমান্যদের জানান এবং তাদের পরামর্শ অনুযায়ী ঈদের দিন (রোববার) হাজীগঞ্জ থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে একটি মামলা (নং- ১৬) দায়ের করেন।
মামলার পর তদন্তকারী কর্মকর্তা ও হাজীগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক প্রভাকর বড়ুয়া সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ধর্ষক রুহুল আমিনকে আটক করেন। এ দিকে স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, এর আগেও রুহুল আমিন গৃহপালিত পশু ছাগলের সাথে যৌন সম্পর্ক এবং বাড়ির সম্পর্কিত এক নাতিনকে ধর্ষণের চেষ্টা করেন।
হাজীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ জোবাইর সৈয়দ জানান, কিশোরীর মেডিকেল রিপোর্টের জন্য চাঁদপুর সদর হাসপাতালে প্রেরণ এবং মামলার ২৪ ঘন্টার মধ্যে একমাত্র আসামি রুহুল আমিনকে আটক করা হয়েছে। পরবর্তীতে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে তিনি জানান।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.