১৪ বছরের কিশোরকে মনে হয় ৭ মাসের শিশু

নিজস্ব প্রতিবেদক :
বিরল রোগে আক্রান্ত শোয়ান। বয়স ১৪ বছর হলেও মনে হয় যেনো ৬ মাসের বাচ্চা। বয়স অনুপাতে তার দৈহিক বৃদ্ধি ঘটেনি, শরীরটা দেখে মনে হয় বামন। শোয়ানের মায়ের নাম লিপি বেগম ও পিতার নাম মোহাম্মদ নাসির সরকার। এলাকায় চা বিক্রি করেন। এভাবেই চলছে সংসার। আছে অন্য দু বোন। ৬ বছরের ছোট বোনটাও কথা বলতে পারে না। বড় বোনটা বিয়ের উপযোগী ষোড়শী। বামন ভাইয়ের জন্য বিয়ের সম্বন্ধ আসে না। আসলেও ফিরে যায়। মোহাম্মদ নাসির সরকারের উল্লেখ করার মতো কোন জমি-জমা নেই। শিশু শোয়ান ৬ বছর বয়স থেকেই শারীরিক সমস্যায় আক্রান্ত বলে জানান মা-বাবা। চাঁদপুর জেলার মতলব উত্তর উপজেলার ফতেপুর পশ্চিম ইউনিয়নের গাজীপুর গ্রামের বাসিন্দা। শোয়ানের মা-বাবা জানায়, তাদের একটি ছেলে শিশু সন্তান ছিলো। জমি-জমা সংক্রান্ত বিরোধে দুর্বৃত্তরা তাকে মেরে ফেলেছে। তাই শোয়ানকে নিয়ে বাবা-মায়ের অনেক স্বপ্ন ছিলো। কিন্তু বিধিবাম সে বিরল রোগের কারণে যে বড় হচ্ছে না অন্যান্য বাচ্চাদের মতো! মানসিকভাবেও অস্বাভাবিক। হাঁটাহাঁটি ও দৌড়াদৌড়ি করতে পারছে না। শুধু বসে ও শুয়ে থাকে। ভালো করে কথাও বলতে পারছে না। শুধু পোলাও, দেশী মুরগী ও বড় মাছ খেতে পছন্দ করে। ভাত খায় না। সুচিকিৎসার জন্য অনেক ডাক্তার দেখিয়েছেন। ডাঃ রাজিব কিশোর বণিক বলেছে, হরমোনের অভাবে তার শরীরে এমন অবস্থা। এ রোগটি বিরল, এর চিকিৎসার খরচ অত্যন্ত ব্যয়বহুল। সঠিক চিকিৎসা ছাড়া শোয়ানের রোগমুক্তি হবে না। হরমোন রোগে আক্রান্ত রোগীকে বাদাম খেতে দিতে পারেন। বাদাম শরীরের হরমোন নিঃসরণ বাড়িয়ে ভারসাম্য বজায় রাখতে সাহায্য করে। কাঠবাদাম, আমন্ড, আখরোট খুবই উপকারী। প্রতিদিনের খাবারে শাকসবজি থাকলে অনেক রোগ থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। গাজর, বীট, ব্রকোলি, পালংশাক, মিষ্টি আলু, টমেটোর মতো সবজি হরমোনের ব্যালেন্সে সাহায্য করে।
শোয়ানের বাবা-মা বলেছে, উন্নত চিকিৎসা করানোর মতো টাকা পয়সা তাদের নেই। চিকিৎসার জন্যে কোথায় যাবেন কিছুই বোঝেন না। তাই কোলে করেই নারী ছেড়া বুকের ধন শোয়ানকে নিয়ে চলাফেরা করেন এইচএসসি পাস করা মা।
স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান নূর মোহাম্মদ জানান, শোয়ানের ব্যাপারটি সত্য। আমি তার চিকিৎসার জন্য সাধ্যানুযায়ী সহযোগিতা করেছি।
মা তার সন্তানের সুচিকিৎসার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুদৃষ্টি কমনা করেছেন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.