বিনামূল্যে করোনা টেস্টের দাবিতে চাঁদপুরে ইসলামী যুব আন্দোলনের মানববন্ধন

এইচ.এম নিজাম :
করোনা মহামারী নিয়ন্ত্রণে বিনামূল্যে করোনা টেস্ট ও চিকিৎসা সামগ্রীর ব্যবস্থাকরণসহ টানা ছুটিতে চাকরিচ্যুত বেতন না পাওয়া, পুঁজি হারানো যুবকদের পুনর্বাসনে জরুরী ভিত্তিতে বেকার ভাতা প্রদানসহ উপযুক্ত কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা, পর্যাপ্ত পরিমাণে আইসোলেশন সেন্টার তৈরি ও চিকিৎসা সামগ্রী ক্রয়ে দুর্নীতি বন্ধের দাবীতে ইসলামী যুব আন্দোলনের মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।
গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে শহরের বিপনিবাগ ইসলামী যুব আন্দোলনের কার্যালয় সম্মুখে জেলা সভাপতি মাওলানা হেলাল আহমেদের সভাপতিত্বে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে ইসলামী যুব আন্দোলন চাঁদপুর জেলা শাখার মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।
এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ চাঁদপুর জেলা সেক্রেটারি কে.এম ইয়াসিন রাশেদসানী, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্হিত ছিলেন, জাতীয় ওলামা মাশায়েখ ও আইম্মা পরিষদের জেলা সাংগঠনিক সম্পাদক মাও আনোয়ার আল নোমান।
ইসলামী যুব আন্দোলনের জেলা সাধারণ সম্পাদক মাও মাহদী হাসানের পরিচালনায় মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন জেলা সহ-সভাপতি এ কে মোখতার হোসাইন, সাংগঠনিক সম্পাদক মাও আব্দুল গাফফার, দফতর সম্পাদক হাফেজ মুহা শাহাদাত হোসাইন, প্রচার সম্পাদক মুহা শামিম হোসাইন, যুব ও কর্ম সংস্থান সম্পাদক মুহা শাহিন খান, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক সাখাওয়াত হোসাইন, সংখ্যালঘু সম্পাদক মুহা আল আমীন, সদর উপজেলা সভাপতি মাও মনিরুজ্জামান, শহর শাখার সভাপতি মাও আলাউদ্দিন জামালি, সাধারণ সম্পাদক মুহা মনির হোসাইন প্রমুখ।
প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, দেশব্যাপী করোনা চিকিৎসায় চরম অব্যবস্থাপনা, স্বাস্থ্য খাতে সীমাহীন দুর্নীতি করে দেশের স্বাস্থ্য খাতকে পঙ্গু করে ফেলা হচ্ছে । সরকার নিরীহ জনগনের সাথে করোনা চিকিৎসার নামে তামাশা শুরু করেছে । জনগণের সাথে এ ধরনের আচরণ মেনে নেওয়া যায়না। অবিলম্বে চিকিৎসা সেবা উন্নিত করে জনগণকে চরম ভোগান্তি থেকে রক্ষা করতে হবে।
তিনি বলেন, যেখানে দেশে করোনা চিকিৎসার জন্য বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বাংলাদেশের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে বিশাল অংকের ব্যয় সাপেক্ষে প্রকল্প বরাদ্দ দিয়েছেন, সেখানে আজ করোনা টেস্টের জন্য কিটের অভাব। কিটের অভাবে আজ দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে করোনা টেস্ট বন্ধ।কিট সমস্যার কারনে এভাবে প্রতিদিন নমূনা টেষ্ট প্রত্যাশীদের সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে যা চরম ঝুঁকির কারণ হয়ে দেখা দিতে পারে। দিন দিন সংক্রমনের সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে অথচ টেস্টের অভাবে চিহ্নিত করা যাচ্ছে না কে সংক্রমিত আর কে সুস্থ্য। এভাবে চলতে থাকলে দেশ এক মৃত্যুপুরীতে পরিনত হবে।
মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, সাধারণ জনগণের স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত করতে সরকারকে দায়িত্ব দিতে হবে। সাধারণ ছুটির কারণে বেকার যুবকদের ভাতা প্রদান করতে হবে, চাকরীচ্যুত যুবকদের উপযুক্ত কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করতে হবে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *