কচুয়ায় ইউপি ভবনে মামুনুল হক সমর্থকদের হামলা, গ্রেফতার ৩

কচুয়া প্রতিনিধি :
হেফাজত ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হককে গ্রেফতার করায় চাঁদপুরের কচুয়ার ৬নং উত্তর ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে হামলার ঘটনা ঘটেছে। রবিবার রাতে প্রায় দেড় শতাধিক হেফাজত সমর্থক নেতাকর্মী একত্রিত হয়ে তেতৈয়া গ্রামে অবস্থিত ইউপি ভবনে এ হামলা ও ভাংচুর করে। এ ঘটনায় গ্রেফতার ৩ জনকে সোমবার কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।
প্রত্যক্ষদর্শী গ্রাম পুলিশ নারায়ণ চন্দ্র বলেন, ঘটনার সময় আমি ইউনিয়ন পরিষদ ভবনের ভিতরে অবস্থান করছিলাম। হঠাৎ হেফাজত সমর্থিত নেতাকর্মীরা ইউপি ভবনের সামনে ও চারপাশে ভাংচুর চালায়।
৬নং উত্তর কচুয়া ইউপি সচিব মো. মফিজুর রহমান বলেন, রবিবার রাতে প্রায় দেড় থেকে দুই শতাধিক হেফাজত সমর্থিত নেতাকর্মী উজানী, দারচর ও খিড্ডা এলাকা থেকে জড়ো হয়ে সরকারি ইউপি ভবনে রাষ্ট্রীয় মালামাল, দরজা-জানালা ও ভবন ভাংচুর করা হয়েছে। এ ঘটনায় সোমবার ১২ জনের নাম উল্লেখ ও ৪০/৫০ জনকে অজ্ঞাত আসামী করে কচুয়া থানায় একটি মামলা (১৬) দায়ের করা হয়েছে।
ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সেক্রেটারী অ্যাড. এম. আখতার হোসাইন হেফাজত সমর্থিত নেতাকর্মী কর্তৃক আওয়ামী দলীয় ফেস্টুন ও ইউপি ভবন ভাংচুরের ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান। পাশাপাশি অপর আসামীদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবি জানান।
কচুয়া থানার ওসি মো. মহিউদ্দিন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, হেফাজত নেতাকর্মীদের বিক্ষোভ মিছিল বের করে যাওয়ার সময় ইউপি কার্যালয়ে হামলা চালায়। আমরা ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যাই। তাৎক্ষনিক ৩ জনকে গ্রেফতার করে সোমবার তাদের আদালতে সোপর্দ করা হয়। মামলার অন্যান্য আসামীদের গ্রেফতারের প্রচেষ্টা চলছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *