করোনা সংক্রমণরোধে জেলাজুড়ে মাস্ক বিতরণ ও জনসচেতনতামূলক কার্যক্রম

আশিক বিন রহিম :
করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবেলায় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে সারা দেশের ন্যায় চাঁদপুরে জনসাধারণের সচেতনতায় “মাস্ক বিতরণ ও জনসচেতনতামূলক কার্যক্রম” পালন করা হয়েছে।
গতকাল ১৮ নভেম্বর বুধবার চাঁদপুর জেলা প্রশাসক জেলা প্রশাসন, স্বাস্থ্য বিভাগের দিক নির্দেশনায় চাঁদপুর জেলা শহরসহ প্রতিটি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে, হাট-বাজারে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের আয়োজনে এই কর্মসূচি পালন করা হয়। সকাল ৯টায় চাঁদপুর জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে জনসচেনতামূলক শতভাগ মাস্ক পরিহিত একটি সাইকেল র‌্যালি বের হয়। শহরের ইশিল চত্বর এলাকায় সাইকেল র‌্যালি আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করেন চাঁদপুরের জেলা প্রশাসক মো. মাজেদুর রহমান খান। র‌্যালিটি ইলিশ চত্বর থেকে বের হয়ে শহরের স্টেডিয়াম রোড, মিশন রোড ও গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে একই স্থানে এসে শেষ হয়।
জেলা প্রাশাসক মো. মাজেদুর রহমান তার বক্তব্যে বলেন, ‘করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউ প্রতিরোধে মাস্ক পড়ার বিকল্প নেই। চাঁদপুরের সকলের অংশগ্রহনে আমরা করোনার প্রথম ঢেউ যেভাবে মোকাবেলা করেছি, ঠিক একইভাবে দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবেলার জন্য সকল সরকারি ও অন্যান্য প্রতিষ্ঠান একত্রিত হয়েছে। আজকের এ সচেতনতামূলক র‌্যালিতে ১ হাজার ২শ’ প্রতিষ্ঠান অংশগ্রহণ করেছে। চাঁদপুরে সচেতনতামূলক অভিযান করায় অধিকাংশ মানুষ মাস্ক পড়ছেন। এখন থেকে সকল সরকারি দফতর, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান যারা সেবা নিতে ও দিতে আসবে তার অবশ্যই মাস্ক পড়বে। যদি কেউ স্বাস্থ্যবিধি না মানে তার বিরুদ্ধে সর্বশেষ আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’
চাঁদপুর পৌরসভার মেয়র মো.জিল্লুর রহমান বলেন, ‘চাঁদপুরে করোনার প্রথম ঢেউ মোকাবেলায় সচেতন থাকায় আমরা অনেকটা সফল হয়েছি। আজকে সারাদেশের ন্যয় চাঁদপুরে সচেতনতামূলক অনুষ্ঠানের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবেলায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যেসব নির্দেশনা দিয়েছেন। আমি আশা করবো- আজকে থেকে চাঁদপুরবাসী তা মেনে চলবে।’
অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ আবদুল্লাহ আল মাহমুদ জামানের সঞ্চালনায় আরো বক্তব্য রাখেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ ও প্রশাসন) কাজী আবদুর রহিম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) দাউদ হোসেন চৌধুরী, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) অসীম চন্দ্র বণিক, ফায়ার সার্ভিস চাঁদপুর উত্তর স্টেশনের সহকারী পরিচালক ফরিদ উদ্দিন, জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর এর সহকারী পরিচালক একেএম দিদারুল আলম, জেলা তথ্য অফিসার নুরুল হক, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা বাবু, জেলা মার্কেটিং অফিসার রেজাউল করিমসহ সরকারি দপ্তরের কর্মকর্তাবৃন্দ।
এদিকে জেলা-উপজেলা প্রশাসন চাঁদপুর শহরে ও প্রতিটি উপজেলা সদরে ব্যানার, ফেস্টুন, প্লে-কার্ড, প্রচারপত্র ও অন্যান্য প্রচার অভিযান ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গেছে। চাঁদপুর জেলা প্রশাসক ইতিমধ্যেই জেলা সদরের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধানদেরকে সচেনতামূলক ব্যবস্থা ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার জন্য নির্দেশনা দিয়ে চিঠি দিয়েছেন।
মাক্স ব্যবহার করার জন্যে চাঁদপুর ইসলামিক ফাউন্ডেশনের ৭,২৪৬ মসজিদের ইমামদেরকে মাইকিং করে মাস্ক ব্যবহার করে মসজিদে আসতে বলা হয়েছে। ৫ ওয়াক্ত নামাজের পূর্বে এর ঘোষণা করার আহবান জানান উপ-পরিচালক মো.খলিলূর রহমান।
জেলা তথ্য অফিস মাস্ক ব্যবহার সম্পর্কে উঠোন বৈঠক, ভিডিও কনফারেন্স, মা সমাবেশ প্রভৃতি প্রচার চালিয়ে যাচ্ছেন। মানুষকে আরো বেশি সচেতন করার লক্ষ্যে অফিস-আদালতে সেবা গ্রহণের জন্যে মাস্ক ব্যবহার বাধ্যতামূলক করার আন্দোলন গড়ে তোলা হচ্ছে।’ করো না ভাইরাস এর দ্বিতীয় মোকাবেলায় দেশের সকল স্বাস্থ্য বিভাগের নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *