হাজীগঞ্জে ২শ’ বছর পর রাস্তা নির্মাণ করে সড়ক বাতি দিলেন মেয়র

শাখাওয়াত হোসেন শামীম :
হাজীগঞ্জ পৌরসভাধীন ৭নং ওয়ার্ড (টোরাগড়-বদরপুর) এর বদরপুর এলাকার চর বাড়ির লোকজন দুইশ’ বছর পর পেলেন রাস্তা, তাও আবার পাথর দিয়ে আরসিসি ঢালাই। এবার সেই রাস্তায় ১২টি পিলার মাধ্যমে সাড়ে ৬শ’ মিটার ক্যাবল টানিয়ে সড়ক বাতি দিয়ে ওই বাড়িকে আলোকিত করলেন পৌর মেয়র ও পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি আ.স.ম মাহবুব-উল আলম লিপন। বুধবার (১৪ জুলাই) বিকেলে তিনি এই সড়ক বাতির উদ্বোধন করেন।
শুধু রাস্তা ও সড়ক বাতি নয়, দীর্ঘ বছর অবহেলিত থাকা এই বাড়িতে একটি পাকা ঘাটলা নির্মাণ ও মসজিদের জন্য অনুদান দিলেন পৌর মেয়র আ.স.ম মাহবুব-উল আলম লিপন। এছাড়া তিনি সরকারি বিভিন্ন অনুদানসহ ব্যক্তিগত ও পারিবারিকভাবে ওই বাড়ির লোকজনকে বিভিন্নভাবে সহযোগিতা করছেন। মেয়রের এমন আন্তরিকতা দেখে আবেগাপ্লুত চর বাড়ির লোকজন। যা দুইশ’ বছরে সম্ভব হয়নি। তা একজন ব্যক্তিই (মেয়র) করে দেখিয়েছেন।

৭নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর কাজী মনির হোসেনের সভাপতিত্বে সড়ক বাতির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মেয়র আ.স.ম মাহবুব-উল আলম লিপন টোরাগড় গ্রামের কৃতী সন্তান প্রাক্তন সংসদ সদস্য মরহুম এমএ মতিনের আত্মার মাগফেরাত ও প্রবীণ আওয়ামী লীগ নেতা বাদশা মজুমদারের সুস্থতা কামনা করে বলেন আমি প্রধান অতিথি হিসেবে নয়, আপনাদের (পৌরবাসী) সেবক হিসেবে এই সড়ক বাতির উদ্বোধন করতে এসেছি।

তিনি বলেন, আমি চ্যালেঞ্জিং কাজ করতে পছন্দ করি। কারণ আপনারা আমার সাথে আছেন। আর আপনারা আছেন বলেই, এই ওয়ার্ডের নোয়া মৃধা বাড়ির রাস্তাটি ৮০ বছর পর নির্মাণ করতে পেরেছি। আপনাদের সার্বিক সহযোগিতায় গত ৫ বছরে এভাবেই পৌর এলাকায় অনেক অসম্ভব কাজকে সম্ভব করেছি, ইনশআল্লাহ্ ভবিষ্যতেও করার চেষ্টা করবো। এ সময় ওই বাড়ির লোকদের চাহিদা অনুযায়ী আর্সেনিকমুক্ত পানির ব্যবস্থা করবেন বলে তিনি জানান।

স্বাস্থ্যবিধি মেনে আয়োজিত সড়ক বাতির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে চর বাড়ির প্রবীণ সদস্য হাজি আব্দুল মতিন খন্দকার বলেন, এই বাড়ির বয়স প্রায় দুইশ’ বছর। সবশেষ পৌরসভায় অন্তর্ভুক্ত হয়েছি ৩৬ বছর। কত চেয়ারম্যান, মেম্বার ও মেয়র গেলো, কিন্তু আমাদের বাড়ির রাস্তা হলো না। মূল রাস্তা তো দূরের কথা, বাড়ির রাস্তাও ছিলো না। রাস্তার অভাবে রেললাইন দিয়ে হাঁটতাম। আর বর্ষায় গামছা পড়ে বাড়ি থেকে আসা-যাওয়া করতাম। বিশেষ করে গর্ভবতী মা-বোন ও অসুস্থ রোগিদের নিয়ে অনেক কষ্ট পেয়েছি।

মেয়রের প্রতি কৃতজ্ঞতা স্বীকার করে কান্নাজড়িত কণ্ঠে তিনি বলেন, সবশেষ আপনি (আ.স.ম মাহবুব-উল আলম লিপন) মেয়র হলেন। আমাদের জন্য কাঁচা রাস্তা নির্মাণ করলেন। সেই রাস্তা টেকসই হলে, পাথর দিয়ে আরসিসি ঢালাইয়ের মাধ্যমে পাকা করলেন। এবার দিলেন সড়ক বাতিসহ আরো কত কিছু। তাই দোয়া ছাড়া, আপনার দেয়া এই ঋণ আমরা পরিশোধ করতে পারবোনা। নিশ্চই আল্লাহ্ আপনাকে সদকায়ে জারিয়াহ্ হিসেবে সওয়াব দান করবেন, এই কামনা রইলো মহান আল্লাহর কাছে।

এ সময় আরো বক্তব্য রাখেন ৭নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. সিরাজুল ইসলাম মজুমদার, চর বাড়ির প্রবীণ ব্যক্তি মো. আব্দুর রশিদ প্রমুখ। বক্তব্যের আগে চর বাড়ির পক্ষ থেকে মেয়র আ.স.ম মাহবুব-উল আলম লিপনকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান তারা।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন পৌরসভার নির্বাহী প্রকৌশলী মো. তারিকুল ইসলাম, সহকারী প্রকৌশলী (সিভিল) মো. ইদ্রিস মিয়া, উপ-সহকারী প্রকৌশলী (বিদ্যুৎ) মো. মাহবুবর রশিদসহ অন্যান্য কর্মকর্তা, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবুল বাসার বাগু এবং মো. দুলাল হোসেন, জিতু মিয়া, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মো. ইমাম হোসেনসহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গসহ ওই বাড়ির লোকজন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *