করোনাকালে তহবিল গড়ে অসহায়দের পাশে নারী আইনজীবীরা

চাঁদপুর প্রতিদিন ডেস্ক :
করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) মৃত্যুবরণকারী আইনজীবীদের পরিবার, এ ভাইরাসহ অন্যান্য রোগে আক্রান্ত আইনজীবী এবং যারা পেশাগত অসুবিধায় আছেন তাদের পাশে দাঁড়িয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের নারী আইনজীবীরা। তহবিল গঠন করে তাদের মাঝে প্রায় ১৯ লাখ টাকা বিতরণ করেছেন এ নারী আইনজীবীরা।
গত ২১ এপ্রিল থেকে ১২ মে পর্যন্ত ১২৬ জন আইনজীবী ১৮ লাখ ৯৪ হাজার টাকা দিয়ে তহবিলটি গঠন করেন। পরে সংগৃহীত এসব টাকা বিতরণ করা হয়েছে। নারী আইনজীবীদের এ উদ্যোগে পাশে দাঁড়িয়েছেন বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদের আইনজীবীরাও।
আইনজীবীরা জানান, প্রচণ্ড ইচ্ছা শক্তি, দৃঢ় প্রত্যয়, নির্দিষ্ট লক্ষ্য ও সৎ উদ্দেশ্য থাকলে কোনো কাজই অসাধ্য নয়। করোনা বাংলাদেশে তার ভয়াবহ রূপ নিয়ে আক্রমণ করেছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মানবতার হাত বাড়িয়ে দিয়ে জনগণের পাশে দাঁড়িয়েছেন। তার হাতকে আরও শক্তিশালী করতে গত বছরের মে মাসে বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদের নারী সদস্যরা মিলে ‘করোনা মোকাবিলা ফান্ড-২০২০’ গঠন করে ১১২ জন আইনজীবীকে সাত লাখ ৮৪ হাজার টাকা দিয়েছেন। এ বছর করোনার দ্বিতীয় ঢেউ আঘাত করেছে। তাছাড়া কোর্টও বন্ধ, আইনজীবীদের অনেকেও করোনায় আক্রান্ত। অনেকে মারাও গেছেন। কেউ আবার কষ্টে দিন যাপন করছেন। তাই গতবারের মতো এবারও ফান্ড গঠন করে তাদের মাঝে অর্থ বিতরণ করা হয়েছে।
সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী অ্যাডভোকেট জেসমিন সুলতানা বলেন, সরকারি কোনো প্রণোদনা ৫৮ হাজার আইনজীবীর মধ্যে কেউ পাননি। লকডাউনে যখন আইনজীবীরা অস্থির সময় কাটাচ্ছিলেন, ঠিক সেই সময়ে আমাদের প্রিয় নেতা সুপ্রিম কোর্ট বার অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ও অ্যাটর্নি জেনারেল এ এম আমিন উদ্দিনের পরামর্শে নারী আইনজীবীরা ২২৩ জন আইনজীবীকে নিয়ে মেসেঞ্জার গ্রুপ চালু করেন। গ্রুপটির নাম দেয়া হয় ‘বৈশ্বিক মহামারি করোনা মোকাবিলা ফান্ড-২০২১’। অ্যাডভোকেট আনোয়ারা শাহজাহান, শবনম মুস্তারী, তামান্না ফেরদৌস, সুলতানা নাসরিন, সাবিনা পারভীন, ফেরদৌসী আক্তার কল্পনা, রওশন মনি, শিরিন আহমদ, হুমায়েরা নূরের বিকাশ নম্বরে তহবিলের টাকা গ্রহণের সিদ্ধান্ত হয়।
তিনি জানান, গত ২১ এপ্রিল থেকে ১২ মে পর্যন্ত ১২৬ জন আইনজীবীর কাছে থেকে ১৮ লাখ ৯৪ হাজার টাকা সংগ্রহ করা হয়। সংগৃহীত টাকা বিতরণে অ্যাডভোকেট তওফিকা করিম রেখাকে আহ্বায়ক করে কমিটি গঠন করা হয়। যেসব আইনজীবী মারা গেছেন তাদের পরিবার, যারা করোনায় আক্রান্ত ও অন্যান্য অসুস্থতায় ভুগছেন, বিধবা এবং যারা করোনায় সাময়িক অসুবিধায় আছেন তাদের প্রত্যেকের আলাদা তালিকা করে ২২৩ জনকে ১৯ মে পর্যন্ত বিকাশের মাধ্যমে সংগৃহীত অর্থ বিতরণ করা হয়।
এই তহবিলে যারা অর্থ যোগান দিয়েছেন তারা হলেন- সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ থেকে অবসরপ্রাপ্ত এবং বিচার প্রশাসন প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক (ডিজি) হিসেবে নবনিযুক্ত বিচারপতি নাজমুন আরা সুলতানা, অ্যাডভোকেট তওফিকা করিম রেখা, আনোয়ারা শাহজাহান, সানজিদা খানম, উম্মে কুলশুম স্মৃতি, জেসমিন সুলতানা, জান্নাতুল ফেরদৌস রূপা, কাজী শাহানারা, শবনম মোস্তারী, তামান্না ফেরদৌস, সুলতানা নাসরিন সুইটি, সাবিনা পারভীন, ফেরদৌসী আক্তার কল্পনা, রওশন আরা মনি, শিরিন আহমেদ, আনিচুল মাওয়া, ব্যারিস্টার রিমি নাহরিন, ফেরদৌসী আক্তার কল্পনা, মৌদুদা ফেন্সী, আসমা খাতুন, সালেহা শিল্পী, নার্গিস আক্তার, আলেয়া ফেরদৌস, মমতাজ মৌ, সাবিনা পারভীন, কোহিনূর লাকী, রিনা ফাতেমা, সালমা হাই টুনী, জুলফিয়া রীতা, শরীফা সুলতানা রেণু, শামীমা পারভীন রূপা, ঈশিতা পারভিন, কাজি শামসুন নাহার কনা, আলো মন্ডল, নাহার সুলতানা, শাহীন সুলতানা পাপিয়া, সামসুন্নাহার লাইজু, সাজেদা আক্তার বকুল, শামশুন্নাহার নেলী, ইসমত জাকিয়া, জোবায়দা আরা জিমি, রেবেকা সিনহা, হোসনে আরা দীবা, সূচীরা, সাদিয়া তাসনিম, ইসরাত জাহান সান্তনা, শাহানা পারভীন, আইরিন জাহান, ফারহানা রেজা পিউলী, নাহিদ সুলতানা, পূরবী সাহা, বেলজিস নাফিসা হক, মনিরা পারভীন গোলন্দাজ, হুমায়রা নূর, পূরবী শর্মা, নিঘাত সীমা, আফিফা স্বপ্না, আঞ্জুমান আরা বেগম রানু, ফারজানা শম্পা, নাসরীন পারভীন শেফালী, সুমাইয়া, রাশেদা চৌধুরী নিলু, রেহানা সুলতানা, তাহরীমা চৌধুরী শর্মী, রেবা কানিজ, তাসলিমা চৌধুরী, নার্গিস তানজীমা, সামিরা তারান্নুম রাবেয়া মিতি, শাহনাজ শাইন, নাসিমা হাকিম তপু, হেলেনা বেগম চায়না, মিনা দে, নিশাত ফারজানা নিপা, লিলি মমতাজ, মারুফা আক্তার শিউলি, নুসরাত জাহান, ইয়াসমিন বীথি, জেসমিন সুলতানা শামসাদ, রাজিয়া সুলতানা, সোহানা তাহমিনা মহিউদ্দিন, নাজনীন নাহার দীপু, নাসরীন সিদ্দিকা লীনা, ব্যারিস্টার সাফায়াত সুলতানা রুমী, প্রজ্ঞা তাপসী খান ও ফারহানা সিরাজ।
আইনজীবীদের কাছ থেকে আসা টাকা প্রতিদিনের হিসাব গ্রুপে দিয়ে সহায়তা করেছেন অ্যাডভোকেট আনিচুল মাওয়া। তহবিল গঠন ও কাজে প্রেরণা যুগিয়েছেন অ্যাডভোকেট শোভানা বানু, নাজমা আফরিন সুমনা, শামসাদ বানু এরিকা, সেলিনা সাত্তার মুন্নী, ফাতেমা বেগম, সাবিহা ইসলাম, খলিফা শামসুননাহার, অ্যাডভোকেট আন্না খানম কলি, নাজমুন নাহার বিউটি, সুমনা রহমান, লুবনা ইয়াসমিন, হোসনেয়ারা, নাজমা কাওসার, সাবিনা করিম, নাসমুন সিমু, আজরা হান্নান, রিক্তা, হ্যাপি ও অ্যাডভোকেট জেসি। এছাড়া নাম প্রকাশ না করার শর্তে অনেকে ফান্ডে টাকা জমা দিয়েছেন।
নারী আইনজীবীদের ফান্ড গঠনের এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক, রেলমন্ত্রী অ্যাডভোকেট নুরুল ইসলাম সুজন, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম, বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদের সদস্য সচিব ও ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস, অ্যাটর্নি জেনারেল এ এম আমিন উদ্দিন, সাবেক মন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম, বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদের আহ্বাক সিনিয়র আইনজীবী অ্যাডভোকেট ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন, সিনিয়র আইনজীবী এ কে এম ফয়েজ, অ্যাডভোকেট শাহ মঞ্জুরুল হক, অ্যাডভোকেট আবদুর নূর দুলাল, ব্যারিস্টার নুমায়ের মাবুদ মাসুম, অ্যাডভোকেট রমজান আলী সিকদার, অ্যাডভোকেট শেখ সিরাজুল ইসলাম সিরাজ, অ্যাডভোকেট ইমাম হাসান, অ্যাডভোকেট শেখ বাহারুল ইসলাম, ব্যারিস্টার ইমতিয়াজ ফারুক, অ্যাডভোকেট মাসুদ আলম চৌধুরী, অ্যাডভোকেট খান মোহাম্মদ শামীম আজিজ, অ্যাডভোকেট মিয়া মোহাম্মদ কাউসার সমীর, অ্যাডভোকেট আব্দুর রাজ্জাক রাজু, অ্যাডভোকেট বাকির উদ্দীন ভুইয়া, অ্যাডভোকেট জগলুল কবির, অ্যাডভোকেট নজরুল ইসলাম খন্দকার, অ্যাডভোকেট নাজমুল হুদা, অ্যাডভোকেট মশিউর আলম, অ্যাডভোকেট ইমতিয়াজ আহমেদ ও অ্যাডভোকেট দেলোয়ার হোসেন প্রমুখ।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *